কলকাতা: টলিউডে জোড়া বিয়ে। ৯ ডিসেম্বর সাত পাকে বাঁধা পড়তে চলেছেন অভিনেত্রী কনীনিকা বন্দ্যোপাধ্যায় ও ব্যবসায়ী পাত্র সুরজিত হোরি। আবার ওই দিনই গাঁটছড়া বাঁধবেন জনপ্রিয় টেলি জুটি রাজা এবং মধুবনী। 

এর আগে অনেকের সঙ্গেই কনীনিকার সম্পর্ক তৈরি হলেও বিয়ে অবধি গড়ায়নি। অবশেষে বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন তিনি। গত বছর রায়চকে সুরজিত হোরির সঙ্গে পরিচয় হয় কনীনিকার। পরিচয়ের দু’দিনের মাথাতেই কনীনিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন সুরজিত। নো প্রেম নো ফ্লার্টিং। রাজি হয়ে যান কনীনিকাও।

সুরজিতের আগের পক্ষের ১১ বছরের ছেলে রয়েছে। নাম দ্রোণ। দ্রোণের সঙ্গে অনেক বেশ বন্ধুত্ব হয়ে গিয়েছে কনীনিকার।

অপর দিকে ‘ভালোবাসা ডট কম’ সিরিয়ালের সেটেই প্রথম দেখা রাজা এবং মধুবনীর। এর পর বন্ধুত্ব। তারপর হঠাতই এক শীতের রাতে হাইওয়ের ধারে এক ধাবায় তড়কা-রুটি খেতে খেতেই প্রপোজ করেন মধুবনী। সেদিনের ঘটনায় খানিক হকচকিয়ে গেলেও মধুবনীই ছিল রাজার সেরা ভ্যালেন্টাইন। বেশ কয়েক বছর চুটিয়ে প্রেম করার পর এবার চার হাত এক করতে চলেছেন তাঁরা।

কনীনিকার বিয়ের বাকি আর মাত্র চারদিন। ধর্মীয় রীতি মেনেই বিয়ের তোড়জোড় শুরু হয়ে গিয়েছে বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারে। সূত্রের খবর, বিয়ের জন্য লাল বেনারসি পছন্দ করেছেন কনীনিকা। সুরজিতের জন্য পোষাক ডিজাইন করেছেন স্নেহাশিস ভট্টাচার্য। আর রিসেপশনে বর-কনে দুজনেই পড়বেন জ্যোতি খৈতানের পোশাক।

একই পথে হাঁটছেন রাজা-মধুবনীও। ৮ ডিসেম্বর মেহেন্দি এবং আইবুড়ো ভাত। তারপর বিয়ে ও রিসেপশন। বিয়ের পর সিরিয়ালে ফিরে যাওয়ার ইচ্ছে থাকলে আপাতত বিয়ে নিয়েই ব্যস্ত মধুবনী। সবমিলিয়ে জীবনের এই নতুন অধ্যায়কে বেশ এনজয় করছেন সেলেব কাপল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here