কলকাতা: শহরের দূষণ নিয়ন্ত্রণে কলকাতার বিভিন্ন জায়গায় বসতে চলেছে অত্যাধুনিক সাকশান মেশি। এই মেশিন বসানোর উদ্যোগ নিচ্ছে রাজ্য পরিবেশ দফতর। এমনই জানিয়েছেন পরিবেশমন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী।

গত কয়েক মাস ধরে কলকাতার দূষণ মাত্রাছাড়া ভাবে বেড়েছে। এমনকি দূষণের নিরিখে শহর দিল্লিকেও টেক্কা দিচ্ছে বলে খবর। দূষণ নিয়ন্ত্রণে ব্যর্থ হওয়ায় রাজ্যকে বড়ো জরিমানাও করে পরিবেশ আদালত। এর পরেই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েন পরিবেশ দফতরের আধিকারিকরা। তড়িঘড়ি দূষণ নিয়ন্ত্রণে ব্যবস্থা না নিলে পরিস্থিতি হাতের বাইরে চলে যেতে পারেও বলে আশঙ্কা করতে শুরু করেন তাঁরা।

আরও পড়ুন কলকাতায় আরও কমল পারদ, শীতে উত্তরকে টেক্কা রাঢ়বঙ্গের

এই পরিস্থিতির সুরাহা বের করার জন্য পরিবেশ ভবনে বৈঠক করেন শুভেন্দুবাবু। দূষণ নিয়ন্ত্রণ বোর্ড এবং পরিবেশ দফতরের আধিকারিকদের সঙ্গে ওই বৈঠক হয়। দূষণ নিয়ন্ত্রণ করতে বেশ কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয় বৈঠকে। কলকাতা পৌরনিগমকে জলের ১০টি গাড়ি, হাওড়া পৌরনিগমকে ৫টি জলের গাড়ি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ ছাড়াও বিধাননগর পৌরনিগম, বারাসত ও মধ্যমগ্রাম পৌরসভাকে জলের গাড়ি নেওয়ার জন্য প্রস্তাব দিতে বলা হয়েছে। ধুলোবালিতে জল দিয়ে দূষণ কমাতে সাহায্য করবে এই গাড়িগুলি।

এ ছাড়াও অত্যাধুনিক সাকশন মেশিন দূষণ কমাতে ভূমিকা নেবে। যাদবপুরের ৮বি বাসস্ট্যান্ড, ডানলপ মোড় সহ শহরের দশ জায়গায় পরীক্ষামূলক ভাবে বসবে এই মেশিন।

বৈঠক শেষে শুভেন্দুবাবু বলেন, শহরের দূষণের মাত্রা কুড়ি থেকে তিরিশ শতাংশ কমিয়ে আনাই এখন লক্ষ্য তাঁদের।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here