ওয়েবডেস্ক: সেন্ট্রাল বোর্ড অব ডাইরেক্ট ট্যাক্সেস (সিবিডিটি) আয়কর জমা দেওয়ার ক্ষেত্রে এ বছরের ফর্ম ১৬-য় একাধিক পরিবর্তন নিয়ে এসেছে। ইতিমধ্যেই ফর্ম ১৬-র ‘পার্ট বি’-তে তথ্যাবলি সংক্রান্ত পরিবর্তন নিয়ে এসেছিল বোর্ড। এ বার বিজ্ঞপ্তি জারি করেন ফর্ম ১৬-র ‘পার্ট বি’ ডাউনলোডের জন্য নিয়োগকারীকে টিআরএসিইএস বা ট্রেসেস পোর্টালের দ্বারস্থ হওয়াকেও বাধ্যতামূলক করা হল।

টিআরএসিইএস বা ট্রেসেস হল এমন একটি সিস্টেম যা টিডিএস রিকনসিলেশনের বিশ্লেষণ এবং সংশোধনে সক্ষম। চালানের স্টেটাস দেখতে, ফর্ম ১৬/ ১৬এ ডাউনলোডের পাশাপাশি এই সিস্টেম থেকে বার্ষিক ট্যাক্স ক্রেডিটের বিবরণ, যেমন ফর্ম ২৬এএস ডাউনলোড করা সম্ভব।

এর আগে, নিয়োগকারীদের বাধ্যতামূলকভাবে ট্রেসেস পোর্টাল থেকে ফর্ম ১৬-র শুধুমাত্র ‘পার্ট এ’ ডাউনলোড করতে হতো এবং ‘পার্ট বি’ তৃতীয় পক্ষের সফ্টওয়্যার ব্যবহার করেও নেওয়া যেত। এই কারণে, ‘পার্ট এ’-কে সমস্ত ব্যক্তির জন্য অভিন্ন ভাবে করা হয়েছিল কিন্তু ‘পার্ট বি’ প্রত্যেকের জন্য একই ছিল না।

[ ফর্ম-১৬ কী? জেনে নিন ৫টি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য ]

উল্লেখ্য, ফর্ম ১৬-র ‘পার্ট-এ’ আর্থিক বছরে নিয়োগকর্তার দ্বারা কাটা করগুলির বিশদ বিবরণ ধারণ করে। অন্য দিকে ‘পার্ট বি’ মোট বেতনের খুঁটিনাটি বিবরণ বা ব্রেক আপ, কর-ছাড়ের ভাতা, পরিপূরক, কভারেজ দাবি ইত্যাদি বহন করে থাকে।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here