আলাস্কা : অ্যান্টার্কটিকা তথা দক্ষিণ মেরুর লার্সেন সি আইস শেলফের ফাটল মাত্র ৬ দিনে বেড়ে গেছে ১৭ কিলোমিটার অর্থাৎ ১১ মাইল। ২০১৭ সালের ২৫ মে থেকে ৩১ মে মাত্র এই ক’দিনেই ফাটল এত দ্রুত এগিয়ে গেছে। মূল বরফখণ্ড থেকে সম্পূর্ণ আলাদা হয়ে যেতে আর মাত্র ১৩ কিলোমিটার মানে মাত্র ৮ মাইল বাকি। বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, এর পরই হয়ত সৃষ্টি হয়ে যাবে এখনও পর্যন্ত বিশ্বের সর্ববৃহৎ হিমশৈল। অর্থাৎ ভাসমান বরফের পাহাড়। ল্যান্ডসেট উপগ্রহের সদ্য তোলা ছবি ও সেনটিন্যাল-১ আইএনএসএআর থেকে পাওয়া তথ্য দেখে এ কথা জানিয়েছেন সোয়ানসি বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা।

প্রায় ১২০ মাইল লম্বা এই ফাটল। ৩০০ ফুট চওড়া আর এক মাইলের এক তৃতীয়াংশ গভীর ফাটলটি।

মোটামুটি ভাবে ২০১০ সাল থেকে খবরে রয়েছে এই লার্সেন সি। অ্যান্টার্কটিকার সব থেকে বড়ো বরফের চাঁই এই লার্সেন সি। এই ফাটলটি সম্পূর্ণ হলে গোটা বরফ চাঁইটির ১০% বিচ্ছিন্ন হয়ে যাবে। আর সেই অংশ হবে রোড আইল্যান্ডের দ্বিগুণ।      

অনেক বিজ্ঞানীর মতে মানুষের সৃষ্ট দূষণ, আর তার ফলে তৈরি হওয়া জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে সমুদ্রের তাপমাত্রা বৃদ্ধি হয়েছে। আর সেই কারণেই সৃষ্টি হয়েছিল এই বিশাল ফাটল। এর থেকে এই বিষয়টিও পরিষ্কার যে, অ্যান্টার্কটিকার এই অঞ্চলটি দ্রুত গরম হয়ে যাচ্ছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন