রেসিপি: দুধ পটল

এক বার পটলের একেবারে নতুন এই পদটি বানিয়ে দেখুন। একঘেয়ে চিরাচরিত পটলকে ভালো লাগবেই।

0
dudh patal
দুধ পটল।
মেঘমালা সেনগুপ্ত

পটলের একঘেয়ে পদ খেয়ে খেয়ে অরুচি হয়ে গেছে? কিন্তু বাজারে পটলের মরশুম শেষ হতে এখনও বেশ কিছু দিন দেরি। তা হলে উপায়? পটল খাওয়া সাময়িক বন্ধ করে দেবেন নাকি তা হলে? এক বার পটলের একেবারে নতুন এই পদটি বানিয়ে দেখুন তো কেমন লাগে? নিঃসন্দেহে একঘেয়ে চিরাচরিত পটলকে ভালো লাগবেই লাগবে। রান্না করে সকলকে খাইয়ে প্রশংসাও কুড়োবেন অবশ্যই। চলুন তা হলে দেখে নেওয়া যাক অসামান্য স্বাদের পটলের এই পদটি কী ভাবে বানাবেন। 

বানাতে যা যা লাগবে

পটল মাঝারি আকারের ৮টা, নুন স্বাদমতো, হলুদ ১/২ ছোটো চামচ, চিনি ১ ছোটো চামচ অথবা স্বাদমতো (এই রান্নাটি একটু মিষ্টি স্বাদের হয়), ছোটো এলাচ ২টো, দারচিনি ছোটো এক টুকরো, লবঙ্গ ২-৩টে, জিরেগুঁড়ো ১ ছোটো চামচ, উষ্ণ গরম দুধ ২ কাপ, রিফাইন্ড তেল ২ বড়ো চামচ এবং ঘি ১ ছোটো চামচ। 

কী ভাবে বানাবেন

পটলগুলোর দু’দিকের বোঁটা কেটে ফেলে দিয়ে সম্পূর্ণ খোসা ছাড়িয়ে নিন। পটলের দু’দিক দিয়ে বেশ কিছুটা করে চিরে নিন যাতে করে রান্নার সময় মশলাগুলি পটলের ভেতরে যেতে পারে। কড়াইয়ে তেল গরম করে পটলগুলো লালচে করে ভেজে তুলে নিন। এ বার ওই তেলেই ছোটো এলাচ, লবঙ্গ, দারচিনি ফোঁড়ন দিন। নুন, হলুদ আর জিরেগুঁড়ো দিয়ে মিনিট খানেক নাড়াচাড়া করুন। ভাজা পটলগুলো এতে দিয়ে দিন। চিনি আর উষ্ণ গরম দুধ দিন। ঝোল গাঢ় হওয়া অবধি ফোটান। ওপরে ঘি ছড়িয়ে নামিয়ে নিন। ভাত, রুটি বা পরোটার সঙ্গে পরিবেশন করুন। 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here