মুক্তি পেল সন্দীপ রায় পরিচালিত ‘ডবল ফেলুদা’ ছবির ট্রেলার। সত্যজিত রায়ের লেখা বিখ্যাত দুটি গল্প ‘সমাদ্দারের চাবি’ ও ‘গোলকধাম রহস্য’ নিয়ে ছবি ‘ডবল ফেলুদা’।

৫০ বছর হয়ে গেছে গোয়েন্দা প্রদোষচন্দ্র মিত্রের। তারই শ্রদ্ধার্ঘ্য ‘ডবল ফেলুদা’। ট্রেলার মুক্তি অনুষ্ঠানে হাজির ছিলেন সন্দীপ রায়, সব্যসাচী চক্রবর্তী, সাহেব চট্টোপাধ্যায়, গৌরব চক্রবর্তী এবং ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়।

শুধু সন্দীপ রায় নয়, এই ছবির মধ্য দিয়ে সত্যজিত রায়কে শ্রদ্ধা জানাচ্ছেন, ফেলুদা হয়ে ফিরে আসা সব্যসাচী চক্রবর্তীও।   ছবিটি নিয়ে ‘এক্সাইটমেন্টের’ পাশাপাশি তিনি মাত্রাতিরিক্ত ‘নার্ভাস’ও। সত্যজিত রায় যে নোট প্যাডে প্রথম ফেলুদার গল্প লেখা শুরু করেন, সেই লাল নোট প্যাডটি এই অনুষ্ঠানে সঙ্গে নিয়ে এসেছিলেন সন্দীপ রায়।

double-felu-da

ডবল ফেলুদার প্রথম গল্প ‘সমাদ্দারের চাবি’তে, প্রচুর টাকা রেখে মারা যান সঙ্গীতশিল্পী রাধারমণ সমাদ্দার। সেই টাকার খোঁজে ডাক পড়ে ফেলুদার। মৃত্যুর আগে একটাই কথা বলেছিলেন রাধারমণ। “আমার নামে চাবি…চাবি”। এই একটা সূত্র ধরেই তদন্ত শুরু করে ফেলুদা। গল্পের শেষে এই চাবির রহস্য উদঘাটিত হয়।

প্রথম গল্পের শেষে বিরতি। বিরতির পর পরের গল্প ‘গোলকধাম রহস্য’। এই গল্প এক অন্ধ বৈজ্ঞানিককে নিয়ে। বিদেশে গবেষণা করতে গিয়ে অন্ধ হয়ে যান তিনি। ফলে গবেষণার কাজ শেষ হয় না তাঁর। কিন্তু, আশা ছাড়েননি ওই তিনি। একটা কাজ তাঁর এখনও বাকি। কী সেই কাজ? এরই মধ্যে অন্ধ বিজ্ঞানীর ঘর থেকে চুরি যায় টাকা আর খুন হন বাড়ির এক ভাড়াটেও। রহস্যের পর রহস্য। আর ফেলুদা কীভাবে সেই রহস্যের জট কাটবেন–সেই নিয়েই গল্প ‘গোলকধাম রহস্য’।

double-felu-da-jpg-1

বড়োদিনে মুক্তি পাচ্ছে ডবল ফেলুদা।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here