সরস্বতীপুজোয় সমাবেশ হলুদ রঙের, ঠিক যে ভাবে পাতেও প্রভাব খিচুড়ির

0

বসন্ত পঞ্চমী উদ্‌যাপন অথবা সরস্বতীপুজোয় হলুদ রঙের ভূমিকা চোখ এড়ানোর নয়। গায়ে হলুদ মেখে স্নান করা, হলুদ রঙের পোশাক পরা থেকে শুরু করে হলুদ-কমলা গাঁদা ফুলে অঞ্জলি দেওয়া। খাবারের পাতেও এর বড়োসড়ো প্রভাব দেখতে অভ্যস্ত আমরা। সরস্বতীপুজোর সঙ্গে এই হলুদ রঙের সম্পর্ক নিয়ে বিভিন্ন ধরনের মত রয়েছে। তবে চলুন দেখে নেওয়া যাক, এই বিশেষ দিনে হলুদ রঙের খাবার সম্পর্কে কিছু টুকিটাকি বিষয়।

অঞ্চল বিশেষ যেমন এই দিনটি বিভিন্ন রকম ভাবে উদ্‌যাপন করা হয়, তেমনই খাবারের পাতেও থাকে ভিন্ন পদের প্রাধান্য। উপকরণও ভিন্ন ভিন্ন। তবে মিল একটা জায়গায়। পদের নাম যাইহোক না কেন, রঙের দিক থেকে সব ক’টাই প্রায় হলুদ।

এমন পদের তালিকায় রয়েছে খিচুড়ি, বোঁদের লাড্ডু, কেসর হালুয়া, রাজভোগ অথবা ক্ষীর। এগুলোর মধ্যে বাঙালির প্রিয় পদ খিচুড়ি নিয়ে নতুন করে কিছু বলার থাকে না। তবে পুজোর দিন বলে কথা। নিরামিষ উপকরণেই জোর দেওয়া হয় এই দিনটাতে।

তা হলে এ বছরের সরস্বতীপুজোর দিনেও না হয় খিচুড়ি তৈরি করে ফেলুন। চলুন আরেকবার ঝালিয়ে নেওয়া যাক রেসিপি।

উপকরণ

গোবিন্দভোগ চাল: ১০০ গ্রাম

মুগের ডাল: ১৫০ গ্রাম

ঘি: ২৫ গ্রাম

সাদা তেল: তিন চামচ

তেজ পাতা: একটি

শুকনো লঙ্কা: দু’টি

হলুদ গুঁড়ো: ১/২ চামচ

নুন, চিনি: স্বাদ মতো

আদা বাটা: ১/২ চামচ

টমেটো কুচি: একটি

বড়ো করে কাটা আলু: দু’টি

বড়ো করে কাটা ফুলকপি: চার টুকরো

গাজর: একটি কুচি করা

বিনস, মটরশুঁটি, নারকেল কুচি: পরিমাণ মতো

পদ্ধতি

প্রথমেই আলু, কপি পরিমাণ মতো নুন-হলুদ মাখিয়ে হালকা ভেজে তুলতে হবে। কড়াইতে ঘি আর তেল গরম করে তেজ পাতা, শুকনো লঙ্কা, ফোঁড়ন দিয়ে নাড়তে হবে। তার পর আগে থেকে ধুয়ে জল ঝড়িয়ে রাখা চাল আর ডাল দিন। ভালো করে ভাজতে থাকুন, ভাজার সময় সব আনাজ কাটা এক সঙ্গে দিয়ে ভালো করে ভাজা ভাজা করুন। সঙ্গে সঙ্গে আদাবাটা, হলুদ, নুন, চিনি দিয়ে মেশাতে থাকুন।

কষা কষা হয়ে এলে পরিমাণ মতো জল দিয়ে আঁচ মাঝারি করে ঢাকা দিয়ে দিতে হবে। জলটা যখন ফুটে উঠবে, তাতে আলু, কপি ভাজা আর লঙ্কা দিয়ে ঢাকা দিতে হবে। যাতে কড়াইতে আটকে না যায় তার জন্য মাঝে মাঝে নাড়তে হবে। সব কিছু সেদ্ধ হয়ে জল শুকিয়ে এলে কড়াই নামিয়ে নিতে হবে। তৈরি সরস্বতী পুজোর খিচুড়ি। এ বার গরম গরম পরিবেশন করুন।

সংযোজন: প্রচলিত ধারণা অনুযায়ী, বসন্ত পঞ্চমীতে হলুদ রঙকে শুভ বলে মনে করা হয়। সরলতা, সাত্ত্বিকতা, সমৃদ্ধি, শক্তি, আলো এবং আশাবাদের প্রতীক মনে করা হয় এই রঙকে। ফলে মন থেকে নেতিবাচকতা দূর করে ইতিবাচক প্রভাব তৈরি হয়।

খবরের সব আপডেট পড়ুন খবর অনলাইনে। লাইক করুন আমাদের ফেসবুক পেজ। সাবস্ক্রাইব করুন আমাদের ইউটিউব চ্যানেল

বিজ্ঞাপন