ওয়েবডেস্ক: রাজকুমার হিরানি যে তাঁর নয়া ছবি ‘সঞ্জু’-র প্রচারের স্বার্থে কোনো কিছুই সারতে বাকি রাখছেন না! ঠিক এই কথাটাই এখন ঘুরে বেড়াচ্ছে বলিউডের অন্দরমহলে।

sanju

অবশ্য এ রকম কথা চালাচালি না হওয়ার কোনো কারণও নেই। কেন না, সঞ্জয় দত্তের জীবন নিয়ে ছবি বানাতে গিয়ে যে সব তথ্য আমাদের সামনে এক এক করে তুলে ধরছেন হিরানি, তা সত্যিই চমকে দেওয়ার মতো।

sanju

আপাতদৃষ্টিতে যা মনে হতে পারে নেহাতই চমক, মনে হতে পারে- স্রেফ প্রেক্ষাগৃহে লোক টেনে আনার ফন্দি!
কিন্তু সঞ্জয় দত্তের জীবন যে পৃথিবীর যে কোনো দেশের যে কোনো ছবির টানটান চিত্রনাট্যকেও হার মানানোর ক্ষমতা ধরে! ফলে যখন জানা গেল, ছবির ট্রেলারে উল্লে করা ৩০৮ জন প্রেমিকার কথাটা সত্যি, যা কি না কবুল করলেন পরে সঞ্জয় নিজেই, তখন বিস্ময়ের মাত্রা বেড়েই চলল!

rajkumar hirani

সেই বিস্ময়কেই এ বার আরও এক ধাপ চড়িয়ে দিলেন হিরানি। জানালেন, ঠিক কী ভাবে একের পর এক প্রেমিকা জোগাড় করতেন সঞ্জয় দত্ত। তাঁর জীবনের সেই বাস্তব ঘটনাও কল্পনার ধারে-কাছে পৌঁছয় না!

হিরানি জানাচ্ছেন, নিত্য নতুন প্রেমিকা জোগাড় করাটা দত্তের পক্ষে খুব একটা অসম্ভব কিছু ছিল না। একে তো তিনি অসম্ভব সুপুরুষ, তার উপরে ধনী এবং তারও উপরে ভারতীয় ছবির নায়ক। কিন্তু নারীদের আকর্ষণ করা আর তাঁদের মন জয় করা- দুটো আলাদা ব্যাপার! তাই দ্বিতীয় ক্ষেত্রে যাতে ব্যর্থ হতে না হয়, সে জন্য মৃতা মা নার্গিসের স্মৃতি ব্যবহার করতেন নায়ক!

sanjay dutt

“সঞ্জু মেয়েদের একটা কবরখানায় নিয়ে যেত। মিছিমিছি একটা কবর দেখিয়ে বলত, এটা আমার মৃতা মায়ের! তোমাকে মায়ের সঙ্গে আলাপ করাতে নিয়ে এলাম! এর পর সব মেয়েই অনায়াসে ধরা দিতেন সঞ্জুর বাহুবন্ধনে”, দাবি হিরানির!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here