২০৫০-এর মধ্যে সমুদ্রে মাছকে ছাপিয়ে যাবে প্লাস্টিক, বলছে গবেষণা

0
431
sea pollution

ওয়েবডেস্ক: ২০৫০-এর মধ্যে সমুদ্রে মাছের তুলনায় প্লাস্টিকের সংখ্যা বেড়ে যাবে। এমনই ভয়াবহ খবর দিলেন ভারত তথা বিশ্বের প্রথম সারির এক সমুদ্রবিজ্ঞানী।

সমুদ্রদূষণ নিয়ে দু’দিনের একটি আলোচনাসভা চলছে কোচিতে। সেখানেই বক্তব্য রাখেন সেন্ট্রাল মেরিন ফিসারিজ রিসার্চ ইন্সটিটিউটের (সিএমএফআরআই) মুখ্য বিজ্ঞানী ডঃ ভি কৃপা। তিনি বলেন, বর্তমান পরিস্থিতি যদি বজায় থাকে তা হলে ২০৫০-এর মধ্যে সমুদ্রে ৮৫ কোটি মেট্রিক টন প্লাস্টিক পাওয়া যাবে, অন্য দিকে মাছ মিলবে ৮২ কোটি ১০ লক্ষ মেট্রিক টন।

কৃপার মতে, সমুদ্রে প্লাস্টিকের পরিমাণ বছরের পর বছর বেড়েই চলেছে। এটা বন্ধ করা খুব প্রয়োজন বলেও মনে করেন তিনি।

সমুদ্রে প্লাস্টিক দূষণ নিয়ে তিনি বলেন, “সাম্প্রতিক গবেষণায় দেখা গিয়েছে সমুদ্রে ৫ লক্ষ ২৫ হাজার কোটি পাস্টিকের টুকরো রয়েছে। এর মধ্যে প্রায় দু লক্ষ ৬৯ হাজার টুকরো সমুদ্রের ওপরেই ভেসে বেড়াচ্ছে। এ ছাড়াও সমুদ্রের ভেতরে প্রতি বর্গ কিলোমিটারে ৪০০ কোটি মাইক্রো-ফাইবার রয়েছে।”

তিনি আরও বলেন, “ভারতীয় উপমহাদেশ অঞ্চলে প্লাস্টিকের পরিমাণ খুব ভয়ংকর ভাবে বেড়ে গিয়েছে। সমুদ্রের বিভিন্ন মাছের মধ্যেও এখন প্লাস্টিক পাওয়া যাচ্ছে।” তবে সমস্যাটা যতটা প্লাস্টিক বিষয়ক, তার থেকে অনেক বেশি আবর্জনা নিয়ে মানুষের মধ্যে সচেতনতার অভাব বলে মনে করেন এক পরিবেশবিদ ডঃ বাসুদেব রাজাগোপালন।

তিনি মনে করেন, সচেতনতার অভাবে মানুষ যে ভাবে প্লাস্টিক সমুদ্রে ফেলছে সেটাই সমস্যা তৈরি করছে। প্লাস্টিককেও বৈজ্ঞানিক ভাবে শোধন করা যায়। মানুষকে এই ব্যাপারে জানানো গেলে সমুদ্রদূষণ অনেক কমবে বলে মনে করেন তিনি।

এক ক্লিকে মনের মানুষ,খবর অনলাইন পাত্রপাত্রীর খোঁজ

loading...

মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here