ওয়েবডেস্ক: এই এক নয়া ট্রেন্ড শুরু হয়েছে টলিপাড়ায়! প্রথমে বিখ্যাত সাহিত্য নিয়ে একটা ছবি বানানো, তার পরে সেটার জের টেনে পরের পর্বটায় একটা কাল্পনিক গল্প ফাঁদা, সেই সাহিত্যের চরিত্রদের নাম ব্যবহার করেই! এই ঐতিহ্যে ‘আমাজন অভিযান’-এর পরে টলিপাড়ার তালিকায় যোগ হয়েছে সায়ন্তন ঘোষালের ‘সাগরদ্বীপে যকের ধন’! ছবি কেমন হবে, সে খোদায় মালুম! কিন্তু শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা যে গায়ে কাঁটা জাগাচ্ছে, অন্তত নায়িকা কোয়েল মল্লিকের, তা অস্বীকার করা যাবে না। বিশেষ করে নায়িকা নিজেই যখন এক কথোপকথনে তুলেছেন সে প্রসঙ্গ!

আরও পড়ুন: ব্যাপারটা কী? পরমকে নিয়ে আবেগ যে চরমে উঠল রাইমার!

কোয়েল জানিয়েছেন, এই প্রথম তিনি গেলেন থাইল্যান্ডের ফি-ফি দ্বীপে। “আমাদের একটা আন্ডারগ্রাউন্ড গুহায় নৌকো করে যেতে হল। কিন্তু গুহার মধ্যে একটু এগিয়ে নামতে হল নৌকো ছেড়ে। তার পরেই শুরু হল রোমাঞ্চকর যাত্রা। অন্ধকারের মধ্যে হাঁটতে হচ্ছে জল ভেঙে ভেঙে। একটা করে পা ফেলছি আর ভয়ে শিউরে উঠছি। অনেক কিছু বিপজ্জনক ভেসে উঠছে মনে। কিন্তু ঘাবড়ালে চলবে না। শুটিং চলছে যে! কিন্তু বিশ্বাস করুন, আমার হৃদস্পন্দন ওই গুহায় বেড়ে গিয়েছিল অনেকটাই”, অকপট স্বীকারোক্তি কোয়েলের।

খবর বলছে, এ বারে যেমন বিমল আর কুমারের নামটাই স্রেফ ব্যবহার করে গল্পকার হিসাবে হেমেন্দ্রকুমার রায়কে বদলে দিয়েছেন পরিচালক, তেমনই বদলে গিয়েছে বিমলের চরিত্রাভিনেতাও। আগে এই চরিত্রে রাহুল বন্দ্যোপাধ্যায় অভিনয় করলেও এ বারে করছেন গৌরব চক্রবর্তী। হ্যাঁ, পরমব্রত চট্টোপাধ্যায় অবশ্য রয়েছেন কুমারের চরিত্রে আগের মতোই। বাকিটা দেখা যাক!

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন