Connect with us

বিনোদন

চিকিৎসায় সাড়া দিচ্ছেন না সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, শারীরিক অবস্থার অবনতি

ফুসফুস, রক্তচাপ, হার্ট এবং কিডনি ভাল ভাবে কাজ করছে, কিন্তু প্লেটলেট কাউন্ট হ্রাস পেয়েছে এবং রক্তে ইউরিয়া এবং সোডিয়ামের মাত্রা বেড়েছে।

Published

on

সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। ফাইল ছবি

খবর অনলাইন ডেস্ক: অষ্টমীর রাত থেকেই শারীরিক অবস্থার অবনতি হতে শুরু করে প্রবীণ অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের (Soumitra Chatterjee)। সংবাদ সংস্থা পিটিআই-এর কাছে অভিনেতার চিকিৎসক দলের নেতৃত্বে থাকা অরিন্দম কর জানান, আপাতত চিকিত্‍সায় কোনও সাড়া দিচ্ছেন না প্রবীণ অভিনেতা।

টানা ১৯দিন ধরে হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন প্রবীণ অভিনেতা। গত ৭২ ঘণ্টায় তাঁর আচ্ছন্ন ভাব কাটেনি। ফলে এখনই সঠিক ভাবে কিছু বলা যাচ্ছে না। সবমিলিয়ে চিকিৎসকক দলকে আগামী দিনে কিছু গুরুত্বপূর্ণ এবং কঠিন সিদ্ধান্ত নিতে হবে বলে জানা গিয়েছে।

চিকিৎসক কর জানান, “গত ৭২ ঘণ্টায় তাঁর আচ্ছন্ন অবস্থা বেড়েছে। বিষয়টা কোন পথে চলেছে তা নিশ্চিত নয়। আমরা পরীক্ষার রিপোর্টগুলি পেয়েছি। আমাদের অনুমান, কোভিডের ফলে এনসেফেলোপ্যাথির জেরেই এমনটা হচ্ছে”।

Loading videos...

তবে প্রবীণ অভিনেতার ফুসফুস, রক্তচাপ, হার্ট এবং কিডনি ভাল ভাবে কাজ করছে, কিন্তু তাঁর প্লেটলেট কাউন্ট হ্রাস পেয়েছে এবং রক্তে ইউরিয়া এবং সোডিয়ামের মাত্রা বেড়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

৮৫ বছর বয়সি অভিনেতার শারীরিক পরিস্থিতি জানাতে গিয়ে পিটিআই-এর কাছে চিকিৎসক অরিন্দম কর (Dr. Arindam Kar) বলেন, “তাঁর ফুসফুস এবং রক্তচাপ এখনও ভাল ভাবে কাজ করছে, তবে চিন্তার বিষয়ও রয়েছে। তাঁর প্লেটলেট কাউন্ট নেমে এসেছে। আমরা এর কারণ জানার চেষ্টা করছি। আমরা আগামীকাল কিছু কঠিন সিদ্ধান্ত নেব। আমরা আমাদের যথাসাধ্য চেষ্টা করছি। এই বয়সে এই রোগে ভুগছেন এমন কারও পক্ষেই কোনো কোনো সময় সেরা প্রচেষ্টাও যথেষ্ট নয়”।

৫ অক্টোবর কোভিড পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসার পর সৌমিত্রকে পরের দিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গত সপ্তাহে তাঁর কোভিড নেগেটিভ এসেছিল। কয়েক দিন আগে জানা যায়, দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। শারীরিক উন্নতির লক্ষণগুলো স্পষ্ট। কোনো কিছুর সাহায্যে কয়েক দিনের মধ্যেই তাঁকে হাঁটানোর পরিকল্পনা করছেন ডাক্তাররা। সংবাদসংস্থা পিটিআই এই খবর দিয়েছিল। আরও পড়তে পারেন: কয়েক দিনের মধ্যেই সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে হাঁটানোর চেষ্টা করা হবে, জানালেন ডাক্তার

Advertisement
Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

বিনোদন

মাদক মামলায় জামিন পেলেন ভারতী সিংহ ও হর্ষ লিম্বাচিয়া

Published

on

খবরঅনলাইন ডেস্ক: মাদক মামলায় জামিন পেলেন কমেডিয়ান ভারতী সিংহ এবং তাঁর স্বামী হর্ষ লিম্বাচিয়া। প্রায় দেড় দিন নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরোর (এনসিবি) হেফাজতে থাকার পর সোমবার তাদের জামিন মঞ্জুর করে বিশেষ আদালত।

শনিবার ভারতী এবং হর্ষের মুম্বইয়ের ফ্ল্যাটে তল্লাশি চালায় এনসিবি। সেখান থেকে ৮৬.৫ গ্রাম মতো গাঁজা উদ্ধার করে তাঁরা। এর পর এনসিবি দফতরে ভারতী আর হর্ষকে টানা জেলা করা হয়। এতে দু’জনেই গাঁজা সেবনের কথা স্বীকার করেন। সে দিন রাতেই ভারতীকে গ্রেফতার করা হয়। রবিবার গ্রেফতার হন হর্ষ।

রবিবারই ভারতী এবং হর্ষকে ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টে পেশ করে এনসিবি। ৪ ডিসেম্বর অবধি তাঁদের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে রাখা নির্দেশ দেওয়া হলে ভারতীকে কল্যাণ জেলে এবং তাঁর স্বামী হর্ষকে তালোজা জেলে নিয়ে যাওয়া হয়। 

Loading videos...

এর পর আইনজীবীর সাহায্যে বিশেষ আদালতে জামিনের আবেদন জানান এই দম্পতি। আবেদনে জানানো হয়, পূর্বে তাঁদের কোনো ক্রিমিনাল রেকর্ড নেই ফলে জামিন পেলেও পলাতক হওয়ার কোনো প্রশ্ন উঠছে না। এর পর আজ তাঁদের জামিন মঞ্জুর করা হয়।

এএনআই সংবাদসংস্থাকে ভারতীদের আইনজীবী জানিয়েছেন, “মাথাপিছু ১৫ হাজার টাকার বন্ডে মাদক সংক্রান্ত বিশেষ আদালত তাঁদের জামিন মঞ্জুর করেছে।  এনসিবির তরফ থেকে এখনও কোনো উত্তর আসেনি।”

খবরঅনলাইনে আরও পড়তে পারেন

ডিসেম্বর থেকে ‘দুয়ারে দুয়ারে সরকার’, নয়া প্রকল্পের ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

Continue Reading

বিনোদন

ভারতী সিংয়ের পর মাদকযোগের তদন্তে তাঁর স্বামীকেও গ্রেফতার করল এনসিবি

সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ডের সাজা দিতে পারে আদালত।

Published

on

ভারতী সিং এবং হর্ষ লিম্বাচিয়া। ফাইল ছবি

মুম্বই: কমেডিয়ান ভারতী সিংয়ের স্বামী হর্ষ লিম্বাচিয়া (Harsh Limbachiya)-কে রবিবার সকালে গ্রেফতার করল এনসিবি।

মাদককাণ্ডের তদন্তে শনিবার এনসিবি গ্রেফতার করে কৌতুকশিল্পী ভারতী সিং (Bharti Singh)-কে। পাশাপাশি তাঁর স্বামী চিত্রনাট্যকার হর্ষ লিম্বাচিয়া (Harsh Limbachiya)-কে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়।

প্রায় ১৫ ঘণ্টা জেরার পর ৩৩ বছর বয়সি হর্ষকে এ দিন সকালে গ্রেফতার করে এনসিবি। তদন্তকারী সংস্থা সূত্রে খবর, ভারতীয় এবং তাঁর স্বামী স্বীকার করে নিয়েছেন, তাঁরা মাদক ব্যবহার করতেন।

Loading videos...

এনসিবির বিবৃতিতে বলা হয়েছে, “ভারতী সিং এবং তাঁর স্বামী হর্ষ লিম্বাচিয়া উভয়েই গাঁজা সেবন করেছেন। ভারতীকে নারকোটিক্স ড্রাগস এবং সাইকোট্রপিক সাবস্টেন্সস (এনডিপিএস) আইনের আওতায় আটক করা হয়েছিল”।

সূত্রের খবর, তাঁদের বাড়িতে যে পরিমাণ গাঁজা পাওয়া গেছে তা ‘বাণিজ্যিক’ ছিল না, তবে এর জন্য সর্বোচ্চ ১০ বছরের কারাদণ্ডের সাজা দিতে পারে আদালত।

শনিবার জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কৌতুকশিল্পী ভারতী সিং ও তাঁর স্বামী চিত্রনাট্যকার হর্ষ লিম্বাচিয়াকে তুলে নিয়ে যায় নারকোটিক্স কন্ট্রোল ব্যুরো (NCB)। একটি মহলের তরফে দাবি করা হয়, এ দিন সকালে তাঁদের বাড়িতে তল্লাশি চালিয়ে নিষিদ্ধ মাদক উদ্ধার করেন তদন্তকারীরা। জানা যায়, তল্লাশি করে তাঁর বাড়ি থেকে ‘৮৬.৫ গ্রাম গাঁজা’ উদ্ধার হয়েছে। এর পরই ভারতী এবং তাঁর স্বামীকে দফতরে নিয়ে যায় এনসিবি।

বলিউড অভিনেতা সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর পর নতুন মাত্রা পেয়েছে বলিউডের মাদক-যোগের তদন্ত। তার পর থেকে বলিউডে একের পর এক তারকার মাদকযোগ প্রকাশ্যে আসছে। সেই তদন্তের সূত্র ধরেই ভারতী এবং তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেয় তদন্তকারী সংস্থা।

আরও পড়তে পারেন: ‘আপনিও ওষুধ খান, ভালো থাকবেন’, ছ’ঘণ্টার জেরা সেরে বেরনোর সময় সাংবাদিককে বললেন অর্জুন রামপাল

Continue Reading

বিনোদন

রবিবারের পড়া: শহর ছেড়ে তুমি কি চলে যেতে পারো তিন ভুবনের পারে

‘বর্ণালী’ ছবিতে নৌকায় শর্মিলার কণ্ঠে ‘যখন ভাঙল মিলন মেলা ভাঙল’ গানটি শুনে মনে হল গীতবিতান তোমার কাছে আত্মার শান্তি আর আবোলতাবোল তোমার প্রাণের স্পন্দন।

Published

on

'তিন ভুবনের পারে' ছবিতে তনুজার সঙ্গে।

পাপিয়া মিত্র

এই বাদামগাছের ছায়ায় / তোমায় আমি উপহার দেব একটি শোক / জেনো আজ এই চৈত্রদিনের সন্ধ্যার / তার থেকে আপন আর তোমার কেউ নেই। (এই বাদাম গাছের ছায়ায়)

তাঁর লেখা কবিতা দিয়েই আজকের লেখা শুরু। তাঁকে শ্রদ্ধা জানানো, খানিক গঙ্গাজলে গঙ্গাপুজোর মতো। চৈত্রের দিন নয়। হেমন্তের প্রান্তদিনের মধ‍্যগগনে মনের মধ‍্যে শেষ চৈত্রের ঝড় এল – চলে যায় মরি হায় বসন্তের দিন। সৌমিত্র মানে বসন্ত। সে বসন্ত যৌবনের, সে বসন্ত প্রৌঢ়ের, আবার সে বসন্ত বার্ধক্যেরও। এই তিন পর্যায়ের বসন্তের এক তৃপ্ত আকর্ষণ আছে, যার টানে প্রেক্ষাগৃহে দেখা গেছে নানা স্তরের দর্শকদের। তাঁকে বা তাঁর অভিনয়ক্ষমতা বিশ্লেষণ করার স্পর্ধা নেই। বরং নতমস্তকে আজ মনে করব সেই সব চিরসবুজ, চিরযৌবনের গানের কলি।  কখনও সৌমিত্র গেয়েছেন আবার কখনও তাঁর নায়িকারা। কখনও বা তিনি একাই।

Loading videos...
‘অরণ্যের দিনরাত্রি’ ছবিতে শর্মিলার সঙ্গে।

জনসমুদ্রের মাঝে আমাদের অপু, ক্ষিদদা, অমল, ফেলুদা তথা প্রদোষচন্দ্র মিত্র, গঙ্গাচরণ, সন্দীপ, অসীম, ময়ূরবাহন, অমিতাভ রায়, নরসিং, রতন, অরুণাভ মুখার্জি, শ‍্যাম, উদয়ন পণ্ডিত। সুধীন দাশগুপ্তের কথা, পুলক বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়ের সুর, মান্না দের কণ্ঠ আর লেজেন্ডের লিপ – এই শহর থেকে আরও অনেক দূরে / চলো কোথাও চলে যাই। গঙ্গায় নৌকায়, দূরে বিবেকানন্দ সেতু। সঙ্গে ‘প্রথম কদমফুল’ ছবির নায়িকা তনুজা।

রবিবারে অলস দুপুরে তখন রাজপথে রাজার মতো অনন্তশয‍্যায় চলেছেন কিং লিয়র। এই শহর ছেড়ে যাওয়ার কথা সৌমিত্র কখনও ভাবেননি বা বলেননি। কৃষ্ণনগর জন্মস্থান আর কৈশোর যৌবন প্রৌঢ়কালের জীবনযুদ্ধের খেলাঘর তাঁর সৃষ্টির শহর এই কলকাতা। এই শহর দেখেছে তাঁর প্রথম সব কিছু। এই শহর দেখেছে ‘জীবনে কী পাবো না’র মতো যৌবনের উদ্দাম টুইস্ট। না বলা বাণী দিয়ে অনেক সময় চিরনবীন বসন্ত বুঝিয়ে দিয়েছেন প্রেমিক হতে হয় কেমন করে।

‘বসন্ত বিলাপ’ ছবিতে অপর্ণার সঙ্গে।

সংস্কৃতি জগতের কিংবদন্তি শেষ স্তম্ভকে বিদায় জানাতে যে জনদেবতার শোকমিছিল পায়ে পায়ে এগিয়েছে সেখানে ততই জীবন্ত হয়ে উঠছিল আমাদের ‘গণদেবতা’। মন বলে ওঠে চাই, তোমায় ফিরে পেতে চাই। তুমি যে চলেছ অনন্তধামের দিকে… ভুল ভেঙে যায়। সুইমিংপুলের ধার ঘেঁষে গলার শিরা ফুলিয়ে ক্ষিদদার ‘ফাইট কোনি ফাইট’ চিৎকার কানে আসছে। চোয়াল তোমার দৃঢ়, তুমি বলছ, ঘুঘু দেখেছ ফাঁদ দেখনি মগনলাল। অশনি সংকেতের হনহনিয়ে হেঁটে চলা পণ্ডিতমশাইয়ের ছাত্র পড়ানোর আওয়াজ কানে আসছে।

১৫ নভেম্বর দুপুর ১২.১৫ মিনিটে কিছু ক্ষণের জন্য সব থেমে গেলেও এই কয়দিনের সকালের পুবালি হাওয়া জানান দেয় আসলে তুমি এই শহরের জনস্রোতের মধ্যে মিশে আছ। শহর ছেড়ে তুমি কি চলে যেতে পারো তিন ভুবনের পারে? যেখানে প্রেমের জন্য দুরন্ত বন‍্য হওয়ার অমন নিবেদন করার কেউ থাকবে না? আশুতোষ মুখোপাধ‍্যায় পরিচালিত তনুজা অভিনীত বখাটে ছেলেটি আজ ৮৬র ঘরে। তোমার অসংখ্য নন্দিনীরা ঘর থেকে রাজপথে। হেমন্তের ছায়ানামা ছাদ থেকে বারান্দায়। তোমার নায়িকারা টিভির সামনে খুঁজে বেড়াচ্ছেন ‘দূরে দূরে কাছে কাছে এখানে ওখানে’ কত দূরের সেই মানুষটিকে।

ভিড়ে, ফুলে মানবসমুদ্রের মধ্যে দিয়ে তোমার শকট চলেছে হাসপাতালের দুয়ার থেকে অমৃতলোকের সিংহদুয়ারের দিকে। সে যাক। সেটা তোমার শুধুমাত্র শরীরটা। ‘মন্ত্রমুগ্ধ’র মতো মানুষ তোমার কত স্মৃতি মনে করে চলেছে। তোমার ধুতির কোঁচা মাটিতে লুটিয়ে পড়ছে। বগলে চোলাইয়ের বোতল নিয়ে তুমি গাইছ ‘একটু চোলাই খাব আর ধোলাই খাব না?’ তোমার নায়িকা সাবিত্রীকে প্রশ্ন ছুড়ে দিচ্ছ ‘মাতাল হব আর পাতালে যাব না?’ কী একস্প্রেশন দিয়েছ তুমি!

চারুলতা’ ছবিতে মাধবীর সঙ্গে।

এখন আর দুঃখ নয়। তোমার রেখে যাওয়া সম্পদ দিয়ে তোমার জন্মদিনের মালা গাঁথা শুরু। সোনালি রোদকে সঙ্গী করে সাইকেলের চাকা এগিয়ে চলেছে এক নতুন পৃথিবীর দিকে। ‘ও আকাশ সোনা সোনা, এ মাটি সবুজ সবুজ’ নায়ক সৌমিত্রের আটপৌরে পোশাকে নতুন রঙ ধরিয়ে দিল সোনার পৃথিবীতে। মাধবী-সৌমিত্রের দুরন্ত অভিনয় উপহার দিল ‘অজানা শপথ’। নায়িকা তন্দ্রা বর্মনের সঙ্গে সৌমিত্র ‘অতল জলের আহ্বান’-এ গাইলেন ‘একি চঞ্চলতা জাগে আমার মনে’। ‘কে যেন গো ডেকেছে আমায়’- আরও এক নায়িকা সন্ধ্যা রায়কে শেখাচ্ছেন গান। ‘মরমিয়া কেন গো…ফাগুন আগুন লাগে মন কোনও কাজে লাগে না, কি করিতে কী যে হয়ে যায়’।

আজ মন বড়ো চঞ্চল। কেন না তুমি নাকি নেই। এই তো মানবমন। যেখানের পৃথিবীর সীমারেখা শুধুই খিড়কি থেকে সিংহদুয়ার পর্যন্ত। সেই-ই তো নায়ক, সেই ‘অগ্রদানী’র ঠাকুরমশাই হয়ে আনন্দে গান ধরেছ নদী পার করে বটের ঝুরি ধরে – ‘শোনো গাঁয়ের মাঠঘাট/ শোনো বৃক্ষলতা / গ্রামবাসী প্রতিজনে / শোনো সুখের কথা / আমার বংশে দিতে বাতি / আমার ঘরে আসছে এবার আমার বাপের নাতি / এত দিনে ঘুচল বুঝি পাপ / আমার বৌ হবে মা আমি হব বাপ।’ কী অভিব‍্যক্তি! যখন তুমি বাবা হওয়ার খবর শুনলে।

‘সাত পাকে বাঁধা’ ছবিতে সুচিত্রার সঙ্গে।

তুমি ‘সুদূর নীহারিকা’ হয়ে থেকে যেও না। সুমিত্রা মুখোপাধ‍্যায় নাচছে ‘আজ এই রাত জলসার রাত’ গানের সঙ্গে। ওই একই চলচ্চিত্রে সোমা দের সঙ্গে গাইলে ‘জীবন মরণের সাথী’। মানবেন্দ্রের কণ্ঠে ঠোঁট মেলালে ‘কার মঞ্জীর ঝঙ্কার’ গানে। আবার ‘শেষ পৃষ্ঠায় দেখুন’-এ নায়ক যদি গায় ‘এ কী এমন কথা তাকে বলা গেল না’ পাশাপাশি নায়িকা অপর্ণা গেয়ে ওঠেন ‘নেই সত‍্যি বলে কিছু নেই’।  তা হলে তো বলতেই হয় তুমি কোথাও যেতে পার না। তুমি উদয়ন পণ্ডিত হয়ে থেকে গেছ পাঠশালার শিশুদের মধ‍্যে।

‘বেনারসী’ ছবিতে বেলডাঙার বেনারসী বাইজিকে (রুমা গুহঠাকুরতা) পানের দোকানে চিনে ফেলে রতন (সৌমিত্র)। কিশোরী সোনা গঙ্গাস্নানে হারিয়ে গিয়ে পরবর্তীতে বেনারসী বাইজি হয়। টান টান আভিজাত‍্যের মোড়কে গল্প এগিয়ে গিয়েছে। আবার মিনু কাফে চায়ের দোকানের মালিক সঞ্জুদা হয়ে তুমি ‘নতুন দিনের আলো’য় বন্ধুদের মাঝে গান ধরলে ‘চলেছে, চলছে চলবেই / যা কৈলাশে জমে আছে বরফের স্তূপ হয়ে / সে তো বন‍্যার স্রোত হতে গলবেই’।

নানা রঙের চরিত্রের পাশে কতই না নায়িকা অভিনয় করেছেন। শর্মিলা ঠাকুর, তনুজা, অরুন্ধতী দেবী, মাধবী মুখোপাধ‍্যায়, সুচিত্রা সেন, সুপ্রিয়া চৌধুরী, সাবিত্রী চট্টোপাধ‍্যায়, তন্দ্রা বর্মন, অপর্ণা সেন, আরতি ভট্টাচার্য, সুমিত্রা মুখোপাধ‍্যায়, সন্ধ্যা রায়, লিলি চক্রবর্তী, সুমিতা সান‍্যাল, অঞ্জনা ভৌমিক, মৌসুমী চট্টোপাধ‍্যায়, রুমা গুহঠাকুরতা, মমতাশঙ্কর, নন্দিনী মালিয়া-সহ বহু নায়িকা। প্রবীণদের পাশাপাশি অনেক নবীন অভিনেতার সঙ্গে অভিনয় করে ছবিকে এক নতুন মাত্রা দিয়েছ।

‘ঘরে বাইরে’ ছবিতে স্বাতীলেখার সঙ্গে।

এমন মজাদার গানের আগে পরে আমরা পাই ‘ঘরে বাইরে’র সন্দীপকে, ‘বিধির বাঁধন কাটবে তুমি এমন শক্তিমান’ গানটিতে। ‘বর্ণালী’ ছবিতে নৌকায় শর্মিলার কণ্ঠে ‘যখন ভাঙল মিলন মেলা ভাঙল’ গানটি শুনে মনে হল গীতবিতান তোমার কাছে আত্মার শান্তি আর আবোলতাবোল তোমার প্রাণের স্পন্দন।

এ বার সব বাধা দূরে সরিয়ে একবার বলে ওঠ তো ‘মুশকিল আসান, আমি এসে গেছি’।

খবরঅনলাইনে আরও পড়ুন

সৌমিত্র, কবে যে চলে এলে গৃহস্থের রান্নাঘর থেকে বৈঠকখানা হয়ে শীতের ছাদে আলোচনায়

Continue Reading
Advertisement
দেশ27 mins ago

‘লভ জিহাদ’ রুখতে অধ্যাদেশ অনুমোদন করল উত্তরপ্রদেশ

দঃ ২৪ পরগনা56 mins ago

কৈলাস বিজয়বর্গীয়র ‘হরি বোল’, এক গুচ্ছ প্রতিশ্রুতি

virat kohli
ক্রিকেট2 hours ago

দশকের সেরা ক্রিকেটার হওয়ার দৌড়ে বিরাট কোহলি ও আরও এক ভারতীয়

ফুটবল2 hours ago

পিকে-চুণী স্মরণে ডার্বি শুরুর আগে নীরবতা পালন হোক, আইএসএল কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানাল ইস্টবেঙ্গল

প্রযুক্তি2 hours ago

আরও ৪৩টি চিনা অ্যাপ নিষিদ্ধ করল ভারত

পূর্ব মেদিনীপুর2 hours ago

খেজুরি থেকে ‘এক সঙ্গে ভালো থাকা’র বার্তা দিলেন শুভেন্দু অধিকারী

দেশ2 hours ago

১৪৫ কিলোমিটার বেগে আছড়ে পড়তে পারে ‘নীবর’, তামিলনাড়ু-পুদুচেরিতে বুধবার সরকারি ছুটি

শিল্প-বাণিজ্য3 hours ago

৫০০তম ‘ওয়ার্ল্ড অব টাইটান’ স্টোর খুলল কলকাতায়

কেনাকাটা

কেনাকাটা3 days ago

লিভিংরুমকে নতুন করে দেবে এই দ্রব্যগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক: ঘরের একঘেয়েমি কাটাতে ও সৌন্দর্য বাড়াতে ডিজাইনার আলোর জুড়ি মেলা ভার। অ্যামাজন থেকে তেমনই কয়েকটি হাল ফ্যাশনের...

কেনাকাটা6 days ago

কয়েকটি প্রয়োজনীয় জিনিস, দাম একদম নাগালের মধ্যে

খবর অনলাইন ডেস্ক: কাজের সময় হাতের কাছে এই জিনিসগুলি থাকলে অনেক খাটুনি কমে যায়। কাজও অনেক কম সময়ের মধ্যে করে...

কেনাকাটা3 weeks ago

দীপাবলি-ভাইফোঁটাতে উপহার কী দেবেন? দেখতে পারেন এই নতুন আইটেমগুলি

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই কালীপুজো, ভাইফোঁটা। প্রিয় জন বা ভাইবোনকে উপহার দিতে হবে। কিন্তু কী দেবেন তা ভেবে পাচ্ছেন...

কেনাকাটা4 weeks ago

দীপাবলিতে ঘর সাজাতে লাইট কিনবেন? রইল ১০টি নতুন কালেকশন

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আসছে আলোর উৎসব। কালীপুজো। প্রত্যেকেই নিজের বাড়িকে সুন্দর করে সাজায় নানান রকমের আলো দিয়ে। চাহিদার কথা মাথায় রেখে...

কেনাকাটা2 months ago

মেয়েদের কুর্তার নতুন কালেকশন, দাম ২৯৯ থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজো উপলক্ষ্যে নতুন নতুন কুর্তির কালেকশন রয়েছে অ্যামাজনে। দাম মোটামুটি নাগালের মধ্যে। তেমনই কয়েকটি রইল এখানে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র আরও ১০টি শাড়ি, পুজো কালেকশন

খবর অনলাইন ডেস্ক : সামনেই পুজো আর পুজোর জন্য নতুন নতুন শাড়ির সম্ভার নিয়ে হাজর রয়েছে এরশা। এরসার শাড়ি পাওয়া...

কেনাকাটা2 months ago

‘এরশা’-র পুজো কালেকশনের ১০টি সেরা শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো কালেকশনে হ্যান্ডলুম শাড়ির সম্ভার রয়েছে ‘এরশা’-র। রইল তাদের বেশ কয়েকটি শাড়ির কালেকশন অ্যামাজন থেকে। প্রতিবেদন...

কেনাকাটা2 months ago

পুজো কালেকশনের ৮টি ব্যাগ, দাম ২১৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : এই বছরের পুজো মানে শুধুই পুজো নয়। এ হল নিউ নর্মাল পুজো। অর্থাৎ খালি আনন্দ করলে...

কেনাকাটা2 months ago

পছন্দসই নতুন ধরনের গয়নার কালেকশন, দাম ১৪৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজোর সময় পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরতে কার না মন চায়। তার জন্য নতুন গয়না কেনার...

কেনাকাটা2 months ago

নতুন কালেকশনের ১০টি জুতো, ১৯৯ টাকা থেকে শুরু

খবর অনলাইন ডেস্ক : পুজো এসে গিয়েছে। কেনাকাটি করে ফেলার এটিই সঠিক সময়। সে জামা হোক বা জুতো। তাই দেরি...

নজরে