cauvery water supreme court

নয়াদিল্লি: তামিলনাড়ুর জন্য বরাদ্দ কমিয়ে কাবেরীর জলে কর্নাটকের অধিকার বাড়াল সুপ্রিম কোর্ট। পাশাপাশি ১২০ বছরের কাবেরী জলবন্টন সমস্যার রায় দিতে গিয়ে সুপ্রিম কোর্ট জানিয়ে দিল, কোনো রাজ্য একটি নদীর মালিকানা নিতে পারে না।

শুক্রবার কাবেরী জলবন্টন সমস্যা নিয়ে নিজের রায় দেয় প্রধান বিচারপতি দীপক মিশ্র নেতৃত্বাধীন শীর্ষ আদালতের তিন সদস্যের একটি ডিভিশন বেঞ্চ। রায়ে তারা বলে এখন থেকে প্রতি বছর তামিলনাড়ুর জন্য ১৭৭.২৫ হাজার মিলিয়ন কিউবিক (টিএমসি) ফুট জল ছাড়বে কর্নাটক। ২০০৭-এর একটি রায়ে এত দিন পর্যন্ত তামিলনাড়ুর জন্য ১৯২ টিএমসি ফুট জল ছাড়তে হত কর্নাটককে। সুতরাং অতিরিক্ত ১৪.৭৫ টিএমসি ফুট জলের অধিকার কর্নাটককে দিল শীর্ষ আদালত।

সাধারণ ভাবে কাবেরী দিয়ে ৭৪০ টিএমসি ফুট জল বয়ে যায়। ২০০৭ সালের নির্দেশিকা অনুযায়ী ৭৪০ টিএমসি ফুট জলের মধ্যে তামিলনাডু এতদিন পর্যন্ত ৪১৯ টিএমসি ফুট জল পেত। কর্নাটক পেত ২৭০ টিএমসি ফুট জল, কেরল এবং পুদুচেরি পেত যথাক্রমে ৩০ এবং ৭ টিএমসি ফুট জল। সুপ্রিম কোর্টের রায়ের পরে কর্নাটকের ভাগ্যে এখন থেকে জুটবে ২৮৪.৭৫ টিএমসি ফুট জল। যদিও কেরল এবং পুদুচেরির জলের বরাদ্দ অপরিবর্তিত রেখেছে আদালত।

সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের পরে স্বাভাবিক ভাবে স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে কর্নাটক, অন্য দিকে ক্ষোভে ফুঁসছে তামিলনাড়ু। এই জলবন্টন ইস্যুকে কেন্দ্র করে কর্নাটক এবং তামিলনাড়ুর মধ্যে যথেষ্ট গোলমাল এবং সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এই রায়কে কেন্দ্র করে দুই রাজ্যের সম্পর্ক আরও একবার তলানিতে ঠেকবে তা আন্দাজ করাই যায়।

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন