ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতে সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে ৫০, ৬০, ৭০-এর দশকে মুকেশ কুমার, কিশোর কুমার অনবদ্য। ১৯২৩ সালে ২২ জুলাই দিল্লিতে জন্মগ্রহণ করেন মুকেশ কুমার। মুকেশের পুরো নাম ছিল মুকেশ চাঁদ মাথুর। ‘দোস্ত দোস্ত না রাহা’, ‘জিনা ইয়াহান মরনা ইয়াহান’, ‘কেহতা হ্যায় জোকার’-এর মতো হিট গান রয়েছে তাঁর ঝুলিতে।

মুকেশ কুমার সবসময়ই চলচ্চিত্রে কাজ করতে চেয়েছিলেন। একবার মুকেশ তাঁর আত্মীয় মতিলালের বোনের বিয়েতে গান গেয়েছিলেন মতিলাল মুকেশের কন্ঠ এত পছন্দ করেছিলেন যে তিনি তাঁকে মুম্বাই নিয়ে আসেন। মতিলালের বাড়িতে থাকতেন মুকেশ। এখানেই নিজের ভালোবাসার মানুষের দেখা পেয়েছিলেন তিনি। প্রবল বৃষ্টির মধ্যে অপেক্ষা করতেন ভালোবাসার মানুষটিকে একপলক দেখার জন্য। ঠান্ডায় কাঁপতে থাকলেও একচুল সরেননি। ভালবাসার এই সম্পর্ক মেনে নেয়নি মেয়েটির পরিবার। বাড়ি থেকে বেরোনো বন্ধ হয়ে যায়। পুজো দেওয়ার নামে মন্দিরে গিয়ে বিয়ে হয় মুকেশের। সমস্ত ব্যবস্থা করেছিলেন মতিলাল। আশ্চর্যের বিষয় নিজের জন্মদিনের দিনেই ভালবাসার মানুষকে বিয়ে করেছিলেন মুকেশ কুমার। ১৯৭৬ সালে ২৭ অগাস্ট আমেরিকায় একটি স্টেজ শোতে পারফর্ম করতে করতে না ফেরার দেশে চলে গেলেন মুকেশ কুমার। মৃত্যুর আগে তাঁর গলায় বাজছিল ‘এক দিন বিক জায়েগা মাটি কে মোল, জাগ মে রেহ যায়েঙ্গে প্যারে তেরে বোল’।

আরও পড়তে পারেন :

নিজেকে পর্দায় দেখতে না-পসন্দ অভিনেত্রী দিশা পাটানির

শরীরে নেই কোনও সুতো, গোলাপের পাপড়ি দিয়ে নিজেকে ঢাকলেন উরফি

ছবির ২২ বছর পূর্ণ! ভিডিও শেয়ার করলেন অভিনেত্রী প্রীতি জিন্টা

সমুদ্র সৈকতে খোলা আকাশের নীচে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে নিক-প্রিয়াঙ্কা

দীপিকার ‘পাঠান’ লুক প্রকাশ্যে

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন