প্রয়াত অভিনেত্রী স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত

    আরও পড়ুন

    খবর অনলাইন ডেস্ক: হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হলেন বর্ষীয়ান অভিনেত্রী স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত। বুধবার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়।

    মঞ্চ এবং চলচ্চিত্রের দাপুটে অভিনেত্রী চলতি বছরের ২২ মে ৭১-এ পা দিয়েছিলেন। তবে সিনেমার থেকেও তিনি বেশি করে যুক্ত ছিলেন বাংলা থিয়েটার জগতের সঙ্গে।

    Loading videos...

    জানা গিয়েছে, কিডনির সমস্যা নিয়ে ওই বেসরকারি হাসপাতালে ভরতি ছিলেন তিনি। দীর্ঘ দিন ধরেই কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন। ডায়ালিসিস চলছিল। আইসিইউতে ভরতি ছিলেন তিনি। এ দিন দুপুরে সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

    - Advertisement -

    থিয়েটার এবং সিনেমা, দুই মাধ্যমেই তাঁর অভিনয় অবিস্মরণীয়। সত্যজিৎ রায়ের পরিচালনায় ‘ঘরে বাইরে’-তে ‘বিমলা’র চরিত্রে অভিনয় করেন তিনি। ১৯৮৪ সালে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় এবং ভিক্টর বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ওই ছবিতে তাঁর অভিনয় ভুলবার নয়। তবে মাঝে মঞ্চেই নিজেকে আটকে রাখেন অভিনেত্রী। শেষ বার তাঁকে বড়োপরদায় দেখা যায় ‘বেলা শেষে’ ছবিতে। দীর্ঘ ৩১ বছর পরে সৌমিত্রর সঙ্গেই চলচ্চিত্রে ফেরেন তিনি। সেই ছবির রেশ ধরেই তৈরি হয় ‘বেলাশুরু’। গত বছরের মে মাসে ওই ছবি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। তবে তা স্থগিত হয়ে যায়। ২০১৯ সালে সুদীপ চক্রবর্তী পরিচালিত ‘বরফ’ ছবিতে অভিনয় করেছিলেন স্বাতীলেখা। আবার রাজ চক্রবর্তীর ‘ধর্মযুদ্ধ’ ছবিতেও অভিনয় করেন। সেই ছবিও এখনও মুক্তি পায়নি।

    অন্যদিকে, নাট্যমঞ্চে ‘পাঞ্চজন্য’, ‘বিপন্নতা’, ‘নাচনি’, ‘মাধবী’, ‘পাতা ঝরে যায়’-এর মতো নাটকের মাধ্যমে দর্শকদের মুগ্ধ করেছেন। অভিনয়ের পাশাপাশি পিয়ানো এবং বেহালা বাজানোয় পারদর্শী ছিলেন স্বাতীলেখা। নাট্যমঞ্চে সঙ্গীতউপস্থাপনার গুরুদায়িত্বও পালন করেছেন অনেক বার।

    উল্লেখ্য, ১৯৭৮ সালে ‘নান্দীকার’ নাট্যগোষ্ঠীর সঙ্গে যুক্ত হন স্বাতীলেখা। সেখানেই রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্তর সঙ্গে তাঁর পরিচয়। নাটকের মঞ্চই তাঁদের দু’জনকে কাছাকাছি নিয়ে এসেছিল। বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন তাঁরা।

    আরও পড়তে পারেন: জন্মদিনেই পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি অভিনেতা মিঠুন চক্রবর্তী

    LEAVE A REPLY

    Please enter your comment!
    Please enter your name here

    This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

    - Advertisement -

    আপডেট খবর