রাজা মিত্র

পটল এমন একটি মজার সবজি যে পছন্দ মতো পুর ভরা যায়। পনির বা চিজ দিয়ে পুর করা ভরওয়াঁ পরওয়াল নিরামিষ পদ হিসেবে অত্যন্ত উপাদেয় এবং জনপ্রিয়। আর বাঙালির পটলের দোলমা তো তুলনাবিহীন…চিরায়ত….

তবে আজকে পুর করবো মাংসের কিমা দিয়ে আর সঙ্গে দেব একটু সস বা গ্রেভি, যাতে শুধু স্টার্টার নয়, মেন কোর্স হিসেবেও পরিবেশন করা যায়।

কী কী লাগবে

১. কিমা -২৫০ গ্রাম

২. গোটা গরম মশলা- আন্দাজ মতো

৩. নুন-স্বাদ মতো

৪. পেঁয়াজ কুঁচো- ২ কাপ

৫. আদা রসুন বাটা- ২ বড়ো চামচ

৬. জিরা গুঁড়ো- ২ ছোটো চামচ

৭. ধনে গুঁড়ো- ২ ছোটো চামচ

৮. হলুদ গুঁড়ো- ২ ছোটো চামচ

৯. লঙ্কা গুঁড়ো- ২ ছোটো চামচ

১০. টমেটো পুরি- ২ কাপ

১১. টমেটো সস- আধ কাপ

১২. ক্রিম –আধ কাপ

১৩. মাখন- ৫০ গ্রাম

১৪. সাদা তেল- ৬ বড়ো চামচ

১৫. কাজু- ১ বড়ো চামচ

১৬. কিসমিস- ১ বড়ো  চামচ

১৭. গোটা শুকনো লঙ্কা- ২টি

১৮. তেজ পাতা- ১টি

১৯. কসুরি মেথি- ২/৩ চিমটে

২০. ধনে পাতা কুঁচো- ১ আঁটি

২১. কাঁচা লঙ্কা- ২টি

২২. পটল-মাঝারি মাপের- ৮টি

২৩. কর্ন ফ্লাওয়ার- ২ বড় চামচ

২৪. ডিম- ১টি

আরও পড়ুন: মোবি মিল্‌সের হেঁশেল থেকে: কিমা মটন মশালা

কী ভাবে বানাবেন

১. ১টি কড়াইতে ২ বড়ো চামচ সাদা তেল গরম করুন।

২. ১টি শুকনো লঙ্কা, গোটা গরম মশলা ফোড়ন দিন। ১ কাপ পেঁয়াজ কুঁচো দিয়ে নাড়তে থাকুন।

৩. অর্ধেক আদা রসুন বাটা দিয়ে দিন। জল ঝরিয়ে কিমা দিয়ে দিন, নাড়াচাড়া করতে থাকুন।

৪. গুঁড়ো মশলা দিয়ে দিন। লঙ্কা গুঁড়ো দেবেন না। ভাল করে কষুন। নুন দেখে নিয়ে জল দিয়ে কিমা রান্না করে নিন।

৫. অল্প আঁচে কিমা শুকনো করে নিন। কাজু কিসমিস মিশিয়ে নিন। প্রয়োজনে অল্প পনির দিতে পারেন, যদি পুর আঁট না হয়। ধনে পাতা এবং কাঁচালঙ্কা মিশিয়ে নিন।

৬. পুর ঠান্ডা করে নিন। পটলের একটা মাথা কেটে ভিতর পরিষ্কার করে নিন। অনেকে পটলটি আড়াআড়ি ছিঁড়ে নিয়ে ভিতর পরিষ্কার করে পুর ভরেন। তবে প্রথম করার সময় একটা মাথা কেটে করাই ভাল।

৭. পুর ভরে নিন। বেশ ঠেসে ভরা হবে।

৮. কর্ন ফ্লাওয়ার আর ডিম গুলে নিন। একটি পাতলা মন্ড হবে।

৯. আরেকটি কড়াইতে সাদা তেল গরম করুন।

১০. পটলের কাটা মুখটি মন্ডতে ডুবিয়ে তেলে ছেড়ে দিন। মুখটা বন্ধ হয়ে গেলে উল্টে পাল্টে ভেজে নিন। তেল ঝরিয়ে রাখুন।

১১. এবারে আরেকটি কড়াইতে মাখন গরম করুন।

১২. শুকনো লঙ্কা তেজপাতা ফোড়ন দিন।

১৩. বাকি পেঁয়াজ কুঁচো ছেড়ে দিন এবং নাড়তে থাকুন।

১৪. পেঁয়াজ ভাজা হয়ে এলে আদা রসুন বাটা দিয়ে দিন। অল্প হলুদ দিন এবং লঙ্কা গুঁড়ো দিয়ে দিন।

১৫. কষা হয়ে এলে টমেটো পুরি ছেড়ে দিন। অল্প জল দিতে পারেন। অল্প আঁচে ফুটতে দিন।

১৬. ঘন হয়ে আসলে টমেটো সস মিশিয়ে নিন। নুন দেখে নিন।

১৭. আঁচ বন্ধ করে ক্রিম মিশিয়ে নিন। কসুরি মেথি ছড়িয়ে দিন।

১৮. রুটি বা পোলাও-এর সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন।

আরও পড়ুন: মোবি মিল্‌সের হেঁশেল থেকে : ফিশ অ্যান্ড মিট বল সুপ

ছবি: লেখক

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here