bollywood

ওয়েবডেস্ক: বলা হয় বটে, সম্পর্কটা প্রতিদ্বন্দ্বিতার! কার্যত দেখা যাচ্ছে, বলিউডের ডাকসাইটে খান ভাইয়েরা মিলেমিশে কাজ করতেই ইচ্ছুক। শুধু একে অন্যের ছবিতে আলতো করে মুখ দেখানোই নয়, দরকারে কাজ দিয়েও একে অন্যকে সাহায্য করতে প্রস্তুত তাঁরা। অন্তত আমির খান তো বটেই! শাহরুখ খানের কেরিয়ারে মজার এক বাঁক এল তাঁরই বদান্যতায়।

ব্যাপারটা কী?

যে দিন থেকে খবর এসেছে ভারতের প্রথম নভোচারী রাকেশ শর্মার জীবন নিয়ে ‘স্যালুট’ নামে ছবি তৈরি করতে চলেছেন প্রযোজক সিদ্ধার্থ রায় কাপুর এবং পরিচালক মহেশ মাথাই, সে দিন থেকেই গুজব ছিল তুঙ্গে। সবার মুখে ছিল একটাই প্রশ্ন- বলিউডের কোন নায়ককে দেখা যাবে শর্মার ভূমিকায়? এবং সেই গুজব ঘোরাফেরা করছিল আমির খানকে ঘিরেই। যদিও সম্প্রতি জানিয়ে দিয়েছেন আমির, তিনি ছবিটা করছেন না।

তা বলে ছবিটা নিয়ে চিন্তাভাবনাও একেবারে দূর হয়ে যায়নি তাঁর মাথা থেকে। জানা গিয়েছে, প্রযোজককে তিনিই পরামর্শ দিয়েছেন শাহরুখ খানকে নিয়ে ছবিটা বানাতে। সেই পরামর্শ মেনে নিয়েছেন প্রযোজক, পরিচালক দুজনেই। এরপর বাকি ছিল কেবল শাহরুখ খানের সঙ্গে কথা বলা।

দেখা গেল, সে দায়িত্বও নিজের কাঁধে তুলে নিলেন আমির। খবর, তিনি সরাসরি ফোন করেন শাহরুখকে। এবং শেষ পর্যন্ত তাঁকেও রাজি করিয়ে ফেলেন। ইতিমধ্যেই ছবিটা করতে রাজি হয়ে চুক্তিপত্রে সই করে ফেলেছেন শাহরুখ। এবার শুটিং শুরু হলেই হয়!

কিন্তু মজার ব্যাপারটা কী?

 

নভোযাত্রার সূত্রে আমির-শাহরুখের এই যোগাযোগ পাক্কা ১৩ বছরের পুরনো। ‘স্বদেশ’ ছবিটার কথা মনে পড়ছে? যেখানে শাহরুখকে দেখা গিয়েছিল নাসা-কর্মীর ভূমিকায়? সেই ছবির মহরতের দিন ক্ল্যাপবোর্ডটা কিন্তু ক্লিক করেছিলেন আমির খান! সম্প্রতি সেই ছবি এবং বার্তা টুইটার মারফত সবাইকে জানিয়েছেন ছবির পরিচালক আশুতোষ গোয়াড়িকর। দেখতেই তো পাচ্ছেন সেই টুইট উপরে!

আর এবার আমিরের হাত ধরেই নাসা-প্রসঙ্গ ফের এল শাহরুখের জীবনে। আশা করাই যায়, ‘স্যালুট’ ‘স্বদেশ’-এর মতোই সমালোচকদের প্রশংসা আর বক্স অফিসে ব্যবসা- দুটোই ফিরিয়ে দিতে পারবে শাহরুখের জীবনে!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here