winter rain in kolkata

ওয়েবডেস্ক: এক দিন দেরি হয়ে গেল। শুক্রবার থেকে বৃষ্টি হওয়ার কথা থাকলেও, শনিবার থেকে বৃষ্টি শুরু হল কলকাতা-সহ সমগ্র দক্ষিণবঙ্গে। আবহাওয়া বিশেষজ্ঞদের মতে, নিম্নচাপ দুর্বল হতে শুরু করলেও রবিবারেও বৃষ্টি চলবে রাজ্য জুড়ে। সোমবার থেকে আবহাওয়া উন্নতি করলেও শীত ফিরতে ফিরতে আরও পাঁচ দিন সময় লেগে যাবে।

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া গভীর নিম্নচাপটি ধীরে ধীরে ওড়িশা উপকূলের দিকে এগিয়ে আসছে। আবহাওয়া দফতর শনিবার সকালের বার্তায় জানিয়েছে, দিঘা থেকে তিনশো কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থান করছে ওই নিম্নচাপ। পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের কাছাকাছি চলে আশায় শুক্রবার শেষ রাত থেকে হালকা বৃষ্টি শুরু হয়েছে কলকাতা এবং সংলগ্ন অঞ্চলে। উপকূলবর্তী অঞ্চলে তুলনায় ভারী বৃষ্টি হচ্ছে। কলকাতাতেও শনিবার সকালের দিকে একদফা ভারী বৃষ্টি হয়েছে।

শনিবার সারা দিনই এই বৃষ্টি চলবে দক্ষিণবঙ্গে। তার কারণ নিম্নচাপটির সম্ভাব্য গতিপথ। বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কার মতে, “এই নিম্নচাপটি ওড়িশায় পৌঁছে উপকূল বরাবর পশ্চিমবঙ্গ এবং বাংলাদেশের দিকে এগোবে।” তাঁর কথায় পশ্চিমবঙ্গ উপকূলের কাছে এসে সে আরও দুর্বল হয়ে যাবে। সমুদ্রেই বিলীন হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখছেন রবীন্দ্রবাবু।

রবীন্দ্রবাবুর কথায়, বঙ্গোপসাগরের উত্তরাংশে জলের তাপমাত্রা অনেক কম থাকায় দুর্বল হবে সেটি। সোমবার পর্যন্ত এই নিম্নচাপটির প্রভাব দক্ষিণবঙ্গে থাকবে বলে জানান তিনি। তবে মঙ্গলবার থেকে আকাশ পরিষ্কার হয়ে গেলেই যে শীত ফিরবে তেমনটা কিন্তু নয়। এর কারণ উত্তর ভারতে তত দিনে হানা দেবে একটি শক্তিশালী পশ্চিমী ঝঞ্ঝা।

রবীন্দ্রবাবু বলেন, “পশ্চিমী ঝঞ্ঝাটি এতটাই শক্তিশালী যে তার প্রভাবে কাশ্মীর, হিমাচল, উত্তরাখণ্ডে প্রবল তুষারপাত তো হবেই, সিকিম এবং এ রাজ্যের সান্দাকফু অঞ্চলেও তুষারপাত হতে পারে। দিল্লি, পঞ্জাব, হরিয়ানা, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশে ভালো বৃষ্টি হবে।” এই পশ্চিমী ঝঞ্ঝা কেটে গেলেই উত্তরে হাওয়া ঢুকতে শুরু করবে এ রাজ্যে। পড়বে জব্বর শীত।

রবীন্দ্রবাবু জানান, ১৫ ডিসেম্বর থেকে প্রবল শীতের কবলে পড়তে দক্ষিণবঙ্গ। কলকাতার তাপমাত্রা পৌঁছে যেতে পারে এগারো-বারো ডিগ্রির কাছাকাছি।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here