aadhar supreme court

ওয়েবডেস্ক: আধার তথ্য গোপনীয়তায় বুধবারই নতুন পদক্ষেপ করেছে ইউআইডিএআই। আধার-মালিকদের ১৬ সংখ্যার ‘আধার ভার্চুয়াল নম্বর’ দেওয়ার কথা ঘোষণা করা হয়েছে। আধার কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে বলে দেওয়া হয়েছে, কোনো মোবাইল পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা বা অন্য কোনো কর্তৃপক্ষ যখন গ্রাহকের বা সংশ্লিষ্ট ব্যক্তির পরিচয়ের প্রমাণ চাইবেন, তখন ১৬ অঙ্কের নম্বরটি দিলেই চলবে, ১২ অঙ্কের আসল আধার নম্বর দেওয়ার প্রয়োজন পড়বে না। তবে এই নতুন নম্বরও কার্যোপযোগী নয় বলে বৃহস্পতিবার জানিয়ে দিয়েছেন আধারের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করা আবেদনকারীরা।

বিভিন্ন জনকল্যাণমূলক পরিষেবার জন্য আধার বাধ্যতামূলক করেছে কেন্দ্র। এর বিরুদ্ধেই সুপ্রিম কোর্টে এখনও বেশ কয়েকটি মামলা চলছে। সেই সব মামলার আবেদনকারীরাই এ দিন জানিয়ে দিয়েছেন, আধার কর্তৃপক্ষের নতুন পদক্ষেপটিও কার্যকার হবে না।

এক আবেদনকারী বলেন, “নতুন এই ভার্চুয়াল নম্বরটির এখনও কোনো পরীক্ষা হয়নি। এর কার্যকারিতা নিয়েও প্রশ্ন থেকে যাচ্ছে। এই প্রযুক্তির কোনো পরীক্ষাও হয়নি। পরের শুনানিতেই এর তীব্র বিরোধিতা করব।”

আরও পড়ুন আধার নম্বরের যোগসূত্রেই ফাঁস হচ্ছে আপনার ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের তথ্য, কী ভাবে?

উল্লেখ্য, আধার তথ্য ফাঁস হয়ে যাওয়া যে খুব একটা কঠিন কিছু নয়, সেই ব্যাপারটাই চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে ‘দ্য ট্রিবিউন’ পত্রিকার একটি স্টিং অপারেশন। তার কয়েক দিনের মাথায়ই এই নতুন ভার্চুয়াল আইডির কথা বলল ইউআইডিএআই। অর্থাৎ, কেন্দ্র মুখে যতই বলুক যে আধার তথ্য ফাঁস হতে পারে না, এই ব্যাপারে তারাও যে বেশ সন্দিহান, সেটাই প্রমাণিত হল এই নতুন নম্বরের কথা ঘোষণাতে।

মোবাইল নম্বর, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট-সহ আরও একাধিক জনকল্যাণমূলক পরিষেবায় আধার সংযুক্তিকরণের বিরুদ্ধে বেশ কিছু আবেদনের শুনানি চলছে সুপ্রিম কোর্টে। আবেদনকারীদের বক্তব্য, সব কিছুতে আধার বাধ্যতামূলক করা হলে সাধারণ মানুষের গোপনীয়তার অধিকারে বিশাল বড়ো হস্তক্ষেপ করবে সরকার।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন