দার্জিলিং: ধীরে ধীরে শান্তি ফিরে আসছিল পাহাড়ে। কিন্তু ফের অশান্তির আগুন। পুলিশ এবং গুরুংপন্থী মোর্চা সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় শুক্রবার এক পুলিশকর্মী-সহ দু’জন নিহত হয়েছেন।

ঘটনার সূত্রপাত শুক্রবার ভোর পাঁচটা নাগাদ। লিমবু বস্তি ও তার আশপাশ এলাকায় গুরুং লুকিয়ে রয়েছেন, গত কয়েক দিন ধরেই এমন একটা খবর আসছিল পুলিশের কাছে। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে সেই মতো বৃহস্পতিবার মধ্য রাতে পুলিশ লিমবু বস্তিতে তল্লাশি অভিযান চালাতে গেলে তাদের লক্ষ করে গুরুংপন্থীরা গুলি চালায় বলে অভিযোগ। সেই গুলিতেই রাজ্য পুলিশের এক এএসআই অমিতাভ ঘোষ নিহত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। পুলিশের পালটা গুলিতে একজন মোর্চা সমর্থকের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে।

ইউএপিএ ধারায় মামলা হওয়ায় এই মুহূর্তে রাজ্য পুলিশের ‘মোস্ট ওয়ান্টেড’ তালিকায় রয়েছেন বিমল গুরুং। তাঁকে ধরার জন্যই এ দিন লিমবু বস্তিতে তল্লাশি শুরু করে পুলিশ।

এই ঘটনার কয়েক ঘণ্টা আগেই একটি ভিডিও বার্তার মাধ্যমে ৩০ অক্টোবর জনসমক্ষে আসার বার্তা দিয়েছিলেন গুরুং। সেখানে তিনি বলেছিলেন, “গোর্খাল্যান্ডের জন্য মৃত্যু বরণ করতেও তিনি প্রস্তুত।” এই ঘটনার ফলে পাহাড় যে আরও উত্তপ্ত হয়ে উঠল তা বলাই বাহুল্য।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here