ওয়েবডেস্ক: ১৯৮৬ সালে যেমন খুব একটা ঢাক-ঢোল না পিটিয়ে রিনা দত্তকে বিয়ে করেছিলেন আমির খান, ২০০২ সালে বিবাহবিচ্ছেদের বেলায় তা সম্ভব হয়নি। সন্তান-সহ দীর্ঘ দাম্পত্য কেন ভাঙল আমিরের, তা নিয়ে সেই সময়ে তোলপাড় হয়েছিল মিডিয়া। বিশেষ করে তার পরেই যখন কিরণ রাওকে বিয়ে তরলেন আমির, জল্পনা উঠল তুঙ্গে- তা হলে নিশ্চয়ই কিরণই দায়ী এই বিয়ের ভাঙনের নেপথ্যে। কেন না, ‘লগান’ ছবিটা করার সময়ে তিনি যে ছিলেন সহকারী পরিচালকদের একজন, এ খবর তত দিনে চাউর হয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন: চারিত্রিক সমস্যায় ভোগেন, বিস্ফোরক স্বীকারোক্তি আমির খানের!

🐱

A post shared by Aamir Khan Fan Of Turkey ღ (@iaamirkhanci) on

কিন্তু সম্প্রতি চিনা সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছেন নায়ক। জানিয়েছেন, ‘লগান’ তৈরি হওয়ার সময়ে তাঁর আর কিরণের মধ্যে কোনো সম্পর্কই তৈরি হয়নি! “ওই সময়টায় আমরা পরস্পরকে চিনতাম, তার চেয়ে বেশি কিছু নয়। আমার বিবাহবিচ্ছেদের পরে যখন আমার মানসিক অবস্থা খুব একটা ভালো নয়, কিরণের একটা কাজের ফোন এসেছিল। আমরা প্রায় আধ ঘণ্টা কথা বলি। কথা বলার পরে আমি বেশ নির্ভার বোধ করতে থাকি। বুঝতে পারি, ওর সঙ্গে কথা বললে আমার মন ভালো থাকে”, দাবি নায়কের।

The most emotional scene 😢 @_aamirkhan

A post shared by Aamir Khan 🇮🇳• 🇹🇷 (@aamir_khanfann) on

তা হলে বুঝতে পারছেন তো, কী ভাবে সম্পর্কটা এগোল বিয়ের দিকে? না হলে আমির তো আরও বিশদে বলছেনই সে কথা, ভিডিওয় নিজেই শুনে নিন না!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন