কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ‘অভিযাত্রিক’, সিনেমার ‘মাস্টার’দের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলি

0

সুচরিতা দে, কলকাতা

২৬তম কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার হয়ে গেল পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্রর ছবি ‘অভিযাত্রিক’-এর।

পরিচালক শুভ্রজিৎ যে দিন তাঁর ছবি ‘অভিযাত্রিক’ তৈরির কথা ঘোষণা করেছিলেন, সিনেমাপ্রেমী থেকে সমালোচক সকলের দৃষ্টি ছিল এই ছবি। ছবির প্রযোজনার সঙ্গে মধুর ভণ্ডারকরের নাম থাকায় ছবিটি প্রথম থেকেই প্রচারের আলোয় ছিল। ছবি তৈরি হলেও কোভিড মহামারির কারণে রিলিজ পিছিয়ে যায়। তবে কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে এই ছবির ওয়ার্ল্ড প্রিমিয়ার খবরে আবার আলোচনায় চলে আসে ‘অভিযাত্রিক’।

আলোচনা কারণ এই ছবি তৈরি হয়েছে বিভূতিভূষণ বন্দোপাধ্যায়ের ‘অপরাজিত’ উপন্যাসের শেষ পর্ব নিয়ে। সত্যজিৎ রায়ের পরিচালনায় যে ছবি কাল্ট হয়ে রয়েছে, ‘অপুর সংসার ‘ যেখানে শেষ হয়েছিল, ঠিক সেখান থেকেই শুরু হয় ‘অভিযাত্রিক’। এ বার সেই ছবি চাক্ষুষ করার পর দর্শক ও সিনেমা সমালোচকদের উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় খুশি পরিচালক শুভ্রজিৎ থেকে কলাকুশলী সকলেই।

[‘অভিযাত্রিক’-এর একটি দৃশ্য। ছবি: সংগৃহীত]

সদ্য প্রয়াত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় তাঁর সিনেমা জীবন শুরু করেন ‘অপুর সংসার’ দিয়ে । অপু হিসেবে দর্শকদের মনে যে ছবি রয়েছে, সেই ছবিতে অভিনেতা অর্জুন চক্রবর্তীকে দর্শকদের ভালো লেগেছে, এটাই অভিনেতা থেকে পরিচালক সকলকেই উৎসাহ দিয়েছে, নন্দন-এ সাংবাদিক বৈঠকে সে কথাই জানালেন অভিনেতা অর্জুন চক্রবর্তী ও পরিচালক শুভ্রজিৎ মিত্র। এই বৈঠকে অন্যান্য কলাকুশলীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অভিনেত্রী দিতিপ্রিয়া, সংগীত পরিচালক বিক্রম ঘোষ, প্রযোজক গৌরাঙ্গ জালান ও অন্যান্য কলাকুশলীরা।

‘অভিযাত্রিক’ ছবি বাংলা সিনেমার সাদাকালো সময়ের স্মৃতিকে উসকে দিয়েছে। ছবির প্রতিটি ফ্রেম বলে দেয় ছবি তৈরিতে কতটা যত্ন নেওয়া হয়েছে। ছবি নিয়ে পরিচালক শুভ্রজিৎ জানান – “এই ছবি কোনো ভাবেই ‘অপুর সংসার’ প্রভাবিত নয়। এটি সম্পূর্ণ মৌলিক গল্প। ‘অপরাজিত’ উপন্যাসের শেষ পর্ব নির্ভর। নিজের মতো করেই পরিচালনা করেছি, তবে অপু ট্রিলজি তো সিনেমার বাইবেল , সিনেমা তৈরির ব্যাকরণ। এই সব কাল্ট ছবি দেখেই সিনেমার ছাত্ররা সিনেমা তৈরি শেখেন। এই ছবি ইনসপিরেসন, তাই দর্শকদের এক দমই তুলনা করা ঠিক নয়। মাস্টাররা চিরদিনই মাস্টার আর আমরা ছাত্র, আমাদের তরফ থেকে ‘অভিযাত্রিক ‘ শ্রদ্ধাঞ্জলি”।

[অর্জুন এবং শুভ্রজিৎ। ছবি: প্রতিবেদক]

এই ছবিটি সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে দেখাতে না পারার আফসোস জানিয়ে শুভ্রজিৎ বলেন, “সৌমিত্র কাকুকে দেখাতে পারলাম না, এটা আমার কাছে আফসোস থেকে যাবে। তবে সব কিছুরই ডেস্টিনি থাকে, কিছু করার নেই। দর্শকদের খুবই পছন্দ হয়েছে ছবি দেখে, এটাই আমার খুব ভালো লাগছে। যে কষ্ট, পরিশ্রম করে ছবি করা, দর্শকদের প্রশংসা পাওয়াটাই সার্থক একজন শিল্পী হিসেবে”।

‘অভিযাত্রিক’-এর চিত্রায়ন, এর আবহ সংগীত, অভিনয় ও পিরিয়ড ছবি তৈরির গবেষণা- সব কিছুতেই যত্ন ও পরিশ্রম চোখে পড়ার মতো। তবে এই ছবি দর্শকদের কাছে মুক্তি পেতে আরও কিছু সময় লাগবে। পরিচালকের কথায়, “কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের পর আরও বেশকিছু চলচ্চিত্র উৎসবে প্রদর্শিত হওয়ার কথা।
ইতিমধ্যে কোভিড পরিস্থিতি কিছুটা সামলে দর্শক আবার হলমুখী হলে বড়ো করেই মুক্তি পাবে ‘অভিযাত্রিক”।

আরও পড়তে পারেন: কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সর্বত্র রয়েছেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন