জেনে নিন কলকাতার ৫টি রেস্টুরেন্টের পুজোর স্পেশাল বাঙালি খাবারের মেনু

0

পুজো মানেই তো খাওয়াদাওয়া।। প্যান্ডেল হপিং করতে বেরিয়ে বাঙালি খাবারের স্বাদ নিতে কার না ভালো লাগে। খবর অনলাইন পাঠকদের জন্য রইল এমনই ৫টি বাঙালি রেস্টুরেন্টের পুজোর স্পেশাল মেনু। ঠাকুর দেখার পর এদের কোনো একটিতে ঢুঁ মারতেই পারেন। তবে হাতে সময় নিয়ে যাবেন। কারণ রেস্টুরেন্টগুলোতে ভিড় বেশ ভালোই হচ্ছে।

সপ্তপদী

বাঙালি খাবারে জন্য কলকাতার এই রেস্টুরেন্টটি বেশ নাম করেছে। জোমাটোর দেওয়া তথ্য অনুযায়ী এখানে খেতে দু’জনের পড়বে ৭০০টাকা মতো। তবে পুজো উপলক্ষ্যে রয়েছে স্পেশাল মেনু। শারদীয়া থালি ৮০০টাকা। স্পেশাল শারদীয়া থালি ৯৯৯টাকা। এছাড়া নবরাত্রির জন্য রয়েছে একাধিক আইটেম। আপনি অনলাইনেও অর্ডার দিয়ে আনিয়ে নিতে পারেন আপনার মনের মতো খাবার।

রাজবাড়ির খাওয়া

হাতে পয়সা থাকলে খাওয়া ব্যাপারে বাঙলি রাজা। তাই রাজবাড়ির মতো পঞ্চব্যাঞ্জন সহযোগ লাঞ্চ বা ডিনার সারতে হলে আপনাকে যে হবে রাজবাড়ির খাওয়াতে। জোমাটোর দেওয়া হিসাব অনুযায়ী এখানে দু’জনের খরচ পড়বে ৫০০টাকা মতো। এবারে পুজোর স্পেশাল মেনু হল কলাবতী থালি, খরচ৬৩৬ টাকা ৫৮৬ টাকা। এই থালিতে ভাতের বদলে থাকছে লুচি।

এবেলাওবেলা

দক্ষিণ কলকাতার বাঁশদ্রোণী এলাকার একটি বাঙালি খাবারের রেস্টুরেন্ট এবেলাওবেলা। এখানে খেতে দু’জনের জন্য খরচ পড়বে কমপক্ষে ৪০০টাকার মতো। তবে পুজোর স্পেশাল ভেজথালি, খিচুড়ি, চিকেন থালি, মটন থালি, ফিস থালি এবারের আকর্ষণ। প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে রাত ১২ পর্যন্ত খোলা আছে। ফোন ৯৮৩১১৬৮৭৬৩।

দি ভোজ কোম্পানি

মাছের নানা আইটেম জন্য ফ্রি স্কুল স্ট্রিটের এই রেস্টুরেন্ট পরিচিতি লাভ করেছে। যদি ঠাকুর দেখতে দেখতে ধর্মতলার কাছে পৌঁছে যান তবে দি ভোজ কোম্পানিতে ঢুঁ মেরে এদের স্পেশাল ভেটকি ফিস ফ্রাই ট্রাই করতে পারেন। এখানে থেকে দু’জনের খরচ পড়বে ৫০টাকার মতো। ফোন ৯৮৩০৪২৮৮০০।

হাপুস হুপুস

শোভাবাজারের নিমতলা ঘাট স্ট্রিটের এই রেস্টুরেন্টি বাঙালি খাবারে জন্য নাম করেছে। এখানে খেতে গড়ে খরচ পড়বে দুজনের জন্য ২০০টাকা। চিকেন, মটন, ফিস, ভেজ সবরকম আইচেম আছে। মেনু দেখতে এখানে ক্লিক করুন।

ফোন ফোন ৮২৪০৫৩৬১০১। স্পেশাল খিচুড়ি মশলা কম্বো ট্রাই করতে পারেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.