ওয়েবডেস্ক: স্থানীয় মানুষের কাছে পরিচিত ‘ডেড সি’ নামে। চিনের উত্তর ভাগের সানঝি প্রদেশের এক নোনা জলের হ্রদ। নাম ইউনচেন লেক। সেই হ্রদের এক দিকটা এখন গোলাপি। বাকি অংশ জুড়ে সবুজ রঙের জল রয়েছে এখনও। এমন অদ্ভুত ঘটনা চাক্ষুষ করতে নিয়মিত চিনের নানা প্রান্ত থেকে আসা কৌতূহলী পর্যটক ভিড় করছে ইউনচেন লেকে।

রাতারাতি সবুজ থেকে গোলাপি হল কেন ‘ডেড সি’-র জল? হ্রদ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে ‘দুনেলিয়েল্লা স্যালিনা’ নামক এই রাসায়নিকের উপস্থিতিতেই রঙ বদলেছে লেকের। যে অংশে ওই রাসায়নিকের আধিক্য, তারই রঙ বদলে হয়েছে গোলাপি। রঙ বদলে যাওয়া অবশ্য এই হ্রদের ক্ষেত্রে কোনো নতুন ঘটনা নয়। ৫ কোটি বছরের পুরোনো ইউনচেন লেকে মাঝে মধ্যেই বদলে ফেলে রঙ। কখনও শৈবালের কারণে, কখনও বা রাসায়নিক পদার্থের কারণে। গত বছর লেকের এক অংশ রক্ত-লাল বর্ণের হয়ে গিয়েছিল।

১৩২ বর্গ কিলোমিটার জায়গা জুড়ে থাকা প্রাচীন এই হ্রদ একমাত্র শীতকালে বর্ণহীন হয়ে পড়ে। এই হ্রদের জলে লবণের মাত্রা এতই বেশি, যে এখানে মানুষের দেহ পর্যন্ত জলে ভেসে থাকে (প্লবতা বেশি হওয়ার কারণে)। সারা পৃথিবীতে যে তিনটি সোডিয়াম সালফেটের হ্রদ আছে, ইউনচেন তার মধ্যে একটি। ইতিহাস বলছে, চার হাজার বছর আগে চিনারা এই হ্রদ থেকে লবণ উৎপাদন করত। এখনও এই ‘ডেড সি’ থেকে পাওয়া লবণ শিল্পের কাজে ব্যবহার করা হয়।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here