ওয়াশিংটন: ১৩৭ বছরের ইতিহাসে উষ্ণতম এপ্রিল কেটেছে গত বছর। আবহাওয়াবিদদের অনুমান ছিল, ২০১৭-র এপ্রিল কিছুটা স্বস্তিতে কাটবে। কতটা সত্যি হল তাঁদের অনুমান? হ্যাঁ, বিশ্ব উষ্ণায়নের ট্র্যাডিশন মেনে গত বছরের তাপমাত্রা ছাপিয়ে যায়নি এই এপ্রিল। স্বস্তি এটুকুই। মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা ‘নাসা’-র হিসেব বলছে ২০১৭ তে ১৩৭ বছরের মধ্যে দ্বিতীয় উষ্ণতম এপ্রিল প্রত্যক্ষ করেছে সারা দুনিয়া। সদ্য ফেলে আসা মাসে পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা ছিল স্বাভাবিকের চেয়ে ০.৮৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি।

আরও পড়ুন; কলকাতায় দশ বছরে ‘শীতলতম’ মার্চ, তাপমাত্রা বাড়লেও মাত্রাছাড়া গরম এখনই নয়

তাপমাত্রার রেকর্ড বলছে আলাস্কা, সাইবেরিয়া, পশ্চিম কানাডা, মঙ্গোলিয়া এবং চিনের উত্তরাংশে এপ্রিলের গড় তাপমাত্রা স্বাভাবিকের চাইতে ৫ ডিগ্রি পর্যন্ত বেড়েছিল। পৃথিবীর ৬৩০০টি আবহাওয়া দফতর থেকে তাপমাত্রা সংক্রান্ত তথ্য নিয়ে নাসার ‘গদ্দার্ড ইনস্টিটিউট অব স্পেস স্টাডিজ’ একটি বিবৃতি দেয়। তা থেকে জানা গিয়েছে ২০১৬,২০১৭ এবং ২০১০এর এপ্রিল ছিল পৃথিবীর প্রথম, দ্বিতীয় এবং তৃতীয় উষ্ণতম এপ্রিল। দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া, আন্টার্কটিকা, এবং উত্তর-পূর্ব কানাডা অবশ্য অপেক্ষাকৃত শীতল ছিল এই এপ্রিলে। তবে পৃথিবীর বিভিন্ন অঞ্চলে তাপমাত্রার বৈপরীত্য কতোটা, তা বোঝার জন্য দেশ বিদেশের তাপমাত্রা না জানলেও চলে। গত দশ বছরে এটাই ছিল কলকাতার শীতলতম এপ্রিল। কিন্তু আবহাওয়াবিদরা এতে খুশি নয় মোটেও। গত বছরের তুলনায় এ বছর তাপমাত্রা কমল কিনা, বিজ্ঞানীদের মতে তা খুব একটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। তাঁদের দুশ্চিন্তার স্পষ্ট কারণ একটাই, তা হল, গত কয়েক দশকে সারা পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা ক্রমশ বাড়ছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here