global sea level rise

ওয়েবডেস্ক: আগে ধারণা ছিল জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে ধীর গতিতে বাড়ছে সমুদ্রের জলস্তর। সেই ধারণাকে সম্পূর্ণ ভুল প্রমাণিত করলেন যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডো বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েক জন গবেষক। জানিয়ে দিলেন আর ধীর গতি নয়, আগের থেকে অনেক দ্রুত গতিতে বাড়ছে সমুদ্রের জলস্তর।

গত পঁচিশ বছরের উপগ্রহ চিত্র বিশ্লেষণ করে নতুন এই তথ্য জানিয়েছেন গবেষকরা। গবেষণায় উঠে এসেছে যে প্রতি বছর অন্তত ০.০৮ মিলিমিটার হারে বাড়ছে সমুদ্রের জলস্তর। অর্থাৎ এই হারে জল বাড়লে ২১০০ সালের মধ্যে সমুদ্রের জল বাড়ার হার বছরে ১০ মিলিমিটার পৌঁছোতে পারে। এক গবেষক স্টিভ নেরেম বলেন, “গ্রিনল্যান্ড এবং কুমেরুতে বরফ গলার হার আগের থেকে অনেক বেড়েছে। এই হারে যদি বরফ গলে তা হলে ২১০০ সালের মধ্যে সমুদ্রের জলস্তর মাত্রা দ্বিগুণ হতে পারে।”

নেরেম জানিয়েছেন, ২১০০ সালের মধ্যে সমুদ্রের জল ৬৫ সেন্টিমিটার বেড়ে যেতে পারে। এর ফলে বিশ্বের উপকূলবর্তী শহরগুলি বিশাল সমস্যার মধ্যে পড়তে পারে। তাঁর মতে, জলবায়ু পরিবর্তনের ফলে দু’ভাবে বাড়ে সমুদ্রের জলস্তর। প্রথমটি হল ‘থার্মাল এক্সপ্যানশন’, অর্থাৎ গরম জল নিজের থেকেই বাড়ে। গত ২৫ বছরে সমুদ্রের জল যতটা বেড়েছে, তার অর্ধেক হয়েছে এই থার্মাল এক্সপ্যানশনের কারণে। দ্বিতীয়টি হল বরফ গলে জলের মাত্রা বাড়ানো।

জার্মানির পট্‌সড্যাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক স্টেফান রামস্টোর্ফ জানিয়েছেন, বিংশ শতাব্দী পর্যন্ত গত তিন হাজার বছরে সমুদ্রের জল বাড়ার কোনো বিশেষ নজির নেই। তার পর থেকেই বিশ্ব যত দূষণ ছড়িয়েছে ততই বাড়তে শুরু করেছে সমুদ্রের জল।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here