Connect with us

উৎসব

১৯০৫ সালে রাখিবন্ধন উৎসবে গাওয়া হল ‘বাংলার মাটি, বাংলার জল’, কেন স্মরণীয় এই দিন

rabindranath

খবরঅনলাইন ডেস্ক: ১৯০৫-এর ১৯ জুলাই। বঙ্গভঙ্গের কথা ঘোষণা করলেন ব্রিটিশ ভারতের তৎকালীন ভাইসরয় লর্ড কার্জন। সেই সময় অবিভক্ত বাংলা মানে ছিল এখনকার বাংলাদেশ, পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, অসম, ত্রিপুরা মিলে যে ভূখণ্ড। আর এই অবিভক্ত বিশাল বাংলাকে শাসন করা ছিল ব্রিটিশের এক বড়ো সমস্যা। প্রশাসনিক সুবিধার অজুহাতে ধর্মের ভিত্তিতে বাংলা ভাগ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। ঠিক হল যে অঞ্চলে যে ধর্মের মানুষের সংখ্যা বেশি সে হিসাবে বিভাজন করা হবে বঙ্গকে। হিন্দু আর মুসলিম জনসংখ্যা অনুযায়ী দুই সম্প্রদায়কে আলাদা করে দেওয়া হবে।

আসলে ব্রিটিশবিরোধী জাতীয়তাবাদী আন্দোলনের আঁতুড়ঘরে পরিণত হয়েছিল বাংলা। তাই ইংরেজ শাসকদের উদ্দেশ্য ছিল বিশাল বাংলাকে ভাগ করে বিদ্রোহের গতি কমিয়ে ফেলা। ব্রিটিশের বঙ্গভঙ্গের প্রস্তাব পাশ হতে দেরি হল না। দিনটা ছিল ১৬ আগস্ট অর্থাৎ শ্রাবণ মাস।

অদ্ভুত ভাবেই রাখিপূর্ণিমা ছিল তখন। ফলে প্রথা মেনে হিন্দু ঘরের মেয়েরা তাদের দাদা-ভাইয়ের হাতে রাখি বাঁধবে। সেই ভালোবাসার বন্ধনের দিনটিকে অন্য রকম ভাবে কাজে লাগাতে চাইলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। তিনি হিন্দু-মুসলমানের মধ্যে সৌভ্রাতৃত্বের বন্ধন পাকা করতে রাখিবন্ধনের কথা ভাবলেন। ফলে রাখিবন্ধন কেবলমাত্র ভাই-বোনের মাঝেই আটকে রইল না, হয়ে উঠল হিন্দু-মুসলিমের সম্প্রীতির বন্ধন। এক মহান উৎসব।

রবীন্দ্রনাথ মানুষকে উদ্বুদ্ধ করলেন। এক ধর্মের মানুষ অন্য ধর্মের মানুষের হাতে রাখি বেঁধে দিচ্ছেন। ভালোবেসে একে অপরকে জড়িয়ে ধরছেন। এই ভাবেই রবীন্দ্রনাথ ব্রিটিশদের দিকে প্রতিবাদের আগুন ছুড়ে দিয়েছিলেন।

ঐতিহাসিক ছবি

এই দিন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নেতৃত্বে বিশাল মিছিল গঙ্গার উদ্দেশে পথে নামে। সাধারণ মানুষের সঙ্গে মিছিলে যোগ দিয়েছিলেন সমাজের গণ্যমান্য নামী ব্যক্তিরাও। সমস্ত দোকানপাট বন্ধ ছিল। গাড়ি ঘোড়াও বন্ধ ছিল। মিছিলের মানুষজন গঙ্গায় ডুব দেওয়ার পর একে অপরের হাতে হলুদ রঙের সুতো বেঁধে দিয়েছিলেন। তাঁর এক ডাকে ধর্ম-বর্ণ-জাতি নির্বিশেষে সারা বাংলার মানুষ পথে নেমেছিলেন। এক হয়েছিলেন।

রবীন্দ্রনাথ দিনটির উদ্দেশে একটি গানও লিখেছিলেন। তাতে ছিল বাঙলার সংস্কৃতি আর সম্পদের বন্দনা।

বাংলার মাটি বাংলার জল বাংলার বায়ু বাংলার ফল-
পুণ্য হউক, পুণ্য হউক, পুণ্য হউক হে ভগবান।
বাংলার ঘর, বাংলার হাট, বাংলার বন, বাংলার মাঠ-
পূর্ণ হউক, পূর্ণ হউক, পূর্ণ হউক হে ভগবান।
বাঙালির পণ, বাঙালির আশা, বাঙালির কাজ, বাঙালির ভাষা –
সত্য হউক, সত্য হউক, সত্য হউক হে ভগবান।
বাঙালির প্রাণ, বাঙালির মন, বাঙালির ঘরে যত ভাই বোন –
এক হউক, এক হউক, এক হউক হে ভগবান।”

গোটা বাংলার আকাশে-বাতাসে সে দিন এই গান ধ্বনিত হয়েছিল।

কলকাতার বিডন স্কোয়ার-সহ অনেক জায়গাতেই এই উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল।

এই প্রতিবাদ ইংরেজ শাসকদের টনক নাড়িয়ে দিয়েছিল। প্রতিবাদ ধীরে ধীরে অন্য মাত্রা নিয়েছিল। অবশেষে ছয় বছর পর ১৯১১ সালে ভাইসরয় লর্ড হার্ডিঞ্জ রদ করেন বঙ্গভঙ্গের প্রস্তাব।

উৎসব

এই রাখিবন্ধনে বোনকে দিতে পারেন এমনই কোনো ‘আর্থিক’ উপহার

তেমনই পাঁচটি ‘আর্থিক’ উপহার দেখে নিতে পারেন এক ঝলকে।

ইউটিউব থেকে প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: সব থেকে বড়ো উপহার ভালোবাসা। তবে কোনো উৎসবকে কেন্দ্র করে এর বাইরেও বিশেষ কিছু উপহার বিনিয়ম করা রীতি না হলেও অলিখিত অঙ্গ হয়ে উঠেছে। এ বারের রাখিবন্ধনে (Rakhibandhan) বোনকে উপহার দেওয়ার মতো তেমনই পাঁচটি ‘আর্থিক’ উপহার (financial gift) দেখে নিতে পারেন এক ঝলকে।

ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট

ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট একটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের মতোই। যা আপনার সমস্ত শেয়ার, বন্ড, মিউচুয়াল ফান্ড, ইটিএফ, সরকারি সিকিওরিটি ইত্যাদিকে ডিজিট্যাল বা ডিমেটেরিয়াল আকারে ধারণ করে।

সরকারি-বেসরকারি অথবা ব্যাঙ্ক নয় এমন আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ব্রোকারেজ সংস্থায় ডিম্যাট অ্যাকাউন্ট (Demat Account) খোলা যায়। আবার কোনো কোনো ক্ষেত্রে সেভিংস অ্যাকাউন্টের সঙ্গেও এই পরিষেবা পাওয়া যায়। ন্যূনতম বিনিয়োগ করে অ্যাকাউন্টটি খোলা সম্ভব।

এসআইপি

সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান বা সংক্ষেপে এসআইপি (SIP)। কোনো মিউচুয়াল ফান্ডে নিয়মিত টাকা বিনিয়োগ করে যাওয়ার পদ্ধতিই হল এসআইপি। সেটা হতে পারে প্রতি দিনে, সপ্তাহে, ১৫ দিনে, মাসে, তিন মাসে ইত্যাদি।

এসআইপির টাকা মূলত তিন ধরনের ফান্ডে খাটানো হয়। ইক্যুইটি ফান্ড, ডেট ফান্ড এবং মিক্সড ফান্ড। বুদ্ধি করে ফান্ড বাছাইয়ের পর দীর্ঘ মেয়াদে নিয়মিত টাকা ঢালতে পারলে চড়া রিটার্নের সম্ভাবনা। তবে সঠিক ফান্ড বাছতে না পারলে লোকসান হওয়ার সম্ভাবনাও থাকে।

সোনায় বিনিয়োগ

সোনায় বিনিয়োগ করা যায় বিভিন্ন পথে। মিউচুয়াল ফান্ড ও বন্ডের মাধ্যমেও সোনায় বিনিয়োগ করা যায়। সোনায় বিনিয়োগের বিনিময়ে একটি সার্টিফিকেট পাওয়া যায়। সোভেরিন সোনার বন্ডগুলি ডিজিট্যাল ও ডিম্যাট ফর্মেও পাওয়া যায়। স্টক এক্সচেঞ্চে ডিম্য়াট অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে সোনায় বিনিয়োগ করা যায়।

বিশেষজ্ঞদের একটি মহলের মতে, সোনার বিনিয়োগ অনেক বিনিয়োগকারীর জন্য নিরাপদ আশ্রয়স্থল। বিনিয়োগকারীরা অনলাইনে সোনার ইটিএফ কিনে ইউনিটগুলিকে রাখতে পারেন নিজের ডিম্যাট অ্যাকাউন্টে।

স্বাস্থ্যবিমা

স্বাস্থ্য বিমা (Health Insurance) সম্পর্কে কম-বেশি অনেকেরই জানা। স্বাস্থ্য বিমা এক ধরনের বিমার পলিসি, যেখানে বিমাকারীকে এবং তাঁর পরিবারকে এই দুর্ঘটনা, অসুস্থতা বা কোনো রোগব্যাধির চিকিৎসার খরচ জোগাতে সাহায্য করে।

বিভিন্ন বিমা সংস্থা, ব্যাঙ্ক স্বাস্থ্য বিমা বিক্রি করে। পলিসির ধরন বিভিন্ন রকম, মেয়াদও একাধিক। প্রিমিয়ামের পরিমাণও নির্ভর করে সুযোগ-সুবিধার উপর। ক্যাশলেস চিকিৎসার সুযোগ রয়েছে স্বাস্থ্য বিমায়। এ ব্যাপারে বিভিন্ন সংস্থার বিভিন্ন রকমের নিয়ম রয়েছে।

গিফট কার্ড

নাম বিভিন্ন রকমের। তবে ব্যবহার প্রায় একই রকম। গিফট কার্ড, গিফট ভাইচার, গিফট টোকেন অথবা গিফট সার্টিফিকেট।

বিভিন্ন রাষ্ট্রায়ত্ত এবং বেসরকারি ব্যাঙ্ক থেকে শুরু করে ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মে এই গিফট কার্ড পাওয়া যায়। এই কার্ডে যাঁকে দেওয়া হয়, তিনি নির্ধারিত কোনো দোকান থেকে (ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম থেকেও) নির্দিষ্ট অংকের পণ্য কিনতে পারেন। সে ক্ষেত্রে টাকার বিনিময় করতে হয় না, আবার উপহার পাওয়া ব্যক্তি নিজের পছন্দ মতো পণ্যটি বেছে নিতে পারেন গিফট কার্ডের (Gift Card) নির্দিষ্ট করা টাকার মধ্যে।

রাখিবন্ধনের যাবতীয় প্রতিবেদন পড়ুন এখানে ক্লিক করে: রাখিবন্ধন

*যে কোনো রকমের আর্থিক বিনিয়োগের আগে শর্তগুলি ভালো করে জেনে নিতে হবে। বিনিয়োগ আপনার ব্যক্তিগত বিষয়।

Continue Reading

উৎসব

রাখিবন্ধন নিয়ে এই ঐতিহাসিক কাহিনি দু’টি কি জানেন?

history

খবরঅনলাইন ডেস্ক: পুরাণের পাতা ওলটালে যেমন রাখিবন্ধনের বেশ কিছু উল্লেখ পাওয়া যায়, ঠিক তেমনই ইতিহাসের পাতা ওলটালেও রাখিবন্ধনের কিছু ঘটনার কথা জানা যায়। যেমন –

আলেকজান্ডার ও পুরুর ঘটনা –

৩২৬ খ্রিস্টপূর্বাব্দে আলেকজান্ডার ভারত আক্রমণ করেছিলেন, এই কথা সবাই জানি। এরই সঙ্গে রয়েছে আর একটি ঘটনাও। আলেকজান্ডারের স্ত্রী রোজানার কাহিনি। রোজানা রাজা পুরুকে একটি পবিত্র সুতো পাঠিয়েছিলেন। এর পর তিনি পুরু রাজাকে আলেকজান্ডারের ক্ষতি করতে মানা করেছিলেন। হিন্দু রাজা পুরু। তিনি রাখির মাহাত্ম্য বোঝেন ও তাকে সম্মান করেন। তাই রোজানার কথা রাখতে আর সেই পবিত্র সুতোর বন্ধনকে সম্মান দিতে যুদ্ধক্ষেত্রে তিনি নিজে আলেকজান্ডারকে আঘাত করেননি।

রানি কর্ণবতী ও মুঘল সম্রাট হুমায়ুনের কাহিনি –

ইতিহাসে আরও একটি কাহিনি পাওয়া যায় রাখিবন্ধনকে কেন্দ্র করে। ঘটনা ১৫৩৫ সালের। মুঘলসম্রাট হুমায়ুনকে একটি রাখি পাঠান চিতোরের রানি কর্ণবতী। গুজরাতের সুলতান বাহাদুর শাহ এই সময় চিতোর আক্রমণ করেছিলেন। তাতে বিধবা রানি অসহায় বোধ করেছিলেন। সেই পরিস্থিতিতেই তিনি রাখি পাঠিয়েছিলেন সম্রাটকে ও সাহায্য প্রার্থনা করেছিলেন।

হুমায়ুন এই বিষয়টির গুরুত্ব বুঝতেন। তাকে সম্মান জানিয়েই রানির সুরক্ষার জন্য সৈন্য প্রেরণ করেছিলেন। কিন্তু তাতে কিছুটা দেরি হয়ে গিয়েছিল। ততক্ষণে বাহাদুর শাহ চিতোর দখল করে নিয়েছিলেন। এই অবস্থায় নিজের সম্মান বাঁচাতে ১৩ হাজার পুর-নারীকে নিয়ে জহরব্রত পালন করেন রানি। তাঁরা ১৫৩৫ সালের ৮ মার্চ আগুনে আত্মহুতি দেন।

এর পর হুমায়ুন চিতোরে পৌঁছোন। তখন আর রানি নেই। শেষে বাহাদুর শাহকে চিতোর থেকে উৎখাত করে কর্ণবতীর পুত্র বিক্রমজিৎ সিংহকে সিংহাসনে অভিষিক্ত করেন। কিন্তু এই ঘটনাটি নিয়ে মতপার্থক্য আছে। অনেক ঐতিহাসিকের লেখায় এর উল্লেখ পাওয়া যায় না। অথচ মধ্য সপ্তদশ শতকের রাজস্থানি লোকগাথায় এর উল্লেখ পাওয়া যায়।

Continue Reading

উৎসব

রাখিবন্ধনের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে মহাভারতের কৃষ্ণ ও যমুনার কাহিনি

খবরঅনলাইন ডেস্ক: কলকাতায় রাখিবন্ধন উৎসব শুরু করেছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। ২০ জুলাই বঙ্গভঙ্গের সিদ্ধান্ত ঘোষণা করার পর জাতি বর্ণ নির্বিশেষে সকলেই আন্দোলন প্রতিবাদে মুখর হয়ে ওঠে। ১৬ অক্টোবর বঙ্গভঙ্গের দিন ঠিক হয়। সেই দিন হিন্দু মুসলমান একে অপরের হাতে সৌভ্রাতৃত্বের প্রতীক হিসাবে বেঁধে দেন রাখি। সেই থেকে চল হয় রাখি উৎসবের। তবে বাঙালি ছাড়া মূলত অবাঙালি সম্প্রদায় পঞ্জাবি ও মারোয়াড়িদের মধ্যে এই রাখিপূর্ণিমার উৎসব খুব ধুমধাম করে পালিত হয়। তবে রাখি পরানোর বিষয়টির সঙ্গে যোগ রয়েছে বেশ কিছু পৌরাণিক কাহিনিরও।  

কৃষ্ণ ও দ্রৌপদী

মহাভারতের কাহিনি থেকে জানা যায়, একটি যুদ্ধের সময় শ্রীকৃষ্ণের হাতের কবজিতে আঘাত লাগে। সেই ক্ষত থেকে রক্তপাত হতে শুরু হয়। তা দেখতে পেয়ে দ্রৌপদী নিজের শাড়ির আঁচল ছিঁড়ে কৃষ্ণের হাতে বেঁধে দেন। তার পর থেকেই শ্রীকৃষ্ণ দ্রৌপদীকে নিজের বোন সখী হিসাবে মানতে শুরু করেন। এই উপকারের প্রতিদান দেওয়ারও অঙ্গীকার করেন কৃষ্ণ। এর পর পাশা খেলায় পাণ্ডবরা সর্বস্ব খুইয়ে যখন দ্রৌপদীকে কৌরবদের হাতে তুলে দিতে বাধ্য হয়, দ্রৌপদীর চরম বিপদ এসে পড়ে। দুঃশাসন তাঁর বস্ত্রহরণ করতে গেলে দ্রৌপদী শ্রীকৃষ্ণকে প্রাণ ভরে স্মরণ করেন। দ্রৌপদীর সম্মানরক্ষা করে সেই শ্রীকৃষ্ণ সেই প্রতিদান দেন। সেই সময় থেকে এই ভাবেই রাখিবন্ধন উৎসবের প্রচলন হয়।

যম ও যমুনা

পুরাণ কথা অনুযায়ী, এক বার যমুনা নদী যমরাজকে রাখি পরিয়েছিলেন। তাতে খুশি হয়েছিলেন যমরাজ। তিনি যমুনা নদীকে অমরত্বের আশীর্বাদ দেন। তার পর থেকেই এটাই প্রচলিত বিশ্বাস যে, যদি কোনো বোন বা দিদি ভাই বা দাদার হাতে রাখি বাঁধে তা হলে সে অমরত্ব প্রাপ্ত হবে।

Continue Reading
Advertisement
Advertisement
দেশ32 mins ago

কোভিড আপডেট: নতুন করে আক্রান্ত ৬২০৬৪, সুস্থ ৫৪৮৫৯

দেশ2 days ago

বিমান দুর্ঘটনা লাইভ: উদ্ধার ব্ল্যাক বক্স, উদ্ধারকারীদের কোয়ারান্টাইনে যাওয়ার নির্দেশ শৈলজার

কলকাতা2 days ago

ঢাকায় পথদুর্ঘটনায় নিহত পর্বতারোহী, শোকস্তব্ধ কলকাতার পাহাড়প্রেমীরা

দেশ2 days ago

“দুর্ঘটনা নয়, পরিকল্পিত খুন”, কোড়িকোড়ের ঘটনা নিয়ে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ এয়ার সেফটি এক্সপার্টের

খেলাধুলো3 days ago

জাতীয় দলের অধিনায়ক-সহ পাঁচ ভারতীয় হকি খেলোয়াড় করোনা পজিটিভ

রাজ্য3 days ago

১১-১২ বছর ধরে ভাত খান না বিমান বসু, তা হলে কী খান?

বিনোদন2 days ago

২৮ দিন পর করোনা মুক্ত অভিষেক বচ্চন

দেশ3 days ago

কোড়িকোড়ে ১৯১ জন যাত্রী নিয়ে পিছলে গিয়ে দু’টুকরো এয়ার ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের বিমান, মৃত পাইলট-সহ ১১

রবিবারের খবর অনলাইন

কেনাকাটা

কেনাকাটা4 days ago

ঘর ও রান্নাঘরের সরঞ্জাম কিনতে চান? অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ৫০% পর্যন্ত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্ক : অ্যামাজন প্রাইম ডিলে রয়েছে ঘর আর রান্না ঘরের একাধিক সামগ্রিতে প্রচুর ছাড়। এই সেলে পাওয়া যাচ্ছে ওয়াটার...

কেনাকাটা4 days ago

এই ১০টির মধ্যে আপনার প্রয়োজনীয় প্রোডাক্টটি প্রাইম ডে সেলে কিনতে পারেন

খবরঅনলাইন ডেস্ক : চলছে অ্যামাজনের প্রাইমডে সেল। প্রচুর সামগ্রীর ওপর রয়েছে অনেক ছাড়। ৬ ও ৭  তারিখ চলবে এই সেল।...

কেনাকাটা4 days ago

শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল, জেনে নিন কোন জিনিসে কত ছাড়

খবরঅনলাইন ডেস্: শুরু হল অ্যামাজন প্রাইম ডে সেল। চলবে ২ দিন। চলতি মাসের ৬ ও ৭ তারিখ থাকছে এই অফার।...

things things
কেনাকাটা1 week ago

করোনা আতঙ্ক? ঘরে বাইরে এই ১০টি জিনিস আপনাকে সুবিধে দেবেই দেবে

খবরঅনলাইন ডেস্ক : করোনা পরিস্থিতিতে ঘরে এবং বাইরে নানাবিধ সাবধানতা অবলম্বন করতেই হচ্ছে। আগামী বেশ কয়েক মাস এই নিয়মই অব্যাহত...

কেনাকাটা2 weeks ago

মশার জ্বালায় জেরবার? এই ১৪টি যন্ত্র রুখে দিতে পারে মশাকে

খবরঅনলাইন ডেস্ক: একে করোনা তায় আবার ডেঙ্গুর প্রকোপ শুরু হয়েছে। এই সময় প্রতি বারই মশার উৎপাত খুবই বাড়ে। এই বারেও...

rakhi rakhi
কেনাকাটা2 weeks ago

লকডাউন! রাখির দারুণ এই উপহারগুলি কিন্তু বাড়ি বসেই কিনতে পারেন

সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে মনের মতো উপহার কেনা একটা বড়ো ঝক্কি। কিন্তু সেই সমস্যা সমাধান করতে পারে অ্যামাজন। অ্যামাজনের...

কেনাকাটা3 weeks ago

অনলাইনে পড়াশুনা চলছে? ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ৪০ হাজার টাকার নীচে ৬টি ল্যাপটপ

ইনটেল প্রসেসর সহ কোন ল্যাপটপ আপনার অনলাইন পড়াশুনার কাজে লাগবে জেনে নিন।

কেনাকাটা3 weeks ago

করোনা-কালে ঘরে রাখতে পারেন ডিজিটাল অক্সিমিটার, এই ১০টির মধ্যে থেকে একটি বেছে নিতে পারেন

শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা বুঝতে সাহায্য করে এই অক্সিমিটার।

কেনাকাটা3 weeks ago

লকডাউনে সামনেই রাখি, কোথা থেকে কিনবেন? অ্যামাজন দিচ্ছে দারুণ গিফট কম্বো অফার

খবরঅনলাইন ডেস্ক : সামনেই রাখি। কিন্তু লকডাউনের মধ্যে দোকানে গিয়ে রাখি, উপহার কেনা খুবই সমস্যার কথা। কিন্তু তা হলে উপায়...

laptop laptop
কেনাকাটা4 weeks ago

ল্যাপটপ কিনবেন? দেখে নিন ২৫ হাজার টাকার মধ্যে এই ৫টি ল্যাপটপ

খবরঅনলাইন ডেস্ক : কোভিভ ১৯ অতিমারির প্রকোপে বিশ্ব জুড়ে চলছে লকডাউন ও ওয়ার্ক ফ্রম হোম। অনেকেই অফিস থেকে ল্যাপটপ পেয়েছেন।...

নজরে

Click To Expand