গুলিবিদ্ধ হয়ে পঞ্জাবের এক উঠতি কংগ্রেস নেতা তথা গায়ক সিধু মুসেওয়ালার মৃত্যু হওয়ার পর বেড়েছে আতঙ্ক। তাঁর মৃত্যুর পিছনে রয়েছে লরেন্স বিষ্ণোই গোষ্ঠীর হাত। খুনের দায় স্বীকার করেছে তারা। এরপরে বেড়েছে আতঙ্ক।

পঞ্জাবের এই উঠতি রাজনীতিকে মৃত্যুর পর নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে বলি অভিনেতা সলমন খানের। জানা গিয়েছে ২০১৮ সালে ভাইজানকে খুনের হুমকি দিয়েছিল এই গোষ্ঠী। সেই সময় এই বিষয় নিয়ে হইচই হলে পরে তা থেমে যায়।

এবার সিধুর মৃত্যুতে সিঁদুরে মেঘ দেখা যাচ্ছে। তাই বাড়ানো হয়েছে সলমন খানের নিরাপত্তা। কোনো রকম ঝুঁকি নিতে রাজি নয় মুম্বাই পুলিশ। জানা গিয়েছে, বলি তারকার বাড়ির বাইরে নিরাপত্তার বাড়ানো হয়েছে। এখানেই শেষ নয়, সলমন খানের আশেপাশে যাতে ভিড় না জমে সেই দিকেও খেয়াল রাখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালে কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা করার কারণে বিষ্ণোই-এর সহকারী সলমান খানকে হত্যার হুমকি দিয়েছিল। কারণ তাদের কাছে কৃষ্ণসার হরিণ পবিত্র জন্তু। সুতরাং এই পবিত্র জন্তুকে হত্যা করার অর্থ এই গুণ্ডা গোষ্ঠীকে হুমকি দেওয়ার সামিল।

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন