Connect with us

বিনোদন

তারক মেহতা কা উল্টা চশমা, ৩০ দিনের সময়সীমা, দিশা বকানিকে আইনি চিঠি প্রযোজকের

ওয়েবডেস্ক: এমনটা নয় যে ধারাবাহিক নির্মাতারা তাঁর কোনো শর্তেই রাজি ছিলেন না! আদতে দয়া বেনের চরিত্রটাকে যে পর্যায়ে জনপ্রিয় করে তুলেছেন দিশা বকানি, তাতে করে জানা কথাই- তিনি চলে গেলে এক ধাক্কায় অনেকটাই পড়ে যাবে টিআরপি! ফলে, দিশা যখন প্রতি পর্বের শুটিংয়ের জন্য ১.২৫ লক্ষ টাকার পারিশ্রমিককে ঠেলে দিলেন ১.৫০ লক্ষের ঘরে, তখনও নারাজ হননি […]

Published

on

disha vakani

ওয়েবডেস্ক: এমনটা নয় যে ধারাবাহিক নির্মাতারা তাঁর কোনো শর্তেই রাজি ছিলেন না! আদতে দয়া বেনের চরিত্রটাকে যে পর্যায়ে জনপ্রিয় করে তুলেছেন দিশা বকানি, তাতে করে জানা কথাই- তিনি চলে গেলে এক ধাক্কায় অনেকটাই পড়ে যাবে টিআরপি! ফলে, দিশা যখন প্রতি পর্বের শুটিংয়ের জন্য ১.২৫ লক্ষ টাকার পারিশ্রমিককে ঠেলে দিলেন ১.৫০ লক্ষের ঘরে, তখনও নারাজ হননি নির্মাতারা!

 

View this post on Instagram

 

Inka time aayega raat 8:30 baje. #TMKOC #TaarakMethaKaOoltaChashma

A post shared by TMKOC_Neela Tele Films (@tmkoc_ntf) on

আরও পড়ুন: প্রযোজককে দয়া করলেন না বেন, তারক মেহতার ধারাবাহিকে আর কাজ করবেন না দিশা!

শুধু তাই নয়, খবর মিলেছিল- মেয়ের জন্যেই শুটিং থেকে তাড়াতাড়ি বাড়ি ফিরছিলেন দিশা, শর্ত ছিল- ঠিক সন্ধে ৬টায় তাঁকে ছেড়ে দিতে হবে! কিন্তু পরিস্থিতির দাবিতে সেটুকু সময়ও আপাতত তিনি দিতে পারছেন না বলেই জানা গিয়েছে! ফলে, দিশার জন্য অপেক্ষা করে করে বিরক্ত প্রযোজক এ বার তাঁকে ধরালেন আইনি চিঠি। সেই চিঠির বয়ান বলছে- যদি দিশা ৩০ দিনের মধ্যে কাজে যোগ না দেন, তা হলে তাঁকে সরিয়ে অন্য অভিনেত্রীকে এই চরিত্রে জায়গা করে দেওয়া হবে!

 

View this post on Instagram

 

#🙈💕

A post shared by Disha Vakani (@disha.vakani) on

খবর বলছে, ধারাবাহিক নির্মাতারা অনেকগুলো দিন দিশাকে ছাড়াই শো টেনেছেন! এবং দেখেছেন, ধারাবাহিকের টিআরপি এতটুকুও কমেনি! তার জেরেই এ বার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। দেখা যাক, দিশার কাছ থেকে এ বার কী জবাব আসে!

বিনোদন

ফের ১৪ দিনের জেল হেফাজতে রিয়া চক্রবর্তী, জামিনের শুনানি বুধবার

আগামী বুধবার বম্বে হাইকোর্টে রিয়ার জামিন আবেদনের শুনানি হবে।

Published

on

rhea's t shirt carrying the famous quote

মুম্বই: আগামী ৬ অক্টোবর পর্যন্ত অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে (Rhea Chakraborty) জেল হেফাজতে পাঠাল মুম্বইয়ের একটি আদালত।

রিয়ার বিচার বিভাগীয় হেফাজতের মেয়াদ শেষ হওয়ায় মঙ্গলবার এই নির্দেশ দেয় আদালত। গত ৯ সেপ্টেম্বর তাঁকে গ্রেফতার করে নার্কোটিস কন্ট্রোল ব্যুরো (NCB)। এ দিন এনসিবি ফের রিয়ার জেল হেফাজতের আর্জি জানায়। সেই ১৪ দিনের জেল হেফাজতের আর্জি মঞ্জুর করে আদালত।

রিয়া এবং তাঁর ভাই শৌভিক বম্বে হাইকোর্টে জামিনের আবেদন করেছেন। জানা গিয়েছে, আগামী বুধবার সেই আবেদনের শুনানি হবে।

গত ১৪ জুন অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুতে মাদক-যোগের অভিযোগ রিয়াকে গ্রেফতার করে এনসিবি। তদন্তকারী সংস্থার অভিযোগ, মৃত অভিনেতাকে মাদক সরবরাহ করতেন রিয়া। একই সঙ্গে তাঁকে “মাদকচক্রের একজন সক্রিয় সদস্য” হিসেবে উল্লেখ করেছে এনসিবি।

অন্য দিকে সূত্রের খবর অনুযায়ী, রিয়া চক্রবর্তীকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় বলিউডের একাধিক সেলেব্রিটির নাম উঠে এসেছে। অভিনেত্রী শ্রদ্ধা কপূর এবং সারা আলি খানকেও তদন্তকারী সংস্থা তলব করতে পারে।

সুশান্তের মৃত্যুর পর বলিউডের মাদক-যোগ নিয়ে উত্তাল হয়েছে সংসদও। শাসক-বিরোধী তরজা দেখা গিয়েছে সংসদের চলতি বাদল অধিবেশনে। বিস্তারিত পড়ুন এখানে: ‘যে থালায় খান সেই থালাতেই ফুটো করছেন’, রাজ্যসভায় কড়া প্রতিক্রিয়া জয়া বচ্চনের

Continue Reading

বিনোদন

অনুমতি না নিয়েই ডেটিং অ্যাপে ছবি, কলকাতা পুলিশের দ্বারস্থ নুসরত জাহান

ওই ভিডিও ডেটিং অ্যাপের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত নুসরত।

Published

on

নুসরত জাহান। ফাইল ছবি

কলকাতা: অভিনেত্রী এবং তৃণমূলের লোকসভার সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan) একটি ভিডিও ডেটিং অ্যাপের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে চলেছেন।

‘ফ্যানসিইউ (FancyU)’ নামে একটি চ্যাট অ্যাপ “সম্মতি ছাড়াই” তাঁর ছবি ব্যবহার করছে বলে টুইটারে অভিযোগ তুলেছেন নুসরত জাহান।

সোমবার টুইটারে তিনি লিখেছেন, কোনো রকমের অনুমতি না নিয়েই তাঁর ছবি ব্যবহার করছে ওই ডেটিং অ্যাপ। “সম্মতি ছাড়াই ছবি ব্যবহার করা কোনো মতেই মেনে নেওয়া যায় না” দাবি করে তিনি লিখেছেন, “আমি এর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নিতে প্রস্তুত”।

একই সঙ্গে জানিয়েছেন, তিনি চান কলকাতা পুলিশের সাইবার সেল বিষয়টির তদন্ত করুক।

গত ১৭ সেপ্টেম্বর মহালয়ার দিন ইনস্টাগ্রামে দেবী দুর্গার বেশে ধরা দেন নুসরত। তাঁর ঘনিষ্ট মহল সূত্রে খবর, ডেটিং অ্যাপে নিজের একটি ছবি দেখে অবাক হয়ে যান তিনি।

Continue Reading

কলকাতা

ট্যাক্সি চালকের হাতে হেনস্থা মামলায় আলিপুর আদালতে গোপন জবানবন্দি সাংসদ- অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তীর

শুক্রবার আলিপুর আদালতে গোপন জবানবন্দি দিলেন মিমি চক্রবর্তী।

Published

on

কলকাতা: প্রকাশ্য দিনের আলোয় গত সোমবার হেনস্থার শিকার হয়েছিলেন সাংসদ এবং অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী (Mimi Chakraborty)। শুক্রবার আলিপুর আদালতে গোপন জবানবন্দি দিলেন তিনি।

সোমবার ভরদুপুরে জনবহুল এলাকায় মিমিকে লক্ষ্য করে কটূক্তি ও শ্লীলতাহানির অভিযোগ ওঠে এক ট্যাক্সি চালকের বিরুদ্ধে। গড়িয়াহাট থানায় অভিযোগ দায়ের হলে তড়িঘড়ি ব্যবস্থা নিয়ে ঘটনায় অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এ দিন জবানবন্দি দেওয়ার পর সাংবাদিকদের সামনে মিমি চক্রবর্তী বলেন, “আজকে আমার আসাটা খুব দরকার ছিল। তা হলে ও হয়তো ছাড়া পেয়ে যেত। এর পর অন্য কারুর সঙ্গে তো আরও খারাপ কিছু করতে পারে”।

একই সঙ্গে মিমি বলেন, “আমার কলকাতা প্রশাসন কিংবা রাজ্যের বদনাম হোক চাই না। আজ দোষী ছাড়া পেয়ে গেলে আমার শহর আর নিরাপদ থাকবে না। ভবিষ্যতে এ রকম আরও অপ্রীতিকর পরিস্থিকির সম্মুখীন হতে পারেন মহিলারা। তাই এই মামলায় পুলিশি তদন্তে সহযোগিতা করতে আজ নিজে এসে জবানবন্দি করে গেলাম”।

কী ঘটেছিল সে দিন?

গত সোমবার বিকেলে জিম থেকে ফেরার পথে মিমি হেনস্থার শিকার হন। বিকেলে বালিগঞ্জ এবং গড়িয়াহাটের মাঝামাঝি এলাকায় ট্র্যাফিক সিগনালে দাঁড়িয়েছিল মিমির গাড়ি। ঘটনায় প্রকাশ, তখন একটি ট্যাক্সি তাঁর গাড়িকে ওভারটেক করে। মিমি যখন কাচ নামিয়ে দেখতে যান, তখনই তিনি লক্ষ্য করেন, পাশে দাঁড়ানো ট্যাক্সির চালক তাঁর উদ্দেশে অশ্লীল অঙ্গভঙ্গি করছে।

বিস্তারিত পড়ুন এখানে: মিমি চক্রবর্তীকে অশ্লীল ইঙ্গিতের অভিযোগে গ্রেফতার ট্যাক্সিচালক

Continue Reading
Advertisement
Umar Khalid
দেশ5 hours ago

উমর খালিদের মুক্তির দাবিতে সরব অমিতাভ ঘোষ, মীরা নায়ার-সহ দুশোর বেশি বিদ্বজ্জন

KL Rahul
ক্রিকেট7 hours ago

রাহুল-ঝড়ে তছনছ বেঙ্গালুরু

KL Rahul
ক্রিকেট9 hours ago

রেকর্ড বইয়ে নাম লিখিয়ে দুর্ধর্ষ ইনিংস কেএল রাহুলের

কেনাকাটা9 hours ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

Poorva Express
রাজ্য9 hours ago

রবিবার থেকে হাওড়া-দিল্লি স্পেশাল ট্রেনের সংখ্যা বাড়াচ্ছে রেল

coronavirus west bengal
রাজ্য10 hours ago

রাজ্যের সামগ্রিক করোনা-পরিস্থিতি অপরিবর্তিত, বাড়ল সুস্থতার হার

রাজ্য10 hours ago

সিভিক ভলান্টিয়ার ও আশাকর্মীদের বেতন বাড়াল রাজ্য, সঙ্গে হকারদের জন্য অনুদান

Yeddyurappa and siddaramaiah
দেশ11 hours ago

কর্নাটকে বিজেপি সরকারের স্থায়িত্ব ঘিরে নয়া জল্পনা! অনাস্থা প্রস্তাব আনল কংগ্রেস

কেনাকাটা

কেনাকাটা9 hours ago

পুজো কালেকশনে ৬০০ থেকে ১০০০ টাকার মধ্যে চোখ ধাঁধানো ১০টি শাড়ি

খবর অনলাইন ডেস্ক: পুজোর কালেকশনের নতুন ধরনের কিছু শাড়ি যদি নাগালের মধ্যে পাওয়া যায় তা হলে মন্দ হয় না। তাও...

কেনাকাটা2 days ago

মহিলাদের পোশাকের পুজোর ১০টি কালেকশন, দাম ৮০০ টাকার মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : পুজো তো এসে গেল। অন্যান্য বছরের মতো না হলেও পুজো তো পুজোই। তাই কিছু হলেও তো নতুন...

কেনাকাটা6 days ago

সংসারের খুঁটিনাটি সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে এই জিনিসগুলির তুলনা নেই

খবরঅনলাইন ডেস্ক : নিজের ও ঘরের প্রয়োজনে এমন অনেক কিছুই থাকে যেগুলি না থাকলে প্রতি দিনের জীবনে বেশ কিছু সমস্যার...

কেনাকাটা1 week ago

ঘরের জায়গা বাঁচাতে চান? এই জিনিসগুলি খুবই কাজে লাগবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ঘরের মধ্যে অল্প জায়গায় সব জিনিস অগোছালো হয়ে থাকে। এই নিয়ে বারে বারেই নিজেদের মধ্যে ঝগড়া লেগে...

কেনাকাটা2 weeks ago

রান্নাঘরের জনপ্রিয় কয়েকটি জরুরি সামগ্রী, আপনার কাছেও আছে তো?

খবরঅনলাইন ডেস্ক: রান্নাঘরের এমন কিছু সামগ্রী আছে যেগুলি থাকলে কাজ করাও যেমন সহজ হয়ে যায়, তেমন সময়ও অনেক কম খরচ...

কেনাকাটা2 weeks ago

ওজন কমাতে ও রোগ প্রতিরোধশক্তি বাড়াতে গ্রিন টি

খবরঅনলাইন ডেস্ক : ওজন কমাতে, ত্বকের জেল্লা বাড়াতে ও করোনা আবহে যেটি সব থেকে বেশি দরকার সেই রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা...

কেনাকাটা3 weeks ago

ইউটিউব চ্যানেল করবেন? এই ৮টি সামগ্রী খুবই কাজের

বহু মানুষকে স্বাবলম্বী করতে ইউটিউব খুব বড়ো একটি প্ল্যাটফর্ম।

কেনাকাটা4 weeks ago

ঘর সাজানোর ও ব্যবহারের জন্য সেরামিকের ১৯টি দারুণ আইটেম, দাম সাধ্যের মধ্যে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ঘর সাজাতে কার না ভালো লাগে। কিন্তু তার জন্য বাড়ির বাইরে বেরিয়ে এ দোকান সে দোকান ঘুরে উপযুক্ত...

কেনাকাটা1 month ago

শোওয়ার ঘরকে আরও আরামদায়ক করবে এই ৮টি সামগ্রী

খবর অনলাইন ডেস্ক : সারা দিনের কাজের পরে ঘুমের জায়গাটা পরিপাটি হলে সকল ক্লান্তি দূর হয়ে যায়। সুন্দর মনোরম পরিবেশে...

kitchen kitchen
কেনাকাটা1 month ago

রান্নাঘরের এই ৮টি জিনিস কাজ অনেক সহজ করে দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: আজকাল রান্নাঘরের প্রত্যেকটি কাজ সহজ করার জন্য অনেক উন্নত ব্যবস্থা এসে গিয়েছে। তা হলে ঘণ্টার পর ঘণ্টা কষ্ট...

নজরে