bhetki fish & chikem fry

গত সেপ্টেম্বর জোকার জেনেক্স ভ্যালিতে অনুষ্ঠিত হয় ফুড ফেস্টিভ্যালইলিশ বিলাসী আয়োজক ছিল অদিতি খবর অনলাইন ওই খাদ্যোৎসবে আমরা আয়োজন করেছিলাম একটি রেসিপি কনটেস্টের ওই প্রতিযোগিতায় প্রথম, দ্বিতীয় তৃতীয় স্থান যে রেসিপিগুলি পেয়েছে, সেগুলি প্রকাশিত হচ্ছে খবর অনলাইনে আজ প্রকাশিত হল প্রথম স্থান পাওয়া রেসিপিটি ভেটকি মুরগির ভোজবাজি রেঁধেছেন এষণা দে

এষণা দে

 

 

 

 

কী কী লাগবে (২ জনের মতো)

১. ভেটকি মাছের ফিলে- ৪ পিস

২. চিকেনের কিমা -২০০ গ্রাম,

ভেটকি মাছ ম্যারিনেডের জন্য লাগবে

১. পেঁয়াজ বাটা – ৪ টেবিল চামচ

২. রসুন বাটা- ২ টেবিল চামচ

৩. আদা বাটা- ২ টেবিল চামচ

৪. আধ আঁটি ধনে পাতা, কাঁচা লঙ্কা ৬-৭টা, পুদিনা পাতা ৫-৬টা মিলিয়ে বাটা ৪ টেবিল চামচ (এক সঙ্গে মিক্সিতে বেটে নিতে হবে)

৫. নুন- পরিমাণ মতো

৬. মরিচ- অল্প

ব্যাটার বানানোর জন্য লাগবে

১. ময়দা – ৪ টেবিল চামচ,

২. কর্নফ্লাওয়ার – ২ টেবিল চামচ,

৩. ডিম – ২টো

৪. নুন – অল্প

৫. স্কচ- ৩০ মিলিলিটার (পরিবর্তে জলও ব্যবহার করতে পারেন আধ কাপ)

চিকেন কিমা বানানোর জন্য

সাদা তেল ২ টেবিল চামচ,

১. পেঁয়াজ বাটা ৩ টেবিল চামচ

২. রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ

৩. আদা বাটা দেড় টেবিল চামচ

৪. কাঁচা লঙ্কা চেরা ৩-৪টে

৫. টমেটো পিউরি- ২ টেবিল চামচ (টমেটোর বীজ বার করে মিক্সিতে পেস্ট করে নিতে হবে)

৬. নুন – পরিমাণ মতো

৭. হলুদ আধ চা চামচ

৮. জিরে গুঁড়ো- ১ চা চামচ

৯. ধনে গুঁড়ো- ১ চা চামচ

১০. ধনে পাতা বাটা – ১ টেবিল চামচ

১১. গরম মশলা গুঁড়ো- আধ চা চামচ

ফ্রাই গড়ার জন্য

১. বিস্কুট গুঁড়ো- পরিমাণ মতো।

ভাজার জন্য

সাদা তেল।

আরও পড়ুন: খবর অনলাইন রেসিপি কনটেস্ট ২: ইলিশ টিকিয়া

কী ভাবে বানাবেন

১. প্রথমে ভেটকি মাছের ফিলেগুলোকে নুন, মরিচ, আদা বাটা, পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, কাঁচা লঙ্কা বাটা, ধনে পাতা বাটা, পুদিনা পাতা বাটা ও লেবুর রস মাখিয়ে ম্যারিনেট করে এক দেড় ঘণ্টা ফ্রিজে রাখতে হবে।

২. মাছ ম্যারিনেট হওয়ার মধ্যে মাংসটা বানিয়ে নিতে হবে।

৩. কড়াইয়ে তেল গরম হলে গরম মশলা ফোড়ন দিতে হবে। তার পর একে একে পেঁয়াজ বাটা, রসুন বাটা, আদা বাটা, টমেটো পিউরি দিয়ে ভালো করে কষে নিতে হবে।

৪. বাটা মশলার রঙ বাদামি হয়ে উঠলে কাঁচা লঙ্কা চেরা, চিনি, নুন, হলুদ, জিরে গুঁড়ো, ধনে গুঁড়ো, লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে কষতে হবে।

৫. এর পর চিকেন কিমা মেশাতে হবে। ভালো করে মিশিয়ে আঁচ কমিয়ে, কিছুক্ষণ চাপা দিয়ে রাখতে হবে।

৬. কিমা সেদ্ধ হলে বেশ ঝুড়ো ঝুড়ো হয়ে যাবে। ওপর থেকে ধনে পাতা কুঁচি ও ৩০ মিলি হুইস্কি দিয়ে গ্যাস বন্ধ করে দিতে হবে।

৭. এ বার একটা পাত্রে ব্যাটার বানিয়ে নিতে হবে। ময়দা, কর্নফ্লাওয়ার মিশিয়ে অল্প নুন, মরিচ, ডিম ও হুইস্কি বা জল দিয়ে গুলি ব্যাটার বানাতে হবে।

৮. এর পর ফিলেগুলোকে ফ্রিজ থেকে বের করে ব্যাটারে ডুবিয়ে রাখতে হবে।

৯. তার পর ফিলেগুলোর দু’ পাশে কিমার মিশ্রণ দিয়ে আবার ব্যাটারে ডোবাতে হবে। এর পর বিস্কুট গুঁড়ো মাখিয়ে নিতে হবে।

১০. এর পর কড়াইয়ে তেল গরম করে ভাজতে হবে।

১১. গরম গরম ফ্রাই স্যালাডের সঙ্গে পরিবেশন করা যেতে পারে।

সন্ধ্যের আড্ডায় এই ভোজবাজি পেতেই পারে সুপার লাইক।

আরও পড়ুন: রেস্তোরাঁয় নয়, পুজোর ভোজন এবার ঘরে বসেই, সৌজন্যে ‘দ্য মারমেড’স মিথ’

উত্তর দিন

আপনার মন্তব্য দিন !
আপনার নাম লিখুন