প্রতীকী ছবি

ওয়েবডেস্ক: লোকসভা ভোটের ফল ঘোষণা আগামী ২৩ মে, তা আগেই বুথ ফেরত সমীক্ষায় বিজেপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে কেন্দ্রে সরকার গঠনের আভাস মিলেছে। গত রবিবারের সেই সমস্ত বুথ ফেরত সমীক্ষা দেখে সোমবার বাজার খুলতেই ঝড়ের গতিতে উপরে চড়েছিল সেনসেক্স-নিফটি। মঙ্গলবারেও তার রেশ রয়ে গেলেও বুধবার যেন ছন্দপতনের মুখোমুখি হতে হচ্ছে ভারতীয় শেয়ার বাজারের দুই মূল সূচককে। একই সঙ্গে বেশ কয়েকটি স্টকেও দেখা যাচ্ছে চওড়া ধস।

এ দিন শেয়ার বাজারে সব থেকে শোচনীয় অবস্থা জিন্দল স্টিল অ্যান্ড পাওয়ার লিমিটেডের। বাজার খোলার সময় থেকেই ক্রমশ নিম্নগামী স্টকের দর একটা সময় পৌঁছে যায় ১০ শতাংশের খাদে। দুপুর সাড়ে বারোটা নাগাদ জিন্দলদের এই স্টক খুইয়েছে ১০.১১ শতাংশ দর। গত সোমবার ঠিক যতটা উঠেছিল এই স্টক, তার দ্বিগুণ পড়ল এ দিন। তবে এই পতনের কারণ হিসাবে সংস্থার চতুর্থ ত্রৈমাসিকে লোকসানের বিষয়টিকেও গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে।

অন্য দিকে দিওয়ান হাউজিং ফিনান্স কর্পোরেশনের স্টকেও দেখা গিয়েছে ১০ শতাংশের ধস। টেক মাহিন্দ্রা, টরেন্ট ফার্মা, ইন্ডাসইন্ড ব্যাঙ্ক, আইটিসির স্টকেও উল্লেখযোগ্য পতন অব্যাহত। একই সঙ্গে আদানি, অম্বানি বা টাটার বিভিন্ন স্টকের দর একটা সময় পড়ে গিয়েও ফের অতিকষ্টে উপরের দিকে ওঠার আপ্রাণ চেষ্টা চালাচ্ছে।

সব মিলিয়ে এ দিন সেনসেক্স সর্বোচ্চ ৩৯,১৯৬ পয়েন্ট ছুঁয়ে এলেও গত মঙ্গলবার বন্ধ হওয়ার সময় ৩৮,৯৬৯ পয়েন্টের নীচে নেমে দেখে এসেছে ৩৮,৯০৩ পয়েন্টও। অর্থাৎ, বুথ ফেরত সমীক্ষার ধাক্কায় গোঁত্তা খেয়ে উপরের দিকে ওঠা শেয়ার বাজারে ফের অস্থির পরিস্থিতি। আগামী বৃহস্পতিবার লোকসভা ভোটের ফলাফল। কোনো দলের বৃহস্পতি কতটা তুঙ্গে, সেটা বাস্তবিক ভাবে প্রকাশিত হতে হবে ওই দিনই। তার আগে পর্যন্ত শেয়ার বাজারের সামগ্রিক পরিস্থিতিটা যে দোলাচলের মধ্যে দিয়েই অতিক্রম করবে, তেমনটাই বলছেন বাজার বিশেষজ্ঞরা।

একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here