ওয়েবডেস্ক: কী বলবেন বলুন তো? এ মেয়েকে কোথায় রাখি? না কি ঘটনাটাই জানতে চাইবেন রাখি সাওয়ান্তের জবানবন্দিতে? হয়েছে কী, নানা পটেকরের পক্ষ নিয়ে তনুশ্রী দত্তের বিরুদ্ধে ড্রাগের নেশা করার অভিযোগ তোলার পরেই নায়িকা ১০ কোটি টাকার সম্মানহানির মামলা ঠুকেছিলেন রাখির বিরুদ্ধে। তার পরে বিস্তর তর্জন এবং গর্জন করেন রাখি, জানান- তিনিও তনুশ্রীর নামে ৫০ কোটি টাকার মানহানির মামলা করবেন! পাশাপাশি আরও যে সব দাবি তুলেছিলেন, তা পড়ে নিতে পারেন নীচের লিঙ্কে ক্লিক করে!

আরও পড়ুন: ‘অত্যাচারিত’ পুরুষদের পাশে রয়েছেন, #MeToo প্রেক্ষিতে ভিডিওয় সত্যিটা জানাচ্ছেন রাখি!

কার্যত দেখা গেল, সাংবাদিক বৈঠক ডেকে, একগলা ঘোমটা টেনে, নিজের অসহায়তার বিবৃতি দিচ্ছেন রাখি। নেমেছেন পাল্টা মানহানির খেলায়। এবং এখানেও টেনে এনেছেন তাঁর আগে বলা ড্রাগ ব্যবহারের কথা। “এক সময়ে আমি আর তনুশ্রী খুবই ভালো বন্ধু ছিলাম, বছর ১২ টিকেছিল আমাদের বন্ধুত্ব। সে সময়ে ও প্রায় রোজ রাতে রেভ পার্টিতে যেত, ড্রাগ খেয়ে নেশা করত, আমাকেও জোর করে খাওয়াত! তার পর আমার ব্যক্তিগত অঙ্গে হাত দিত। এখানেই থেমে থাকেনি, লেসবিয়ান তনুশ্রী আমায় ড্রাগ খাইয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে”, দাবি রাখির!

পাশাপাশি জানিয়েছেন রাখি, বলিউডে তনুশ্রী একা নন, আরও অনেক নায়িকাই লেসবিয়ান! এঁদের মধ্য়ে তনুশ্রীর নামটাই তিনি প্রকাশ্যে আনলেন কেন না তিনি তাঁর বিরুদ্ধে যে মামলা ঠুকেছেন! কী ভাবছেন, রাখির কথা আদৌ বিশ্বাসযোগ্য কি না? “তনুশ্রীর কথা বিশ্বাস করলে আমারটাই বা করবেন না কেন?” আপনার দিকে পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিচ্ছেন রাখি!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here