ওয়েবডেস্ক: নানা রকম খারাপ খারাপ কথা তো শুনতেই হয় তাঁকে! একে তিনি বিখ্যাত বাবার মেয়ে, তায় নিজেও জনপ্রিয়, তায় আবার নারী! সব মিলিয়ে, ব্যঙ্গ-বিদ্রুপের ঝড় হামেশাই ওঠে সোনম কে আহুজার নানা ব্যাপারে- কখনও উপলক্ষ্য হয় পোশাক, কখনও বা বেফাঁস মন্তব্য! কিন্তু কোনো দিনই তো তার জন্য সোশ্যাল মিডিয়াকে বিদায় জানাননি নায়িকা! এ বার তা হলে “আমি কিছু দিনের জন্য টুইটার থেকে দূরে থাকতে চাই, এটা বড়ো বেশি নেতিবাচক” বলে কেন মাইক্রোব্লগিং সাইট ছাড়লেন তিনি?

সোনম এ ব্যাপারে নিজে থেকে কিছু জানাননি! কেবল শুভাকাঙ্ক্ষীদের ‘শান্তি আর ভালোবাসা’ জানিয়ে সরে গিয়েছেন দূরে। কিন্তু খবর বলছে, তাঁর নিজের একটি সাম্প্রতিক পোস্টই এমন পরিস্থিতি তৈরি করেছে। স্বাভাবিক ভাবেই তাই প্রশ্ন জাগে- কী এমন ছিল সেই পোস্টে?

আরও পড়ুন: ঢিলেঢালা পোশাকে ফুটে উঠল সোনমের গর্ভলক্ষণ, দেখুন নিজেই!

অনুমান যে পোস্টটির দিকে আঙুল তুলছে, তাতে মুম্বইয়ের বেহাল সড়ক আর দূষণ নিয়ে অভিযোগ তুলেছিলেন নায়িকা! “শহরে পৌঁছতে ২ ঘণ্টা লেগে গেল! তাও এখনও গন্তব্যে পৌঁছইনি! রাস্তা খুবই খারাপ আর দূষণ তো যাকে বলে যাচ্ছেতাই! বাড়ি থেকে বেরনোটা দিন দিন দুঃস্বপ্ন হয়ে দাঁড়াচ্ছে”, পোস্টে লিখেছিলেন নায়িকা! তার পরেই এক ব্যক্তি মন্তব্য করেন- “সে তো আপনাদের মতো মানুষের জন্যেই হচ্ছে! আপনারা পাবলিক ট্রান্সপোর্টে যাতায়াত করেন না, তার উপরে আবার কম জ্বালানিতে চলে এমন গাড়িও ব্যবহার করেন না! আপনি নিজেও ভালো মতো জানেন যে আপনার গাড়ি প্রতি লিটারে ৩-৪ মাইলেজের বেশি দেয় না, বাড়ির ১০-২০টা এসিও সমান পরিমাণে গ্লোবাল ওয়ার্মিংয়ের জন্য দায়ী! আগে নিজের তরফ থেকে দূষণটা প্রতিহত করুন!”

এর পরে সোনম সরাসরি যৌন হেনস্তার দায়ে ফেলেন ব্যক্তিটিকে! লেখেন- “আপনাদের মতো পুরুষ, যাঁরা পাবলিক ট্রান্সপোর্টে মেয়েদের হেনস্তা করেন, তাঁদের জন্যই পাবলিক ট্রান্সপোর্ট ব্যবহার করা যায় না!” কথা হল, এর পরেই তিনি বিদায় নিলেন টুইটার থেকে! তা হলে কি বিবৃতি বুমেরাং হয়ে ফিরে এসেছে তাঁরই খাতে?

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন