ওয়েবডেস্ক: বেশ কয়েক দিন হয়ে গেল, নবাব আর বেগমজান পড়ে আছেন লন্ডনেই! ছুটি কাটাচ্ছেন, যতটা পারছেন উপভোগ করছেন পরস্পরের সান্নিধ্য!

saif kareena taimur

তা, হালফিলে একটু বেশিই ছুটিতে যাচ্ছেন না করিনা কাপুর খান আর সইফ আলি খান?

saif ali khan and kareena kapoor and taimur

এই প্রশ্নটা মুখ থেকে খসতে যা দেরি! তার পরেই সাংবাদিককে কষে এক বকুনি দিয়েছিলেন বেগমজান!

kareena kapoor khan and saif ali khan

“দেখুন, একটা স্পষ্ট কথা বলি! আমার বর তো আর বিজনেসম্যান নয় যে ঘড়ি ধরে কাঁটায় কাঁটায় ৬টা বাজলেই সন্ধেবেলা বাড়ি ফিরে আসবে! এ দিকে আমারও সময়ের ঠিক নেই শুটিংয়ের শিডিউলের জন্য! ফলে খুব একটা সময় যে আমরা একসঙ্গে কাটাতে পারি, তা কিন্তু নয়। সেই জন্যই ছুটিতে যাওয়া! আর আপনি বলছেন ঘন ঘন বেড়াতে যাচ্ছি”, ধমক করিনার!

kareena kapoor khan and saif ali khan

যদি ভাবেন, এটুকুতেই ক্ষান্ত দিয়েছেন বীরে, তা হলে কিন্তু খুবই ভুল ভাবা হবে! “আর আপনি বলছেন বটে ঘন ঘন ছুটিতে যাচ্ছি, কিন্তু জানেন, কত কষ্ট করে এই সময়টা বের করতে হয় আমাদের? শুটিংয়ের শিডিউলের দিকে তাকিয়ে, পরস্পরের সময় মিলিয়ে তবে এ রকম সময় পাওয়া যায়! আজ যা হয়তো মাস কয়েকের ব্যবধানে পাওয়া গেল! কাল কিন্তু এই ব্যবধানটা কয়েক বছরও হয়ে যেতে পারে”, সাফাইয়ের কমতি নেই নায়িকার ভাঁড়ারে!

যাই হোক, ছুটিতে গিয়ে আশা করা যায়, উষ্মা মিটেছে নায়িকার! অন্তত ছবির দিকে তাকালে তো সেটাই মনে হচ্ছে। কেমন সুন্দর লন্ডনের পথে তৈমুর আলি খানকে প্র্যামে ঠেসে দিয়ে ফুরফুরে মেজাজে ঘুরে বেড়াচ্ছেন দম্পতি! তৈমুরও মনের আনন্দে হাত-পা ছুঁড়ছে!

কিন্তু বরের সঙ্গে একা থাকার ব্যাপারটা ভাবাচ্ছে! কেন না, সদ্য যে ছবিটি ভাইরাল হয়েছে সইফিনার বেড়াতে যাওয়ার, সেখানে শুধু তাঁদেরই দেখা যাচ্ছে! লন্ডনের এক কফিশপে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে দম্পতিকে। তাঁদের সামনে রয়েছে কাপুচিনো কফি আর ফ্রুট টার্ট! আর আশ্চর্যজনক ভাবে সঙ্গে তৈমুরের চুলের ডগাটিও দেখা যাচ্ছে না! ছেলেকে কোথায় ফেলে রাখলেন সইফিনা?

kareena kapoor khan and saif ali khan

তা হলে কি ছুটিতেও সঙ্গে করে আয়া নিয়ে যান তাঁরা? তিনিই ওই সময়টায় দেখভাল করছিলেন খুদের? আপনাদের কী মনে হয়?

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন