কলকাতা: হম রহে ইয়া না রহে কল…

কলকাতার নজরুল মঞ্চে বাতাসে ভারী হয়ে উঠেছিল এই গানেই। নয়ের দশকের এই জনপ্রিয় গানের সঙ্গে দর্শকরাও শামিল হন। ফ্ল্যাশ লাইট জ্বালিয়ে ছন্দের তালে নাড়াচ্ছিলেন নিজেদের মোবাইল ফোন। গানটা গাইছিলেন কেকে। মৃত্যুর কয়েক ঘণ্টা আগে তাঁর শেষ লাইভ অনুষ্ঠানে।

এর কয়েক ঘণ্টা পরই সংগীত জগতে শোকের ছায়া। প্রয়াত জনপ্রিয় গায়ক কেকে। মঙ্গলবার নজরুল মঞ্চের ওই অনুষ্ঠানে নিজের শেষ কনসার্টের কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই কলকাতার একটি হোটেলে মৃত্যু হয় সংগীত শিল্পীর।

সোশ্যাল প্ল্যটফর্মে শেয়ার করা ভিডিয়োয় “কেয়া মুঝে প্যায়ার হ্যায়”-সহ নিজের একাধিক জনপ্রিয় গান গাইতে শোনা যায় বলিউডের নেপথ্য গায়ককে। তাৎপর্যপূর্ণ ভাবে ১৯৯৯ সালের প্রথম অ্যালবাম “পল” থেকেও উঠে এসেছিল কেকে-র কণ্ঠে।

তাঁর প্রথম অ্যালবাম ‘পল’। অ্যালবাম কম্পোজ, অ্যারেঞ্জ ও প্রযোজনা করেছিলেন কলোনিয়াল কাজিনস-এর লেসলি লুইস। গান লিখেছিলেন মেহবুব। সেখান থেকেই মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গাইলেন, হম রহে ইয়া না রহে কল…কল ইয়াদ আয়েঙ্গে ইয়ে পল…। এ ছাড়াও “তু হি মেরি সব হ্যায়” এবং “তড়প তড়প কে”-র মতো গানেও মাতিয়ে গেলেন শেষ লাইভ শো-তে।

জানা যায়, অনুষ্ঠান চলাকালীনই অসুস্থ বোধ করতে থাকেন। হোটেলে ফিরে যান। সেখান থেকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

আরও পড়তে পারেন:

কেকে-র মৃত্যুতে নিউ মার্কেট থানায় মামলা রুজু, এসএসকেএম হাসপাতালে হবে ময়নাতদন্ত

কলকাতায় অনুষ্ঠানের পর অসুস্থ হয়ে মারা গেলেন বলিউডের নেপথ্য গায়ক কেকে

আগাম সতর্কতা, মাঙ্কিপক্স নিয়ে নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্র

থাপ্পড়ের পর কানমলা, প্রকল্পে বিলম্ব হওয়ায় দাওয়াই মুখ্যমন্ত্রীর

আচমকা অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে ৩ হাজার কোটি টাকা, আতংকে কাঁটা হাবড়ার দিনমজুর যুবক

২-৩ দিনের মধ্যেই বর্ষা ঢুকতে পারে উত্তরবঙ্গে, আর দক্ষিণবঙ্গে?

dailyhunt

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন