কলকাতা: প্রস্তুতি একদম শেষ লগ্নে। বুধবার থেকেই চার দিনব্যাপী বর্ষাকাল শুরু হচ্ছে দক্ষিণবঙ্গে। নেপথ্যে ওড়িশার দিকে এগিয়ে যাওয়া একটি নিম্নচাপ। তবে বৃষ্টির পরেই আসছে সুখবর। উত্তুরে হাওয়াকে সঙ্গী করে ক্রমশ নামতে শুরু করবে তাপমাত্রা। দক্ষিণবঙ্গে আসর জমানো শুরু করবে শীত।

তবে প্রকৃত শীতের আগেই নকল ‘শীত’ অনুভুত হতে পারে কলকাতা-সহ সমগ্র অঞ্চলে। বুধবার থেকে এক নাগাড়ে বৃষ্টি এবং ঝোড়ো হাওয়ার সুবাদে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা নেমে আসতে পারে ২৪-২৫ ডিগ্রির আশেপাশে। ফলে বুধবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত বেশ ভালোই ‘শীত’ উপভোগ করতে পারবেন দক্ষিণবঙ্গবাসী।

কিন্তু এই অসময় বৃষ্টির কারণ কী?

এর পেছনে রয়েছে ওড়িশা উপকূলের দিকে এগোনো একটি নিম্নচাপ। বেসরকারি আবহাওয়া সংস্থা ওয়েদার আল্টিমার কর্ণধার রবীন্দ্র গোয়েঙ্কার কথায়, এই মুহূর্তে তামিলনাড়ু উপকূলের কাছে থাকা নিম্নচাপটি ক্রমশ শক্তি বাড়িয়ে ওড়িশার দিকে এগোবে। শুধু দক্ষিণবঙ্গই নয়, সমগ্র পূর্ব উপকূলেই বৃষ্টি চলবে।

কী রকম বৃষ্টি হবে দক্ষিণবঙ্গে?

রবীন্দ্রবাবুর কথায়, মূলত ঘ্যানঘ্যানানি বৃষ্টির সম্ভাবনাই বেশি কলকাতায়। তবে উপকূল এবং পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখছেন তিনি। তাঁর কথায়, “বুধবার থেকে শুক্রবার পর্যন্ত এই নিম্নচাপের রেশ বেশি থাকবে দক্ষিণবঙ্গে। তবে শনিবার থেকে সোমবার পর্যন্তও বিক্ষিপ্ত ভাবে হালকা বৃষ্টি হতে পারে।”

তবে আকাশ পরিষ্কার হয়ে গেলেই সুখবর। তত দিনে কাশ্মীর, হিমাচল এবং উত্তরাখণ্ডের বিভিন্ন জায়গায় তুষারপাত হয়ে যাবে। দক্ষিণবঙ্গের পরিষ্কার আকাশকে কাজে লাগিয়ে ঢুকে পড়বে শীতল উত্তুরে হাওয়া। নামতে শুরু করবে তাপমাত্রা। আবহাওয়া সংক্রান্ত কিছু বিদেশি ওয়েবসাইটের মতে, আগামী সপ্তাহের মঙ্গলবার-বুধবার নাগাদ ১৫ ডিগ্রির কাছাকাছি নেমে যেতে পারে দক্ষিণবঙ্গের তাপমাত্রা।

কাশ্মীরের, হিমাচলে তুষারপাত কমাবে দিল্লির ধোঁয়াশা: আবহাওয়া দফতর

ধোঁয়াশায় জেরবার দিল্লিবাসীর জন্য অবশেষে সুখবর। বৃষ্টিকে সঙ্গী করে কমবে দূষণের মাত্রা। এমনই জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। এই মুহূর্তে উত্তর পাকিস্তানে রয়েছে একটি শক্তিশালী পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। সেটি যত কাশ্মীরের দিকে এগিয়ে আসবে তত বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে উত্তর ভারতে। বুধবার থেকে এই ঝঞ্ঝার বৃষ্টি শুরু হবে উত্তর ভারতের বিভিন্ন জায়গায়। কাশ্মীর, হিমাচল এবং উত্তরাখণ্ডের বিভিন্ন জায়গায় হবে তুষারপাত।

আবহাওয়া দফতরের মতে, এই ঝঞ্ঝার ফলে বয়ে যাওয়া হাওয়াই দিল্লির ওপরে থাকা ধোঁয়াশার আস্তরণ সরিয়ে দেবে। আপাতত দূষণে কবলিত দিল্লিবাসীর তাই প্রার্থনা বৃষ্টির।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here