ওয়েবডেস্ক: ক্যালেন্ডারের পাতায় ৫ তারিখ তো পড়েই গেল! হাতে বাকি রয়েছে বলতে কেবল স্রেফ তিনটে দিন! ৬ তারিখ পেরিয়ে যাবে হুশ করে, তার পর ৭ তারিখে বসবে সঙ্গীতের আসর আর ৮ তারিখে বান্দ্রার রকডেল নামের সোনম কাপুরের মাসির বাড়িতে দুপুর সাড়ে বারোটার মধ্যেই সাঙ্গ হবে বিয়ের অনুষ্ঠান! ওই দিনই বিকেলে, ওই একই বাড়িতে একটা পার্টিও দেওয়া হবে খুবই কাছের মানুষদের জন্য।

sonam kapoor and anand ahuja

কিন্তু বলিউডের নিয়মমাফিক তার পরেই সোনম কাপুর আর আনন্দ আহুজা কিন্তু উড়ে যাচ্ছেন না বিদেশের কোনো মনোরম স্থানে মধুচন্দ্রিমার জন্য। যাচ্ছেন না দেশেরও কোনো রমণীয় স্থানে। আসলে, মধুচন্দ্রিমাটাই হচ্ছে না! তাতে ঢ্যাঁড়া পড়ে গিয়েছে। হতে হতে সেই অক্টোবর কী নভেম্বর মাস!

জানা গিয়েছে, সোনম আর আনন্দের এই বিলম্বিত মধুচন্দ্রিমার জন্য দায়ী মূলত কানের চলচ্চিত্র উৎসব। যা কি না শুরু হচ্ছে নায়িকার বিয়ের দিন থেকেই! ফলে বিয়ের পরেই সোনম চলে যাচ্ছেন সেখানে। কানের বিখ্যাত লাল গালিচায় পা রাখতে। কানাঘুষো শোনা যাচ্ছিল, আনন্দও সেখানে যাবেন নতুন বউয়ের সঙ্গে। তবে আপাতত খবর বলছে, তিনিও ব্যস্ত থাকবেন কাজকর্ম নিয়েই।

sonam kapoor and anand ahuja

তা ছাড়া সোনমের হাতে এখন রয়েছে একের পর এক ছবির কাজ। ‘বীরে দি ওয়েডিং’ মুক্তি পাবে পরের মাসেই, অতএব তার প্রচারের ব্যাপারটা আছে। পাশাপাশি রয়েছে ‘এক লড়কি কো দেখা তো অ্যায়সা লাগা’ এবং ‘দ্য জোয়া ফ্যাক্টর’ নামে দু’টো ছবির কাজও! সেই সব মিটতে মিটতে বছর এসে দাঁড়াবে প্রায় শেষের মুখে। সেই জন্যই মোটামুটি নভেম্বরের আগে সোনম এবং আনন্দের মধুচন্দ্রিমা সম্ভব হচ্ছে না!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here