সলমন এবং ঐশ্বর্যকে নিয়ে ছবি ডিলিট, ক্ষমা চেয়ে নিলেন বিবেক ওবেরয়

সলমনের সঙ্গে ঐশ্বর্যর সম্পর্ক জানেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। এই সম্পর্ক ভেঙ্গে যাওয়ার পর বিবেক ওবেরয়ের সঙ্গেও সম্পর্ক ছিল প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরীর।

0
vivek1

ওয়েবডেস্ক: বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। বচ্চন পরিবারে পুত্রবধূ তিনি। বিগ-বি পুত্র অভিষেক স্ত্রী। তবে অভিষেকের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়ার আগে সলমন খান এবং বিবেক ওবেরয়ের সঙ্গে তাঁর সম্পর্ক ছিল বলেই বিভিন্ন সংবাদে প্রকাশিত হয়। সলমনের সঙ্গে ঐশ্বর্যর সম্পর্ক জানেন না এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। এই সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর বিবেক ওবেরয়ের সঙ্গেও সম্পর্ক ছিল প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরীর।

বুথ ফেরত সমীক্ষার প্রেক্ষিতে বিবেক ওবেরয় সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ছবি শেয়ার করেন। যার প্রথম ভাগে সলমনের সঙ্গে দেখা যায় ঐশ্বর্যকে। দ্বিতীয় ভাগে খোদ বিবেকের সঙ্গে এবং তৃতীয় ভাগে নিজের স্বামী অভিষেক বচ্চন এবং কন্যা আরাধ্যার সঙ্গে।

vivek600
ছবি সৌজন্যে গুগল

দেশের লোকসভা নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়ে যাওয়ার পর বুথ ফেরত সমীক্ষা হয়েছে। বিবেক ছবির প্রথম ভাগটিকে অর্থাৎ সলমনের সঙ্গে ঐশ্বর্যকে ওপিনিয়ন পোল, দ্বিতীয় ভাগটিকে তাঁর নিজের সঙ্গে ঐশ্বর্যকে একজিট পোল এবং তৃতীয় অভিষেক এবং আরাধ্যার সঙ্গে ভাগটিকে রেজাল্ট বলে পোস্ট করেন। এবং সেখানে লেখেন, “ হাহা! ক্রিয়েটিভ, কোনো রাজনীতি নেই। শুধু জীবন।” সেই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ” আমি কী ভুল করেছি? একজন পোস্ট করেছে আমি হেসেছি”। যা নিয়ে রীতিমতো বিতর্ক শুরু হয়ে যায়। বিবেকের এমন মনোভাব মেনে নিতে না পারেননি অনেকেই।

যাঁদের মধ্যে ছিলেন বলিউড অভিনেত্রী সোনম কাপুর এবং ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় জোয়ালা গুত্তা।

পরে অবশ্য সেই টুইট ডিলিট করে বিবেক জানান, “ মাঝে মধ্যে যা নিয়ে ইয়ার্কি ভাবা হয়, তা সবার কাছে এক রকম নাও হতে পারে। শেষ দশ বছর আমি ২০০০ গরিব মেয়েকে সাহায্য করেছি । আমি কখনোই কোনো মহিলার বিরুদ্ধে অসস্মানের কথা ভাবতে পারি না। মহিলারা যদি সেই টুইটে আমার কমেন্ট নিয়ে খারাপ ভাবেন, আমি ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি। টুইট ডিলিট করে দিয়েছি”।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here