ওয়েবডেস্ক: শত্রুকে ঘায়েল করতে হলে কী করতে হয়? শত্রুর যে শত্রু, তার সঙ্গে হাত মেলানোই এ ক্ষেত্রে বিচক্ষণের পন্থা। দেখা গেল, দেব-ও এ বার এগোলেন সেই সনাতন কূটনীতি মেনেই। অর্থাৎ বন্ধুত্ব নতুন করে ঝালিয়ে নিলেন জিতের সঙ্গে।

dev and jeet

তা, ‘শত্রু’ নামের ছবি যেমন করেছেন জিৎ, তেমনই এ-ও ঠিক যে টলিপাড়ার প্রায় কোনো প্রযোজনা সংস্থার সঙ্গেই তাঁর তেমন বনিবনা নেই। শুধু বনিবনা নেই বললে কম বলা হবে, আদতে তাঁকে শত্রুর চেয়ে কম কিছু ভাবে না টলিপাড়ার অনেক প্রযোজনা সংস্থাই। যার জেরে তাঁরা জিৎকে নিয়ে ছবি যেমন বানান না, তেমনই তাঁদের শিবিরের নায়িকারাও কাজ করার অনুমতি পান না জিতের সঙ্গে।

Shubhashree and jeet

উদাহরণ হিসাবে শুভশ্রী গঙ্গোপাধ্যায়কেই দেখুন! যখন ভেঙ্কটেশ ফিল্মস দেবের সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙার পরে তাঁকে আর কাজ দিল না, তখন একমাত্র জিতের ব্যানারেই পর পর ছবি করেছিলেন তিনি। কিন্তু যে-ই না দেব-শুভশ্রী একসঙ্গে ছবি করা শুরু করলেন, শুভশ্রী রাজ চক্রবর্তীর সঙ্গে অন্তরঙ্গতার সূত্রে ফের জায়গা পেলেন ভেঙ্কটেশে, তখনই জিতের ছবিতে তাঁকে আর দেখা গেল না! না হলে তো জিতের ছবিতে অন্তত একটা গানেও দেখা দিতেন শুভশ্রী!

dev and jeet

যাই হোক, আমরা ফিরে আসি দেব আর জিতের সমীকরণে। সেই রাজ চক্রবর্তীর পরিচালনায় ২০১০ সালে একসঙ্গে ‘দুই’ পৃথিবী ছবিটা করেছিলেন তাঁরা। তার পরে অনেক বার কথা উঠলেও আর একসঙ্গে ছবি করেননি তাঁরা। কানাঘুষোয় শোনা গিয়েছিল, এ ব্যাপারে না কি বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল সে-ই ভেঙ্কটেশ ফিল্মসই! তাঁরা জিৎকে যেমন নিজেদের ছবিতে নেওয়ার প্রয়োজন বোধ করেননি, তেমনই দেবকেও রেখেছিলেন কুক্ষিগত করে।

dev and jeet

কিন্তু এখন দেবের সঙ্গে ভেঙ্কটেশের সম্পর্ক আর খুব একটা ভালো জায়গায় নেই। দেব নিজের প্রযোজনা সংস্থা খুলে একের পর এক ছবি প্রযোজনা করছেন এবং সেই সব ছবিতে অভিনয় করছেন নিজের মনের মতো চরিত্রে- এই ব্যাপারটা ভেঙ্কটেশ খুব একটা ভালো ভাবে নিচ্ছে না। এমনকি যখন অনিকেত চট্টোপাধ্যায়ের পরিচালনায় দেব প্রযোজিত এবং অভিনীত ‘কবীর’ ছবির পোস্টার মুক্তি পেল, তখনও ভেঙ্কটেশের সঙ্গে কিছু আইনি চুক্তির কারণে সেখানে উপস্থিত থাকতে পারেননি দেব।

dev and jeet

এই সমস্ত জায়গা থেকেই এ বার ভেঙ্কটেশকে এক হাত নেওয়ার জন্য সম্প্রতি জিতের বাড়ির সামনে একটানা অনেকক্ষণ দেবের গাড়ি দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেল। জানা গিয়েছে, সবাইকে আড়াল করে এক গোপন বৈঠকে বসেছিলেন দুই নায়ক। ভেঙ্কটেশের একচ্ছত্র দাপট ভাঙার জন্য এ বার না কি হাত মিলিয়েছেন তাঁরা। খুব তাড়াতাড়িই একসঙ্গে ছবিও করবেন দুজনে।

dev and jeet

তবে, শুধুই দেব আর জিৎ নয়। ওই গোপন বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সুরিন্দর ফিল্মসের কর্ণধার নিশপাল সিংও। যতই হাত মিলিয়ে কাজ করুক না কেন, সুরিন্দর ফিল্মস আর ভেঙ্কটেশ ফিল্মসের মধ্যে যে সব সময়েই একটা শীতল স্রোত বয়ে যায়, তা টলিপাড়ার কারও অজানা নয়।

dev and jeet

দেখা যাক, ত্রয়ীর এই সম্মিলন টলিপাড়ায় ‘দুই পৃথিবী’-র মতো জমাটি কোনো রসায়নের জন্ম দেয় কি না!

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here