লন্ডন: নেপালের মাউন্ট এভারেস্ট আর মাউন্ট লোৎসের মাঝে অবস্থিত খুম্বু হিমবাহ। উৎসস্থল প্রায় সাড়ে সাত হাজার মিটার উঁচু। পৃথিবীর সর্বোচ্চ হিমবাহ খনন করতে চলেছে বিলেতের একদল বিজ্ঞানী। ওয়েলস-এর অ্যাবেরিসটুইথ বিশ্ববিদ্যালয়ের এক দল গবেষক হিমালয়ের ৫০০০ মিটার উচ্চতায় শুরু করবে হিমবাহ খননকার্যের কাজ। দেশ বিদেশ থেকে আসা পর্বতারোহীদের প্রতি বছরই এভারেস্ট বেস ক্যাম্পে পৌঁছোনোর জন্য পার হতে হয় খুম্বু হিমবাহ। দুর্গম এবং বিপজ্জনক এই খুম্বু পার হওয়া পর্বতারোহীদের কাছে একটা বড়ো চ্যালেঞ্জ। এ বার সেই একই চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হতে চলেছে অ্যাবেরিসটুইথ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা। 

৫০০০ মিটার উচ্চতায় খনন কাজ শুরু করার জন্য প্রয়োজন উন্নত মানের যন্ত্রপাতি। এবং তাদের সংখ্যাও নেহাত কম নয়। যন্ত্রপাতির কিছুটা পৌঁছোবে হেলিকপ্টারে। বাকিটা বয়ে নিয়ে যাবেন স্থানীয় নেপালি শেরপারা। প্রোজেক্ট লিডার ব্রিন হুব্বার্ড নিজে অবশ্য সংশয়ে রয়েছেন ওই উচ্চতায় আধুনিক যন্ত্রপাতি কতটা কাজ করবে। উচ্চতার পাশাপাশি হাওয়ার ঘনত্ব কমে যাওয়াটাও একটা বড়ো সমস্যা। 

খনন কাজ সম্পূর্ণ হলে হিমবাহের অভ্যন্তরীণ গঠন সম্পর্কে বহু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে, দাবি করছেন বিজ্ঞানীরা। হিমবাহের তাপমাত্রা, কোন গতিতে এই হিমবাহের জল বয়ে যায়, এ রকম নানা তথ্য। 

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here