রথযাত্রা স্পেশ্যাল: সাবুর পাঁপড়

0
sabupapad
সাবু পাঁপড় প্রতীকী ছবি
ila-das
ইলা দাস

রথযাত্রা এসেই গেল। তার আগে চলছে সাজো সাজো রব। রথ বানানো, রঙ করা, সাজানো আরও কত কী। তবে ভোজনরসিক যাঁরা, তাঁরা কিন্তু এই সবের সঙ্গে সঙ্গে রথের দিনে খাওয়াদাওয়ার বিষয়টি নিয়েও সমান ভাবনাচিন্তা করছেন। তাঁদের জন্য বলি, রথ আর পাঁপড় প্রায় একই সূতোয় বাঁধা। তাই যদি নানান রকমের পাঁপড় গরম গরম হাতে পাওয়া যায় তা হলে কেমন হয়?

বাজারে রকমারি পাঁপড় পাওয়া গেলেও বাড়িতে বানিয়ে পাঁপড় খেতে আর খাওয়াতে পারলে তার কোনো তুলনাই হয় না। তাই রইল আরও এক রকমের পাঁপড় বানানোর রেসিপি।

সাবুর পাঁপড়। এই পাঁপড় খেতে অনেকেই খুব ভালোবাসেন। বাজারে মাঝে মধ্যে কোন এক অজানা কারণে সাবুর পাঁপড় অমিলও হয়। বানানোর পদ্ধতি জানা থাকলে তাই মন খারাপ না করে সহজেই তা বানিয়ে ফেলা যায়।  

উপকরণ কী কী লাগবে দেখে নেওয়া যাক। সাবুর পাঁপড় বানাতে হলে প্রথমেই যেটি লাগবে তা হল সাবু। বড়ো দানার সাবু হলেই ভালো হয়। সঙ্গে সামান্য পরিমাণ নুন, অল্প কালো জিরে, আর সামান্য গোলমরিচ গুঁড়ো, তেল, জল।

আরও পড়ুন – ইদের রান্না: চিকেন লেগপিস কারি

এ বার জানতে হবে পদ্ধতি। প্রথমেই সাবুটা ভালো করে ধুয়ে নিতে হবে। তার পর একটি পাত্রে সাবু আর জল দিয়ে তাতে নুন, কালো জিরে, গোলমরিচ গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে। তার পর তা উনানে বসিয়ে ফুটিয়ে নিতে হবে। সাবু সেদ্ধ হয়ে এলে দানাগুলি বড়ো বড়ো হয়ে যাবে। তখনই তা নামিয়ে নিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন সাবু বেশ থকথকে হয়ে যায়।

সেদ্ধ হয়ে গেলে সাবুর মিশ্রণটি ঠান্ডা করার পালা। এর মাঝেই একটি বড়ো থালায় সামান্য পরিমাণ তেল মাখিয়ে নিতে হবে। এই থালাতেই সাবুর মিশ্রণটি ঢালতে হবে। যাতে মিশ্রণটি শুকিয়ে যাওয়ার পর সহজেই থালা থেকে তুলে নেওয়া যায় তার জন্যই তেল মাখাতে হয়। যা-ই হোক, সাবু থালায় ঢেলে দুই পিঠ রোদে ভালো করে শুকিয়ে নিতে হবে। থালায় ঢালার পর চাইলে নানান আকারে সাবুর থকথকে অংশ কেটে নেওয়া যেতে পারে। আবার গোটাটাই একটি বড়ো গোল রাখা যেতে পারে। সে ক্ষেত্রে শুকিয়ে গেলে তা থেকে ছোটো ছোটো টুকরো করে ভেঙে নিতে হবে। থকথকে ভাব শুকিয়ে শক্ত হয়ে গেলেই সাবুর পাঁপড় তৈরি। এর পর কড়াইয়ে তেল গরম করে পাঁপড়ের ছোটো ছোটো টুকরো দিয়ে কড়কড়ে করে ভেজে পরিবেশন করুন।   

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here