ওয়েবডেস্ক: বিশ্ব উষ্ণায়নের ফলে মেরু প্রদেশের বরফ যে ক্রমাগত গলছে, সে তো সবারই জানা। পরিবেশবিদদের আশঙ্কা, বরফ গলা জলে ক’দিনের মধ্যেই শুরু হবে দেদার মাছ শিকার। পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থেকে ন’টি মেরু প্রদেশীয় দেশে বাণিজ্যিক উদ্দেশে মাছ ধরা নিষিদ্ধ হল সম্প্রতি। নিষেধাজ্ঞা আপাতত ১৬ বছরের জন্য জারি থাকবে। এই প্রসঙ্গে মার্কিন সমুদ্র এবং মৎস্যচাষ বিষয়ক দূত ডেভিড বাল্টন বলেছেন, “যাবতীয় যা ক্ষয় ক্ষতি হওয়ার, ঘটে যাওয়ার আগে এই প্রথম সরকার কোনও পদক্ষেপ করল”।

আরও পড়ুন; দক্ষিণ মেরুর লার্সেন সি আইসশেলফের ফাটল সম্পূর্ণ হতে বাকি মাত্র ৩ মাইল

২০১৫ সাল নাগাদ বাণিজ্যিক পদ্ধতিতে মাছ ধরা নিষিদ্ধ করতে চুক্তিবদ্ধ হয়েছিল রাশিয়া, কানাডা, ডেনমার্ক, নরওয়ে এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। দু’বছর ধরে চলা একাধিক বৈঠকের পর ওই একই চুক্তিতে আবদ্ধ হল দক্ষিণ কোরিয়া, চিন, জাপান, আইসল্যান্ড এবং ইওরোপীয় ইউনিয়ন। ২৮ লক্ষ বর্গ কিলোমিটার অঞ্চল জুড়ে জারি হল এই নিষেধাজ্ঞা। ১৬ বছর পেরিয়ে গেলে পরবর্তী পাঁচ বছরের জন্য ফের বাড়ানো যাবে নিষেধাজ্ঞা।

এই খবরে স্বস্তির নিশ্বাস ফেলেছেন পরিবেশবিদরা। তাঁদের অনেকেরই আশঙ্কা ছিল, যে হারে মেরু প্রদেশের বরফ গলতে শুরু করেছে, তাতে খুব শিগগির ওই অঞ্চলের বরফ গলা জলে মাছ ধরা শুরু হবে। কিন্তু না, মেরু দেশের সামুদ্রিক বাস্তুতন্ত্র পর্যবেক্ষণ করার জন্য বিজ্ঞানীরা আপাতত কম করে ১৬ বছর হাতে পাচ্ছেন ।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here