modi

কেদারনাথ: ২০২২-এর মধ্যে দেশবাসীকে নতুন এবং আরও উন্নত ভারত উপহার দিতে তিনি বদ্ধপরিকর। শুক্রবার কেদারনাথে এমনই বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। পাশাপাশি চার বছর আগে প্রবল বন্যায় বিপর্যস্ত কেদারনাথে তাঁকে সাহায্য না পাঠাতে দেওয়ায় কংগ্রেসকেও বিঁধলেন তিনি।

বৃহস্পতিবারই কাশ্মীরের গুরেজ সেক্টরে সেনা জাওয়ানদের সঙ্গে দীপাবলি কাটিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী। সেখান থেকে শুক্রবার এসে পৌঁছোন কেদারনাথে। শনিবার থেকে ছ’মাসের জন্য বন্ধ হয়ে যাবে কেদার। তার আগে কেদারে পৌঁছে বেশ কিছু উন্নয়নমূলক প্রকল্পের কথা ঘোষণা করেন মোদী।

চার বছর আগে প্রবল বন্যায় বিপর্যস্ত হওয়ার ধাক্কা এখনও সে ভাবে কাটিয়ে উঠতে পারেনি কেদার। এর জন্য তিনি দায়ী করেন বিগত কংগ্রেস আমলকে। তাঁর কথায়, “কেদারে যখন ভয়াবহ বন্যা হয়, আমি তখন গুজরাতের মুখ্যমন্ত্রী ছিলাম। আমি কেদারের পুনর্গঠনের কাজে সাহায্য করার কথা বলেছিলাম। রাজ্যের তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী রাজি হয়েছিলেন কিন্তু বাধা এসেছিল কেন্দ্রের ইউপিএ সরকারের থেকে।”

কেদারকে ‘আদর্শ তীর্থক্ষেত্র’ তৈরি করার ঘোষণা এ দিন করেন মোদী। সেই সঙ্গে তিনি বলেন, এই অঞ্চলে যাতে পর্যটনের আরও বেশি প্রসার হয়, সেই ব্যাপারেও গুরুত্ব দেওয়া হবে এবং আরও বেশি তীর্থযাত্রী যাতে কেদার যেতে পারেন সেটাও নিশ্চিত করা হবে। তিনি বলেন, “এ বছর সাড়ে চার লক্ষ তীর্থযাত্রী কেদারে এসেছেন। সামনের বছর এই সংখ্যাটা দশ লক্ষ ছাড়িয়ে যাবে সে ব্যাপারে আমি নিশ্চিত।”

কেদারকে আগের রূপে নিয়ে আসতে প্রচুর অর্থ খরচ হবে, কিন্তু সরকারের কাছে অর্থের কোনো অভাব নেই বলে সাফ জানিয়ে দেন মোদী।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here