ওয়েবডেস্ক: দৃশ্যটি এই মুহূর্তে, সত্যি কথা বলতে কী, ছবি মুক্তির ঠিক এক দিন আগে দাঁড়িয়ে নতুন কিছুই নয়। যে দিন থেকেই মুক্তি পেয়েছে রাজকুমার হিরানি পরিচালিত সঞ্জয় দত্তের এই বায়োপিক ট্রেলার, সে দিন থেকেই দৃশ্যটি নিয়ে আলোচনা হয়েছে বিস্তর। কেউ বা তার অভিঘাতে বিস্মিত হয়েছেন, কেউ বা উঠেছেন শিউরে!

sanju

কেন না, দৃশ্যটিতে এক মহিলা আইনজীবী, যে চরিত্রে অভিনয় করেছেন অনুষ্কা শর্মা, তাঁকে সঞ্জু-রূপী রণবীর কাপুরের সঙ্গে কথোপকথনে ব্যস্ত দেখা যাচ্ছে। আইনজীবী জানতে চাইছেন, সব মিলিয়ে ঠিক কত জন নারীর সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক হয়েছে নায়কের! নায়ক বেশ রগড়ের সঙ্গেই বলছেন, ৩০৮ জন! যদিও এই হিসেবের মধ্যে তিনি যৌনকর্মীদের সংখ্যাটা ধরেননি! উত্তর শুনে এক দিকে যেমন আইনজীবীর ঠোঁটের কোণে হাসি ফুটে উঠেছে, তেমনই মৃদু ভাবে হলেও হাসতে দেখা গিয়েছে সঞ্জয়ের স্ত্রী মান্যতার চরিত্রে অভিনয় করা দিয়া মির্জাকেও।

sanju

এবং এই দৃশ্য আর সংলাপের পরিপ্রেক্ষিতেই ছবি নির্মাতা, অনুষ্কা ও রণবীরকে কাঠগড়ায় তুলতে চাইছেন গৌরব গুলাটি নামের এক সমাজসেবী। তাঁর দাবি- যৌনকর্মীদের নিয়ে এই পরিহাস না কি মানবিকতার সীমা ছাড়িয়েছে। “শুধু তাই নয়, ছবিটা আগাগোড়া নারীবিদ্বেষে পূর্ণ”, জানাচ্ছেন গুলাটি।

জানা গিয়েছে, তিনি এর মধ্যেই থানায় লিখিত অভিযোগ জমা করেছেন অনুষ্কা, রণবীর এবং ছবি নির্মাতাদের নামে। দেখা যাক, এ বিষয়ে কী বলেন তাঁরা!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here