ওয়েবডেস্ক: গত বছরের ডিসেম্বর মাসের ঘটনা! পতৌদি গ্রামে ধুমধাম করে ছেলে তৈমুর আলি খানের জন্মদিন পালন করেছেন করিনা কাপুর খান আর সইফ আলি খান। ঘনিষ্ঠ আত্মীয়রা সবাই এসেছেন সেই উপলক্ষ্যে। আসেননি শুধু সইফের প্রথম পক্ষের স্ত্রী অমৃতা সিং এবং ছেলে-মেয়ে ইব্রাহিম খান আর সারা আলি খান! বলিউড দাবি তুলেছিল সে সময়ে- এ সম্পত্তি নিয়ে বিরোধের একটা দিক! সেই জন্যেই ছেলে-মেয়েকে বাবার নতুন সন্তানের জন্মদিনে যেতে দেননি অমৃতা!

আরও পড়ুন: নয়নের মণি তৈমুরকে নিয়ে ছুটিতে সইফিনা, সারা-ইব্রাহিম পড়ে রইলেন জিমে, দেখুন ভিডিও

কিন্তু সম্প্রতি ‘কফি উইথ করণ’ টক শো-তে এসে যা বলেছেন সারা আলি খান, তা বিতর্ক আরও বাড়িয়ে তোলার ক্ষমতা ধরে! কেন না, যত রকম ভাবে পারা যায়, বাহবার দ্বিতীয় বিয়েটাকে যুক্তিযুক্ত করে তুলতে চেয়েছেন সারা! এটাও বলতে দ্বিধা করেননি- করিনার সঙ্গে বিয়ের আগে কতটা অশান্তির মধ্যে ছিলেন তাঁর মা-বাবা!

 

View this post on Instagram

 

Thank you Haroon Rashid and @bbc @bbcnews for having me 📢🗣🎥💁🏻‍♀️🙏 #bbc #bbcnews #bbcasiannetwork #bbcworldnews

A post shared by Sara Ali Khan (@saraalikhan95) on

“দেখুন, একটা ব্যাপার বুঝতে হবে! সেটা হল অন্যের সিদ্ধান্তকে সম্মান করতে শেখা! সে জায়গা থেকেই বাবার করিনাকে বিয়ে করা নিয়ে আমার কোনো অভিযোগের জায়গা নেই! মা নিজেই তো ওই বিয়েতে যাওয়ার জন্য আমায় সাজিয়ে দিয়েছিলেন”, দাবি সারার!

অন্য দিকে, এটাও বলতে ভোলেননি, করিনা আর সইফ তাঁর প্রতি কী প্রচণ্ড রকমের মানবিক! “করিনা সাফ বলেছিল আমায়- তোমার একজন মা আছেন এবং তাঁর তুলনা হয় না! ওই জায়গা আমার পক্ষে নেওয়া সম্ভব নয়। বরং আমরা ভালো বন্ধু হয়ে যাই! আমার একটা দ্বিধা ছিল- ওঁকে কী বলে ডাকব- শুধু করিনা না মা! তা, বাবাও বললেন- আমার মনে হয় না তোমার ওঁকে মা বলে ডাকতে ভালো লাগবে! তুমি নাম ধরেই ডেকো”, জানিয়েছেন সারা!

 

View this post on Instagram

 

And the fairytale feels continue 👀👀🤩🧚‍♀️

A post shared by Sara Ali Khan (@saraalikhan95) on

এ ছাড়া উল্লেখ করতে ভোলেননি অমৃতা-সইফের তিক্ত সম্পর্কের কথাও! “একটা সময় ছিল যখন মা আর বাবা কাউকেই আমি সুখী দেখিনি! এখন কিন্তু দুজনেই সুখী, দুজনেই খুব ঠিকঠাক ভাবে রয়েছেন! তাই বাবার দ্বিতীয় বিয়েটা আমার উচিত বলেই মনে হয়! তা ছাড়া, আমরাও দুটো বাড়ি পেয়েছি কমফর্ট জোন হিসেবে, এটাই বা কম কী”, মতামত সারার!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here