কলকাতা: কালীপুজোয় বোধহয় আর বাজি পড়ানো হল না বাজিভক্তদের। অন্তত প্রকৃতির সে রকমই ইচ্ছে। বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপটি ক্রমশ শক্তি বাড়িয়ে অবস্থান করছে দিঘার কাছেই। এর প্রভাবে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা থেকে বৃষ্টির দাপট বাড়তে পারে কলকাতা-সহ সমগ্র দক্ষিণবঙ্গে। সব থেকে খারাপ অবস্থা হতে চলেছে রাজ্যের উপকূলবর্তী অঞ্চলে।

নিম্নচাপটি যত পশ্চিমবঙ্গের দিকে এগিয়ে আসছে তত অবনতি হচ্ছে রাজ্যের আবহাওয়ার। বুধবার সন্ধ্যা থেকেই দফায় দফায় বৃষ্টি হয়েছে কলকাতায়। বৃহস্পতিবার সকালে সে ভাবে বৃষ্টি না হলেও, আকাশ রয়েছে মেঘলা, সেই সঙ্গে মাঝেমধ্যেই বইছে একটা দমকা হাওয়া। তবে আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, সন্ধ্যা থেকে বৃষ্টির দাপট ক্রমশ বাড়বে।

বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কা বলেন, “বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় এই নিম্নচাপটি আরও কিছুটা শক্তি বাড়িয়ে ওড়িশার পারাদ্বীপ এবং দিঘার মধ্যে দিয়ে স্থলভূমিতে ঢুকবে। এর ফলে ঝোড়ো হাওয়ার পাশাপাশি সমগ্র দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টি বাড়বে।”

তবে এই নিম্নচাপের প্রভাবে রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলি, ওড়িশা এবং ঝাড়খণ্ডে অতি ভারী বৃষ্টিও হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন রবীন্দ্রবাবু। এই পরিস্থিতি আগামী তিন দিন বজায় থাকবে বলে জানিয়েছেন তিনি। এর প্রভাবে ফের এক দফা বন্যা পরিস্থিতির সৃষ্টি হওয়ার কথাও বলেছেন তিনি।

তবে এখনও কিছু মডেল ইঙ্গিত দিচ্ছে শেষ মুহূর্তে এই নিম্নচাপটি ঘূর্ণিঝড়ের আকার নিয়ে নিতে পারে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here