arun jaitely

নয়াদিল্লি: ভারতীয় অর্থনীতির চিত্রটা গত তিন বছরের মধ্যে সব থেকে করুণ। এই অবস্থায় অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার জন্য প্রায় দশ লক্ষ কোটি টাকার পরিকল্পনা ঘোষণা করল কেন্দ্র। এর মধ্যে যেমন সরকারি ব্যাঙ্কগুলিকে লগ্নির মাধ্যমে মূলধন প্রদান করার পরিকল্পনা করা হয়েছে, তেমনই নেওয়া হয়েছে নতুন সড়ক তৈরি করার পরিকল্পনাও।

মোট অর্থের মধ্যে দু’লক্ষ কোটি টাকার কিছু বেশি ব্যবহার করা হবে ব্যাঙ্কগুলিকে চাঙ্গা করার জন্য এবং বাকি সাত লক্ষ কোটি টাকা ব্যবহার হবে নতুন সড়ক তৈরি করার জন্য। উপকূল এবং সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে এই নতুন রাস্তা তৈরি করা হবে।

আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প বুলেট ট্রেনের লোগো কী হল, জেনে নিন

মঙ্গলবার একটি পাওয়ার-পয়েন্ট প্রেসেন্টেশনের মাধ্যমে এই পরিকল্পনার কথা ঘোষণা করেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী অরুণ জেটলি। অর্থমন্ত্রী বলেন, ভারতের অর্থনীতি এখনও ভালো অবস্থায় রয়েছে এবং মাঝেমধ্যে একটু করুণ চিত্র অস্বাভাবিক কিছু নয়।

পাশাপাশি কৃষকদের কাছ থেকে যে টাকায় সরকার ধান, গম ইত্যাদি কেনে, সেই টাকা আরও বাড়িয়ে দেওয়ার কথাও জানিয়েছে কেন্দ্র। সেই সঙ্গে আগস্ট, সেপ্টেম্বরের জিএসটি রিটার্ন ফাইলে দেরি করায় যে জরিমানা নীতি কেন্দ্রের রয়েছে, সেই জরিমানাও তুলে দেওয়ার ঘোষণা করেছে কেন্দ্র।

পরবর্তী পাঁচ বছরে মোট ৮৩,৬৭৭ কিমি সড়ক তৈরি করার কথা বলেছে কেন্দ্র। এর ফলে যে সব সংস্থা এখন দেনার অভাবে ধুঁকছে সেখানে ব্যাঙ্ক থেকে খুবই দ্রুত অর্থ প্রদান করা সম্ভব হবে। এর ফলে এক দিকে যেমন যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নত হবে, তেমনই কর্মসংস্থানও বাড়বে।

দেশের অর্থনীতির অবস্থা খুব খারাপ হওয়ার ফলে বারবার বিরোধীদের কটাক্ষের মুখে পড়তে হচ্ছে কেন্দ্রকে। ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের আগে বিরোধীদের সেই অভিযোগের স্বর অনেকটা ভোঁতা করে দেওয়ার জন্য এই পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে কেন্দ্র।

বিশেষজ্ঞদের ধারণা ছিল গত বছরের বিমুদ্রাকরণ এবং এ বছর জিএসটি ঘোষণার পর দেশের অর্থনীতি যে দুর্বল হয়ে পড়েছে, তাকে চাঙ্গা করার জন্য বিশাল অর্থের কোনো পরিকল্পনার ঘোষণা করবে কেন্দ্র। তবে অর্থনীতিকে চাঙ্গা করার ব্যাপারে বারবার সরকারের মধ্যে অভ্যন্তরীণ বৈঠক হয়েছে সে কথাও বলেন জেটলি। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গেও যে বৈঠক করা হয়েছে সে কথাও বলেন জেটলি।

তিনি বলেন, “গত তিন বছর ধরেই ভারতের অর্থনীতি খুব দ্রুতগামী। আর্থিক বৃদ্ধির হার যাতে বেশি থাকে সেই দিকে নজর দেওয়া হচ্ছে।”

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here