sunny leone

ওয়েবডেস্ক: ক্রমশ চর্চা বাড়ছে সানি লিওনকে নিয়ে। বলিউডে তাঁর কেরিয়ার গ্রাফ ঢিমে তালেই বাড়ছে। কিন্তু ছবির বাইরে খবর হচ্ছেন দ্রুতহারে। তবে বলিউডে তথাকথিত জাতে ওঠার একটা বিষয় রয়েছে। বি-গ্রেড থেকে মেইনস্ট্রিমের ছবিতে সে ভাবে ঠাঁই মিলছিল না সানির। যেটুকু এসেছে তাতে যে তিনি মোটেই তৃপ্ত নন, সে কথাও গোপন করেননি। এ বার তাঁর ভাগ্যে শিকে ছিঁড়তে চলেছে। করণ রাজদানের নতুন ছবি, যা বলিউডের বহুচর্চিত নায়িকা মীনাকুমারীর জীবনী নিয়ে তৈরি হতে চলেছে, সেখানেই জায়গা করে নিতে চলেছেন সানি। এ বার হয়তো ওই স্বনামধন্য অভিনেত্রীর সেই কালজয়ী গান ‘রুক যা রাত ঠেহর যা রে চন্দা…’(দিল এক মন্দির) শোনা যাবে সানির নধর ওষ্ঠে।

মীনাকুমারীর এই বায়োপিকে প্রথমেই নাম ভূমিকায় অভিনয়ের জন্য করণ প্রস্তাব দিয়েছিলেন বিদ্যা বালানকে। কিন্তু বেশ কয়েক দিন ভাবার সময় চেয়েও বিদ্যা করণকে ‘হ্যাঁ’ বলতে পারেননি। তাঁর মনে হয়েছে, এমন ছবিতে অভিনয় করা তাঁর পক্ষে খুব একটা সহজ কাজ নয়।

সানিকে দিয়ে এমন একটা চরিত্র করানো যে মোটের উপর সুখের নয়, সে কথা ভালো ভাবেই জানেন করণ। তবুও তিনি এই প্রজেক্টকে চ্যালেঞ্জ হিসাবে নিতে চান। এক দিকে তো বিদ্যা মুখ ফিরিয়েছেন, অন্য দিকে মাধুরী দীক্ষিত নেনেকে প্রস্তাব দিয়েও কাজ হয়নি। করণের মনে হয়েছিল, মাধুরী এই চরিত্রে যেমন মানানসই হবেন তেমনই দর্শকের কাছে তাঁর গ্রহণযোগ্যতার পাল্লাও যথেষ্ট ভারী হবে।কিন্তু পুরো স্ক্রিপ্ট শোনার পর মাধুরীও তাঁকে খালি হাতে ফিরিয়ে দেন। অগত্যা তিনি সটান চলে যান সানির বাড়িতে। সেখানকার উপলব্ধিটা পুরোপুরি ভিন্ন। সব কিছু শোনার পর সানি লাফিয়ে ওঠেন। করণ নিজেই জানিয়েছেন, ‘এই ছবির জন্য সানি মোটেই আদর্শ নন। কিন্তু প্রস্তাব পাওয়ার পর ওঁর অভিব্যক্তি আমাকে মুগ্ধ করেছে। ফলে আমিও চ্যালেঞ্জ নিতে রাজি হয়ে গেলাম।’

সানির সাম্প্রতিক ছবি ‘তেরা ইনতেজার’ বক্স অফিসে দানাপানি পায়নি। তা হলে সাদা-কালো জমানার আর এক অভিনেত্রীকে ধরে তিনি কি নিজের কেরিয়ারকে রঙিন করে তুলতে পারবেন?

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here