ওয়েবডেস্ক: এখানে দৃষ্টিকোণটা একটু আলাদা! তবে ছবি পরিচালনার সঙ্গে কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় যুক্ত বলে এ টলিপাড়ার আরেকটি প্রেমের গল্প-ই! অন্তত সদ্য মুক্তি পাওয়া ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় অভিনীত ‘দৃষ্টিকোণ’ ছবির প্রথম পোস্টার সে রকমই ইঙ্গিত দিচ্ছে।

ছবিটির পোস্টার নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে সবার সঙ্গে ভাগ করে নিয়েছেন ছবির পরিচালক কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়। ‘দৃষ্টিকোণ’ ছবির সেই পোস্টার বড়ো সহজ কোনো গল্প বলছে না।

কেন না, পোস্টারে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে দেখা যাচ্ছে একটি চোখে আঘাতপ্রাপ্ত অবস্থায়। পোস্টারে স্যুটেড নায়ককে দেখা যাচ্ছে একটা বেশ ভারিক্কি ফ্রেমের চশমা পরে থাকতে। সেটার একটা কাচের ও পারে ধরা দিয়েছে অভিব্যক্তিপূর্ণ এক চোখ, অন্যটার ও পারে জেগে রয়েছে শূন্য দৃষ্টিগহ্বরের না বলা কথারা।

আর ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত যেন চোখ তুলে তাকিয়ে রয়ছেন তাঁরই দিকে। ছবির দুই ভাগের এই কোলাজ এ ভাবেই একটা সহাবস্থানের ইঙ্গিত দিচ্ছে। কিন্তু তৃতীয় ফ্রেমে নায়ককে আবার দেখা যাচ্ছে পিছন ফিরে থাকতে।

কার দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে রয়েছে ছবির এই মুখ্য চরিত্রটি?

ছবির প্রযোজনা সংস্থা সুরিন্দর ফিল্মস নিজেদের টুইটারে পোস্টারের পাশাপাশি দুই মুখ্য নারীচরিত্রের দুটি টিজারও ছেড়েছে। যার একটায় একজন ‘টিপিক্যাল হাউসওয়াইফ’ হিসাবে দেখা যাচ্ছে চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়কে। অন্যটা থেকে জানা যাচ্ছে, ছবিটায় ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত অভিনীত চরিত্রটির নাম শ্রীমতী। সে বলছে- ‘লড়াইটাই আমার একমাত্র পথ!’

ইতিপূর্বে কৌশিক জানিয়েছিলেন, ছবির গল্পে প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে দেখা যাবে এক আইনজীবীর চরিত্রে। আর তাঁর মক্কেল ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। বছরের পর বছর একটি মামলা চলতে থাকায় দুজনের মধ্যে একটা সৌহার্দ্যসূত্র গড়ে উঠেছে। কী ভাবে তাদের পেশাদার সম্পর্ক রূপান্তরিত হল ভালবাসায়, তারই গল্প বলবে ‘দৃষ্টিকোণ’। আর চূর্ণী গঙ্গোপাধ্যায়কে দেখা যাবে আইনজীবীর স্ত্রী রুমকির চরিত্রে। এক জুনিয়র আইনজীবীর চরিত্রে ছবিতে রয়েছেন গৌরব চক্রবর্তীও। এ ছাড়া শ্রীমতীর ভাসুরের চরিত্রে ‘দৃষ্টিকোণ’-এর পর্দা জুড়ে থাকবেন কৌশিক নিজেও।

আর চোখে আঘাতের ব্যাপারটা?

সেটার জন্য যতক্ষণ না পরিচালক কিছু জানাচ্ছেন অথবা যতক্ষণ না ছবির ট্রেলার মুক্তি পাচ্ছে, ততক্ষণ অপেক্ষা করতেই হবে!

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন