new york

নিউ ইয়র্ক: ৯/১১-এর পরে সব থেকে ভয়ংকর জঙ্গি হানার কবলে নিউ ইয়র্ক। ম্যানহাটান অঞ্চলে ট্রাক হামলায় এখনও পর্যন্ত অন্তত আট জনের নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে। এই ঘটনাকে জঙ্গি হামলাই আখ্যা দিয়েছে ট্রাম্প প্রশাসন।

ইস্তানবুল, নিস, মিউনিখের ধাঁচেই জঙ্গি হামলা ঘটনা ঘটল নিউ ইয়র্কে।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার দুপুরে লোয়ার ম্যানহাটান অঞ্চলে হ্যালোইন উদযাপন করতে ভিড় করেছিলেন স্কুল পড়ুয়া থেকে শুরু করে অসংখ্য সাধারণ মানুষ। তখনই একটি ট্রাক ভিড়ের মধ্যে ঢুকে পড়ে। প্রথমে কয়েকটি মোটর সাইকেল আরোহীকে পিষে দিয়ে তার পর একটি স্কুল বাসে ধাক্কা মারে ট্রাকটি।

ঘটনাটিকে জঙ্গি হামলা আখ্যা দিয়ে নিউ ইয়র্কের মেয়র বিল দে ক্লাসিও বলেছেন, “এটা একটি কাপুরুষোচিত জঙ্গি হামলার ঘটনা। যে ভাবে সাধারণ মানুষের ওপরে হামলা চালানো হল তা অত্যন্ত নিন্দনীয়।”

ঘটনায় মূল অভিযুক্ত ফ্লোরিডানিবাসী ২৯ বছর বয়সি উজবেক নাগরিক সায়ফুল্লো সাইপভকে লক্ষ করে গুলি চালান নিরাপত্তারক্ষীরা। আশঙ্কাজনক অবস্থায় থাকলেও, সে সম্ভবত বেঁচে যাবে, এমনই জানানো হচ্ছে প্রশাসনের তরফ থেকে। ঘটনার নিন্দা করতে গিয়ে এই অভিযুক্তকে ‘অসুস্থ’ এবং ‘মানসিক ভারসাম্যহীন’-এর আখ্যা দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

যুক্তরাষ্ট্রে আসা বিদেশি নাগরিকদের ওপর যে এখন থেকে আরও বেশি করে নজর রাখা হবে সে কথাও জানিয়েছেন ট্রাম্প। হামলার পেছনে কোন জঙ্গি সংগঠন রয়েছে, সে ব্যাপারে মার্কিন প্রশাসন কিছু না বললেও, ট্রাম্প বলে দিয়েছেন যে ‘ইসলামিক জঙ্গিদের’ দেশের ‘আসতে দেওয়া হবে না’।

নিহতদের মধ্যে পাঁচ জন আর্জেন্তিনার নাগরিক। আহতদের মধ্যেও বেশির ভাগই আর্জেন্তিনার। আর্জেন্তিনার বিদেশ মন্ত্রকের তরফ থেকে জানানো হয়েছে স্নাতক হওয়ার তিরিশ বছর উদযাপন করতে নিউ ইয়র্কে গিয়েছিলেন কয়েক জন বন্ধু। ঘটনায় গভীর শোকপ্রকাশ করেছেন আর্জেন্তিনার বিদেশমন্ত্রী।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here