ওয়েবডেস্ক: বুথ ফেরত সমীক্ষার সঙ্গেই মিলে যেতে চলেছে সপ্তদশ লোকসভা ভোটের ফলাফল। সকাল ৮টায় ব্যালট পেপার এবং তার পরে ইভিএমের ভোটগণনা শুরু হতেই মিলতে শুরু করেছে সেই আভাস। স্বাভাবিক ভাবেই জোরালে ইঙ্গিত মিলতেই শেয়ার বাজারে ধরা পড়ল তার স্পষ্ট প্রভাব।

এ দিন সকালে শেয়ার বাজারের ৩০ স্টকের সূচক সেনসেক্স মুখ দেখায় ৪৮০ পয়েন্টের উপরে উঠে। তার পরে আর খুব একটা নিম্নমুখী হওয়ার লক্ষণ ধরা পড়েনি পরের আধঘণ্টা। ক্রমশ উপরে চড়তে থাকা সেনসেক্স প্রায় ৭০০ পয়েন্ট পর্যন্ত দৌড়ায় গত বুধবারের তুলনায়। এর নেপথ্যে রয়েছে তথাকথিত মোদীনোমিক্সের খেল।

কী এই মোদীনোমিক্স?

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আবিষ্কৃত এ দেশের নতুন ইকনোমিক্স। দুইয়ে মিলে মোদীনোমিক্স। গুজরাত থেকেই এই বিশেষ নীতি গত পাঁচ বছর আগে দিল্লিতে নিয়ে এসেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। দেশবাসীকে কোন দিকে নিয়ে চলেছে এই আর্থিক নীতির প্রয়োগ? তার কিছুটা হলেও নমুনা মিলল এ বারের লোকসভা ভোটের ফলাফল থেকেই। ইভিএমে নিজের মত দাখিল করার সময় নির্দিষ্ট ভাবে এই মোদীনোমিক্সের প্রভাব কতটা পড়েছে, তা তর্কের বিষয়। কিন্তু ফলাফলের সার্বিক চিত্র তো বলেই দিচ্ছে, মোদীর হাতেই দেশের দায়িত্ব দিয়ে নিশ্চিন্তে থাকার প্রবণতাই অধিক মাত্রায় প্রতিফলিত হয়েছে এ বারের লোকসভা ভোটে।

এ দিন শেয়ার বাজার খোলার প্রথম ১০ মিনিটে ২.৩ লক্ষ কোটি টাকা বিনিয়োগ হয় বলে জানিয়েছে স্টক এক্সচেঞ্জ। এর পরই অতীতেত সমস্ত রেকর্ড ভেঙে এ দিন সেনসেক্স পাড়ি দেয় ৩৯,৮৯৩ পয়েন্টে। যা সেনসেক্সের ইতিহাসে নতুন রেকর্ড গড়ে দিল। বলতে দ্বিধা নেই, নেপথ্যে সেই মোদীনোমিক্স!

আরও পড়ুন:শেষ ২০ বছরে লোকসভা ভোটের ফল ঘোষণার দিন কেমন ছিল শেয়ার বাজার?

বুথ ফেরত সমীক্ষা বলছে মোদী সরকার ফিরছে, সেনসেক্স-নিফটি যেন থামতেই চাইছে না!

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here